20201002104319.jpg
শিশুদের ব্যস্ত রাখুন: প্রধানমন্ত্রী

শিশুদের ব্যস্ত রাখুন: প্রধানমন্ত্রী

ছোট ভাইয়ের স্কুল ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে তারই একটি ম্যুরাল উন্মোচন করেন শেখ হাসিনা।

করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল খোলার আগ পর্যন্ত শিশুদের ঘরে পড়াশোনা ও খেলাধুলায় ব্যস্ত রাখতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মবার্ষিকীতে এক অনুষ্ঠানে এই কথা বলেন রাসেলের ‘বুবু’।

ছোট ভাইয়ের স্কুল ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে তারই একটি ম্যুরাল উন্মোচন এবং ‘শহিদ শেখ রাসেল’ একাডেমিক ভবন উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ম্যুরালটি উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানে সরাসরি উপস্থিত থাকতে না পারায় দুঃখও প্রকাশ করেন রাসেলের ‘বুবু’। বলেন, ‘আসলে আমার বাইরে যাওয়ার অনেক বাঁধা।’

বঙ্গবন্ধুর ছোট ছেলে শেখ রাসেল ১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর জন্ম নেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার দিন নয় বছরের শিশুটিকেও গুলি করে হত্যা করে খুনিরা।

শেখ হাসিনাকে ‘বুবু’ বলে ডাকত ছোট্ট রাসেল। অনুষ্ঠানে তার স্মৃতিচারণও করেন বঙ্গবন্ধুর বড় কন্যা।

শিশুদেরকে ‘মানুষের মত মানুষ’ হওয়ার তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি জানি, করোনা ভাইরাসের কারণে স্কুল বন্ধ। এটা সত্যিই যে কোন শিশুর জন্য খুব কষ্টকর। …তবুও আমি তাদেরকে বলব, মনোযোগ দিয়ে লেখাপড়া করতে হবে।

পড়াশোনার পাশাপাশি ছবি আঁকা বা খেলাধুলায় শিশুদের ব্যস্ত রাখার পরামর্শও দেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘যে যতটুকু পারে সেইটুকু তাদের করতে হবে এবং সেভাবে নিজেদেরকে ব্যস্ত রাখতে হবে।’

করোনায় সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন,‘আমি হয়ত মাস্কটা পরে কথা বলছি না। কারণ, আমার এখানে কেউ নাই আশে পাশে। …কিন্তু বেশি লোক সমাগমে গেলে মাস্ক পরে থাকবেন।’

ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল ও কলেজে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী উপস্থিত ছিলেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী যোগ দেন আরও একটি অনুষ্ঠানে। শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্স প্রান্তে এনিমেটেড ডকুমেন্টরি ‘বুবুর দেশ’, ভার্চুয়াল আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন তিনি।

শেখ রাসেল এর জীবনী ‘শেখ রাসেল আমাদের আবেগ, আমাদের ভালবাসা’ এর মোড়কও উন্মোচন করেন তার ‘আদরের বুবু’।

এরপর প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র প্রান্তে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের কার্যক্রম সংক্রান্ত ভিডিও চিত্র উদ্বোধন, ‘স্মৃতির পাতায় শেখ রাসেল’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ফাইভ পাওয়া ছাত্র-ছাত্রীদের পুরস্কার বিতরণ, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান এবং দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য