নিয়োগ দাবি: কাফনের কাপড় পরে অনশন

প্যানেল প্রত্যাশীদের কাফনের কাপড় পরে আমরণ অনশন চলছে। ছবি: নিউজবাংলা

নিয়োগ দাবি: কাফনের কাপড় পরে অনশন

‘২০১৮ সালে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের প্যানেল করে নিয়োগের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এই অনশন চলবে। অনশনে যদি আমরা অসুস্থ হয়ে যাই বা অন্য কিছু হয়, তার দায়ভার সরকারের।’

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে কাফনের কাপড় পরে আমরণ অনশন করছেন প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ প্যানেল প্রত্যাশী কমিটির সদস্যরা।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ৯টা থেকে এই কর্মসূচি শুরু হয়।

৯ দিন অবস্থান নেয়ার পর কাফনের কাপড় পরে আমরণ অনশন করার কথা বলেছেন নিয়োগ প্রত্যাশীরা।

প্যানেল প্রত্যাশী কমিটির সভাপতি আবদুল কাদের জানান, সকাল ৯টা থেকে অনশন শুরু হয়েছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘২০১৮ সালে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের প্যানেল করে নিয়োগের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এই অনশন চলবে। অনশনে যদি আমরা অসুস্থ হয়ে যাই বা অন্য কিছু হয়, তার দায়ভার সরকারের।’

সোমবার ৩২ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)।

বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কারণে দাবি আদায়ের সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে গেল কি না এমন প্রশ্নের জবাবে আবদুল কাদের বলেন, ‘এই বিজ্ঞপ্তির কথা আগে থেকেই জানি। তবে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাজস্ব খাতভুক্ত সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদে ছয় হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে সামনে আরও রিট আবেদন করব।’

প্যানেল তৈরির মাধ্যমে নিয়োগের দাবি অযৌক্তিক বলে তা নাকচ করে দেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আকরাম আল হোসেন।

তিনি বলেন, ‘সরকারি বিধিমালা অনুযায়ী সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এর বাইরে নিয়োগের সুযোগ নেই।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য