20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
নিক্সন চৌধুরীর জামিন চেম্বার আদালতে বহাল

ফাইল ছবি।

নিক্সন চৌধুরীর জামিন চেম্বার আদালতে বহাল

নিক্সন চৌধুরীর আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদারকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘আপনারা মেম্বার অব পার্লামেন্ট হয়ে এগুলি করতে পারেন না। এগুলি করা উচিত না এমপি সাহেবদের। যেহেতু আট সপ্তাহের জামিন দিয়েছে আমরা তাতে এন্টারফেয়ার করলাম না।’

নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের মামলায় ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন চৌধুরীকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করেনি আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত। ফলে হাইকোর্টের জামিন বহাল থাকল।

বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের চেম্বার আদালত ‘নো অর্ডার’ দেয়।

শুনানিকালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলেন, তিনি (নিক্সন চৌধুরী) একজন সংসদ সদস্য হয়ে কটূক্তি ও অশালীন কথা বলেছেন।
তখন নিক্সন চৌধুরীর আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদারকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘আপনারা মেম্বার অব পার্লামেন্ট হয়ে এগুলি করতে পারেন না। এগুলি করা উচিত না এমপি সাহেবদের। যেহেতু আট সপ্তাহের জামিন দিয়েছে আমরা তাতে এন্টারফেয়ার (হস্তক্ষেপ) করলাম না।’

পরে আদালত নো অর্ডার দেয়। এর ফলে তার জামিনের আদেশ বহাল থাকল বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুল আলম। অন্যদিকে, নিক্সন চৌধুরীর পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদার। তার সঙ্গে ছিলেন সাইদ আহমেদ রাজা।

গত মঙ্গলবার বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি কেএম জাহিদ সারওয়ার কাজলের হাইকোর্ট বেঞ্চ নিক্সন চৌধুরীকে আট সপ্তাহের জামিন দেন।

এ জামিন স্থগিত চেয়ে বুধবার রাষ্ট্রপক্ষ আপিল আবেদন করে। ওই আবেদনের ওপর চেম্বার আদালতে বৃহস্পতিবার শুনানি হয়।

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে গত ১৫ অক্টোবর মামলা করে নির্বাচন কমিশন। এরপর হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন নিক্সন চৌধুরী। ২০ অক্টোবর হাইকোর্ট তাকে আগাম জামিন দেয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য