20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
লালমনিরহাটে বিমানের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার

উদ্ধার হওয়া বিমানের ধ্বংসাবশেষ। ছবি: নিউজবাংলা

লালমনিরহাটে বিমানের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার

বিমান বাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার শাহাদত হোসেন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, এটি ১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় বিধ্বস্ত হওয়া বিমানের ধ্বংসাবশেষ।

লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের গুড়িয়াদহে শনিবার মাটি খননের সময় এক ব্যক্তির জমিতে বিমানের ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, এই ধ্বংসাবশেষ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে বিধ্বস্ত হওয়া একটি যুদ্ধবিমানের।

বিমানের ধ্বংসাবশেষ দেখতে সেখানে প্রচুর মানুষ ভিড় করে। পুলিশ ও বিমান বাহিনীর সদস্যরা জায়গাটি ঘিরে রেখেছেন।

জমির মালিক মো. রেজাউল জানান, গত কয়েকদিন ধরে বাড়ির কাজের জন্য শ্রমিক দিয়ে মাটি কাটছিলেন। শনিবার মাটি খোঁড়ার সময় একজন শ্রমিকের কোদালে শক্ত কিছুর আঘাত লাগে। আরও মাটি খোঁড়ার পর দেখেন বড় একটা লোহার খণ্ড। প্রশাসনকে খবর দিলে তারা এসে জায়গাটি ঘিরে রাখে। পরে বিমান বাহিনীর লোকজন এসে মাটি খোঁড়া শুরু করেন।

রেজাউল বলেন, ‘বাপ-দাদার মুখে শুনেছি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় একটি বিমান এখানে পড়ে ধ্বংস হয়। কিন্তু এ পর্যন্ত সেটার ব্যাপারে তেমন কোনো খোঁজ কেউ করেনি। তাই হয়তো বের হয়নি। আজ মাটি খোঁড়ার সময় বের হলো।’

বিমান বাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার শাহাদত হোসেন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘এলাকাবাসীর কাছ থেকে শুনে ও আমরা ঘটনাস্থলে এসে যা দেখতে পাই, তাতে ধারণা করা হচ্ছে ১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় বিধ্বস্ত হওয়া বিমানের ধ্বংসাবশেষ এটা। এলাকাবাসীও বলছে বিশ্বযুদ্ধের সময় একটি বিমান এখানে বিধ্বস্ত হয়েছিল। এখন পর্যন্ত এক্সিট ডোর, প্রপেলারসহ বিমানের বেশ কিছু অংশ উদ্ধার করা হয়েছে। খননকাজ চলছে, হয়তো আরও কিছু পাওয়া যাবে।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য