20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
নিখোঁজ অটোচালকের হাত-পা বাঁধা লাশ মিলল বিলে

নিহত আব্দুল মালেক

নিখোঁজ অটোচালকের হাত-পা বাঁধা লাশ মিলল বিলে

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটক দুজনের দেয়া তথ্যে বুরুঙ্গা গ্রাম থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে নাংলা এলাকার বরখাল বিলে সোমবার দুপুরে পাওয়া যায় মালেকের লাশ।

এক সপ্তাহ ধরে নিখোঁজ জামালপুরের মেলান্দহের অটোরিকশা চালক আব্দুল মালেকের হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত মালেকের বাড়ি মেলান্দহ উপজেলার বুরুঙ্গা গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটক দুজনের দেয়া তথ্যে বুরুঙ্গা গ্রাম থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে নাংলা এলাকার বরখাল বিলে সোমবার দুপুরে পাওয়া যায় মালেকের হাত-পা বাঁধা লাশ।

মেলান্দহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম খান জানান, আব্দুল মালেক গত সোমবার (১২ অক্টোবর) রাত ১২টার দিকে মেলান্দহ স্টেশন থেকে যাত্রী নিয়ে নাংলার দিকে যাচ্ছিলেন। এরপরে তার আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।

স্বামী নিখোঁজ থাকায় থানায় জিডি করেছিলেন মালেকের স্ত্রী রিতা বেগম।

তিনি জানান, রোববার গোপনসূত্রে খবর পেয়ে নাংলা এলাকা থেকে মালেকের অটোরিকশাটিসহ শফিকুল ইসলাম নামের একজনকে আটক করা হয়। একই দিন দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা থেকে আটক করা হয় তার সহযোগী আমজাদ হোসেনকে। তারা পুলিশের কাছে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের কথা স্বীকার করেন।

মালেককে শ্বাসরোধে হত্যার পর হাত-পা বেঁধে লাশ বিলে ফেলা দেয়ার কথাও স্বীকার করেন তারা। তাদের এ তথ্যের ভিত্তিতেই সোমবার মালেকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

ওসি রেজাউল জানান, এ ঘটনায় শফিকুল ও আমজাদসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন মালেকের মা মালা বেগম। মামলায় আটক দুই জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

মরদেহ উদ্ধারস্থল পরিদর্শন করে জামালপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার সীমা রাণী সরকার জানান, অটোরিকশা ছিনতাইকারীদের একটি দল ঘটনা ঘটিয়েছে। জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান চলছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য