20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ঝড়-বৃষ্টি মাথায় নিয়ে আসছেন দুর্গা

দুর্গাপূজা মণ্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। ছবি: সাইফুল ইসলাম

ঝড়-বৃষ্টি মাথায় নিয়ে আসছেন দুর্গা

সন্ধ্যার পর দর্শনার্থীরা ঢুকতে পারবেন না মণ্ডপে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আরতি প্রতিযোগিতা হবে না। বের হবে না প্রতিমা বিসর্জনের শোভাযাত্রাও। থাকবে বৃষ্টির বাগড়া।   

ষষ্ঠীতে বোধনের মধ্যে দিয়ে বৃস্পতিবার শুরু হচ্ছে বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। করোনা মহামারির কারণে এবার পূজায় উৎসবে টানা হচ্ছে রাশ। সেই সঙ্গে আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, লঘুচাপের কারণে আগামী কয়েকদিন থাকতে পারে ঝড়বৃষ্টির দাপট।

বৃহস্পতিবার শুরু হয়ে পূজা চলবে পাঁচ দিন, যা ২৬ অক্টোবর দশমীতে বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

ঢাকাসহ সারাদেশে পূজার প্রস্তুতি পুরোদমে চলছে। তবে এবার আলোকসজ্জা আর সাজসজ্জায় চাকচিক্য তেমন থাকবে না। সন্ধ্যা আরতির পর মণ্ডপে ঢুকতে পারবেন না দর্শনার্থীরা।

পঞ্জিকা মতে এবার দেবী দুর্গা আসছেন দোলায়। দোলায় আসার অর্থ 'মড়ক'। ধর্মীয় নেতারা বলছেন, দেবী এবার দোলায় আসায় পূজায় বা তার পরবর্তী সময়েও মহামারি পরিস্থিতি বজায় থাকার আশঙ্কা আছে।

তবে, মায়ের গমন এবার গজে। গজে চড়ে গমনের ফল শুভ হয়। শাস্ত্র মতে, এর ফলে পৃথিবী শস্য শ্যামলা হবে।

সন্ধ্যায় বন্ধ মণ্ডপ দরজা

এবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার আশেপাশেই বন্ধ হয়ে যাবে মণ্ডপের দুয়ার। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আরতি প্রতিযোগিতা হবে না। বের হবে না প্রতিমা বিসর্জনের শোভাযাত্রাও।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ এবার ঢাকা মহানগরের সব পূজা মণ্ডপের জন্য ২২টি নির্দেশনা দিয়েছে।

সার্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কিশোর রঞ্জন মণ্ডল নিউজবাংলাকে বলেন, সন্ধ্যার পরই মূলত মণ্ডপে ভিড় বেশি দেখা যায়। সংক্রমণ বাড়ার শঙ্কায় তাই এই সময়ে মণ্ডপে ঢোকা বন্ধ থাকবে।

সন্ধ্যা আরতির পর বলতে কয়টা বোঝানো হচ্ছে এমন প্রশ্নে কিশোর রঞ্জন মণ্ডল বলেন, ‘নির্দিষ্ট সময় তো ধরা হয়নি। তবে সন্ধ্যা আরতি যখন শুরু হবে সে অনুযায়ী আনুমানিক সাড়ে ছয়টার পর থেকেই আর দর্শনার্থীরা ঢুকতে পারবেন না। যারা ভেতরে থাকবে তাদেরও বের করে দেয়া হবে।’

এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক পরা, বসার জায়গায় প্রতিটি চেয়ারের দূরত্ব তিন ফুট নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

নিরাপত্তার বিষয়ে কমিটির নেতারা জানান, সামর্থ্য অনুযায়ী পূজা মণ্ডপে সিসি ক্যামেরা বসানো হবে। গুজব ছড়ালে বিভ্রান্ত না হয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানানোর অনুরোধ করা হয় ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) মনির হোসেন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমরা চার স্তরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করব। তাছাড়া আমাদের পক্ষ থেকেও মণ্ডপগুলোতে সিসি ক্যামেরা দেয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, মণ্ডপে ঢোকার আগে ভক্ত, দর্শনার্থীদের দেহের তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে। যাদের তাপমাত্রা ৯৮.৪ ডিগ্রির বেশি থাকবে তাদের মণ্ডপে আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে।

৩০ হাজার মণ্ডপ

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের দেওয়া তথ্য অনুসারে, এ বছর সারাদেশে ৩০ হাজার ২২৩টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা হচ্ছে। গত বছর মণ্ডপের সংখ্যা ছিল ৩১ হাজার ৩৯৮টি। ঢাকা মহানগরে এ বছর পূজা মণ্ডপের সংখ্যা ২৩৩টি। গত বছর এ সংখ্যা ছিলো ২৩৭টি।

রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের প্রতিটি পূজামণ্ডপের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ, আনসার, র‌্যাবসহ অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। পুলিশ ও র‌্যাবের পাশাপাশি প্রায় প্রতিটি মণ্ডপে স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী দায়িত্ব পালন করবে।

এবার পূজায় বৃষ্টির হানা

বৃষ্টির মৌসুম শেষ হলেও এবার শেষ হচ্ছে না বৃষ্টি। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, দুর্গাপূজায় এবার বাগড়া দিতে পারে ভারী বৃষ্টি।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ আব্দুল হামিদ নিউজবাংলাকে বলেছেন, ‘অক্টোবরের ২২ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে। এর মধ্যে ২৩ তারিখ অর্থাৎ সপ্তমী পূজার দিন সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য