কন্যা সন্তান: এক বাবার বোধোদয়

নবজাতক তিন কন্যা শিশু ও মা ফাতেমা। ছবি: নিউজবাংলা

কন্যা সন্তান: এক বাবার বোধোদয়

‘নবজাতকদের দত্তক দিতে সামাজিক মাধ্যমে দেয়া হয়েছিল স্ট্যাটাস। এতে মিলেছে সাড়াও। তবে ওই সিদ্ধান্ত থেকে আপাতত সরে এসেছে পরিবার।’

দাম্পত্য জীবন ২০ বছরের। ছেলে সন্তানের আশায় এর মধ্যে একে একে সংসারের এসেছে পাঁচ কন্যা সন্তান। বছর খানেক আগে বিয়ে হয়েছে বড় মেয়ের। বাকি চার জন করছে লেখাপড়া। ছোট দুজন আছে শিশু শ্রেণিতে।

ছেলে না হওয়ার আক্ষেপটা থেকেই যায় দিনমজুর সাইফুর রহমান ও গৃহবধূ ফাতেমা দম্পতির। তাই আবারও পরিকল্পনা করেন সন্তান নেয়ার। প্রায় ৪০ বছর বয়সে গর্ভধারণ করেন ফাতেমা। এবার তার কোলজুড়ে এক সঙ্গে আসে ফুটফুটে তিন সন্তান। তবে হিতে বাম।

নবজাতক তিন কন্যা সন্তান সুস্থ থাকলেও ভালো নেই মা। ফাতেমার মামা প্রভাষক মহর আলী জানান, প্রসবের পর অসুস্থ হয়ে পড়েছে তার ভাগ্নি। উঠতে পারছে না বিছানা থেকে। অর্থ কষ্টে চিকিৎসাও হচ্ছে না ঠিকমতো।

মহর আলী আরও জানান, নবজাতকদের দত্তক দিতে সামাজিক মাধ্যমে দেয়া হয়েছিল স্ট্যাটাস। এতে মিলেছে সাড়াও। তবে ওই সিদ্ধান্ত থেকে আপাতত সরে এসেছে পরিবার।

৮ কন্যা সন্তানের বাবা সাইফুর রহমান জানান ‘আল্লাহ যা করেছেন তা ভালোই করেছে। কষ্টের সংসার হলেও তাদের মানুষ করতে হবে।’

সাইফুরের প্রতিবেশী বাবুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, সাইফুরের ভিটেবাড়ি ছাড়া তেমন জমিজমা নেই। কখনো সবজি বিক্রি করে কখনো দিনমজুরি করে চলে সংসার। এতগুলো সন্তানের মুখে খাবার যোগাতে এমনিতেই হিমশিম খেতে হয় সাইফুরকে।

নাগেশ্বরী উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর আহম্মদ মাছুম জানান, হতদরিদ্র ওই পরিবারকে সরকারি সহযোগীতার আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য