বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষা এএমজেড হসপিটালে

বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষা এএমজেড হসপিটালে

বিদেশগামী যাত্রীদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষার ফি তিন হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে প্রতিষ্ঠানটি অন্য কোনো বিমান পরিচালনা সংস্থার সঙ্গে বাধ্যতামূলক ল্যাব হিসেবে তালিকাভুক্ত হতে পারবে না।

বিদেশগামী যাত্রীদের করোনাভাইরাস পরীক্ষায় এক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এখন থেকে রাজধানীর উত্তর বাড্ডার এএমজেড হসপিটাল লিমিটেড থেকে বিদেশগামী যাত্রীরা কোভিড-১৯ এর সনদ নিতে পারবে।

বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিদর্শন প্রতিবেদনের সুপারিশের প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে বেশ কিছু শর্ত দেয়া হয়েছে অনুমোদন দেয়া প্রতিষ্ঠানটিকে।

বিদেশগামী যাত্রীদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষার ফি তিন হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে প্রতিষ্ঠানটি অন্য কোনো বিমান পরিচালনা সংস্থার সঙ্গে বাধ্যতামূলক ল্যাব হিসেবে তালিকাভুক্ত হতে পারবে না।

বিদেশে বাংলাদেশের সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখতে সতর্কতার সঙ্গে করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ, পরীক্ষা এবং সঠিক ফল দিয়ে সনদ দিতে হবে। ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ যাতে ওয়েবসাইটে যাত্রীর তথ্য পেতে পারে সে জন্য যথাসময়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ‘ডিএইচআইএস টু’ সফটওয়্যারে ডাটা এন্ট্রি করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিদেশগামী যাত্রীদের পাসপোর্ট ও টিকিট যাচাই করে বিমান ছাড়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে নমুনা সংগ্রহ করে ফ্লাইটের ২৪ ঘন্টা আগে রিপোর্ট দিতে হবে। কোনো অবস্থাতেই ৭২ ঘণ্টার আগে নমুনা নেয়া বা টেস্ট করা যাবে না। নমুনা সংগ্রহে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বুথ স্থাপন করতে হবে।

আরটি-পিসিআর ল্যাবগুলোকে আইইডিসিআর-এর মান নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা অনুসরণ করতে হবে। যাত্রী সেবায় একটি হটলাইন চালু করে দিন-রাত ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রিপোর্টে ভুল হলে তার জন্য ল্যাব কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে। শর্তের ব্যত্যয় হলে অনুমোদন বাতিল করা হবে।

আরও পড়ুন:
দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন মৃত্যু
ইন্দোনেশিয়ায় বয়স্কদের আগে টিকা পাবে তরুণরা
করোনারোধী ‘ন্যাজাল স্প্রে’ উদ্ভাবন দাবি বিআরআইসিএমের
করোনায় আরও ১৬ মৃত্যু
টিকা ব্যবস্থাপনায় বিশেষ টিম

শেয়ার করুন

মন্তব্য