20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ভাষাসৈনিক নুরুল ইসলামের প্রয়াণ

ভাষাসৈনিক নুরুল ইসলামের প্রয়াণ

ভাষাসৈনিক ও সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স হয়েছিল ৯১ বছর।

বুধবার সকালে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

খুলনা মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র মনিরুজ্জামান মনি বিষয়টি জানিয়েছেন।

খুলনা মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি ছিলেন নুরুল ইসলাম। তিনি তিন ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

নুরুল বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্যও ছিলেন।

১৯৩৪ সালের ২ মে খুলনা মহানগরীর ২০, বাবুখান রোডে জন্মগ্রহণ করেন নুরুল। ডা. খাদেম আহমেদ ও আছিয়া খাতুনের ছয় ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে সবার বড় তিনি।

এম নূরুল ইসলাম উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পাস করার পর ছাত্রাবস্থায় নিখিল বাংলা মুসলিম ছাত্রলীগের খুলনা শাখার সাধারণ সম্পাদক হন। ১৯৫২ সালে হক-ভাসানী-সোহরাওয়ার্দীর যুক্ত ফ্রন্টে যোগ দেন তিনি।

একই সময় তিনি খুলনায় ভাষা আন্দোলনে জনমত গঠনে ভূমিকা পালন করেন। খুলনায় সমাবেশ ও মিছিলে সামনে থেকে ভূমিকা রাখেন।

ঊনসত্তরের ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থানে নেতৃত্ব দান, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি।

১৯৭৮ সালে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের জাতীয়তাবাদী যুক্তফ্রন্টে যোগ দেন নুরুল। তিনি ১৯৭৯ সালে খুলনা মহানগর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হন।

২০০১ সালে খুলনা-৪ আসন (রূপসা-তেরখাদা-দিঘলিয়া) থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি সবার কাছে ‘দাদু ভাই’ নামে পরিচিত।

সূত্র: ইউএনবি

শেয়ার করুন