20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
নারী কাউন্সিলরকে ছুরিকাঘাত

প্রতীকী ছবি

নারী কাউন্সিলরকে ছুরিকাঘাত

‘নেহার বেগমের ঘাড়ে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। জখম স্থানে ৩০টি সেলাই দেয়া হয়েছে।’

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নেহার বেগমকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। এ ঘটনায় তার সাবেক স্বামী রফিকুল ইসলাম জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে।

নেহার বেগম ১৬,১৭ ও ১৮ ওয়ার্ডের সংরক্ষিত কাউন্সিলর।

বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর দ্বিতীয় মুরাদপুর এলাকায় তার ওপর হামলা হয়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক মুশফিক আহমেদ জানান, নেহার বেগমের ঘাড়ে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। জখম স্থানে ৩০টি সেলাই দেয়া হয়েছে।’

নেহার বেগমের ছেলে জহিরুল ইসলাম সুমন জানান, ‘২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে মা-বাবার ছাড়াছাড়ি হয়। এর পর থেকেই বাবা নানা কারণে মাকে হুমকি দিতেন। এ নিয়ে অশান্তি বাড়তে থাকে।’

‘ঘটনার দিন মা হাঁটতে বের হলে বাবা রফিকুল ইসলাম ছুরি নিয়ে তার ওপর হামলা চালায়। তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে পালিয়ে যান বাবা।’

কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ারুল হক বলেন, এ ঘটনায় কেউ লিখিত বা মৌখিক অভিযোগ করেনি। তবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য