20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
নোয়াখালীতে দুই নারীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

সেনবাগ থানা। ফাইল ছবি।

নোয়াখালীতে দুই নারীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

সেনবাগের ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন যুবককে আটক করেছে। বুধবার সকালে সেনবাগ থানায় ওই গৃহবধূ মামলা করেন। চাটখিলের ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নোয়াখালীর সেনবাগ ও চাটখিল উপজেলায় দুই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

সেনবাগের ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন যুবককে আটক করেছে। বুধবার সকালে সেনবাগ থানায় ওই গৃহবধূ মামলা করেন। পুলিশ তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠায়।
চাটখিলের ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সেনবাগে গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন, উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের পূর্ব ছাতারপাইয়া এলাকার শুভ (১৯), ছাতারপাইয়া বদর বাড়ির হাসান উদ্দিন (১৯) ও মো. রকি (২০)। চাটখিলে গ্রেফতার হয়েছেন মুজিবুর রহমান শরীফ (৩০)।

সেনবাগের ঘটনার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ৯ অক্টোবর রাতে চাচাত দেবর এক গৃহবধূর বসত ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন। অভিযুক্ত ধর্ষকের সহযোগীরা ওই নারীকে অভিযুক্তের পাশে বসিয়ে মুঠোফোনে ভিডিও চিত্র ধারণ করেন। পরে ইন্টারনেটে ভিডিও ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ওই নারী ও তার স্বামীর কাছে ত্রিশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন অভিযুক্তরা।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল বাতেন মৃধা জানান, ওই গৃহবধূ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

চাটখিলের ঘটনায় গৃহবধূ নিজে থানায় গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে মুজিবুর রহমান শরীফের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।

চাটখিল থানার ওসি আনোয়ারুল আজিম জানান, মুজিবুর রহমান শরীফ নামের এক যুবককে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। মামলা রেকর্ড হওয়ার পর পরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মুজিবুরকে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন