অবৈধ সম্পদের মামলায় সাবেক ডিআইজি মিজানের বিচার শুরু

অবৈধ সম্পদের মামলায় সাবেক ডিআইজি মিজানের বিচার শুরু

ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান মঙ্গলবার অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন। ২৭ অক্টোবর শুরু হবে সাক্ষ্যগ্রহণ।

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও মুদ্রা পাচার মামলায় পুলিশের সাবেক ডিআইজি মিজানুর রহমান মিজান, তার স্ত্রীসহ তিন স্বজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন হয়েছে। এর মাধ্যমে শুরু হলো মামলার বিচার।

ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান মঙ্গলবার অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন। ২৭ অক্টোবর শুরু হবে সাক্ষ্যগ্রহণ।

মিজান ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন, তার স্ত্রী সোহেলিয়া আনার ওরফে রত্মা রহমান, ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান ও ভাগ্নে মাহমুদুল হাসান।

মিজানের বিরুদ্ধে ঘুষ কেলেঙ্কারির আরেক মামলায় এখন সাক্ষ্য চলছে।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় অভিযোগ গঠনের দিনে মিজান ও তার ভাগ্নে মাহমুদুলকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

শুনানিতে তাদের আইনজীবীরা অব্যাহতির আবেদন করেন। অন্যদিকে, এর বিরোধিতা করেন দুদকের আইনজীবী।

মিজানের স্ত্রী সোহেলিয়া, ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান পলাতক। গত ৯ ফেব্রুয়ারি এ দুই আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন বিচারক।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের অনুসন্ধান শেষে গত ২৪ জুন দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে (ঢাকা-১) মিজানসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন সংস্থার পরিচালক মঞ্জুর মোর্শেদ।

মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ৩ কোটি ২৮ লাখ ৬৮ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও ৩ কোটি ৭ লাখ ৫ হাজার টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ আনা হয়।

মামলার পর আত্মগোপনে থাকা মিজান গত ১ জুলাই হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করলে তা নাকচ হয়। পরের দিন তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয় আদালত।

শেয়ার করুন

মন্তব্য