20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
অস্ত্রসহ ৩ রোহিঙ্গা আটক

আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যদের সঙ্গে আটক ৩ রোহিঙ্গা

অস্ত্রসহ ৩ রোহিঙ্গা আটক

শুক্রবার আটক হওয়া সন্ত্রাসী নুরুন নবীকে কিছুদিন আগে উখিয়া থানায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছিল। তিনি সালমান শাহ গ্রুপের সদস্য। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হয়েছে।

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার একটি রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৪০০ পিস ইয়াবা ও তিনটি দেশীয় অস্ত্রসহ(রামদা/কিরিচ) ৩ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন-১৬ (এপিবিএন)।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে অভিযান চালিয়ে নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন, বালুখালী ৯ নং ক্যাম্পের ব্লক-বি/৯ এর হামিদ হোসেনের ছেলে মুন্না গ্রুপের সদস্য ছৈয়দুল আমিন (২৫), শালবাগান ক্যাম্প ব্লক-এফ/৫ এর আব্দুস সালামের ছেলে কবির মাঝি (৫২) এবং নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার্ড ক্যাম্প ব্লক-ই, শেড-৯৭৪ এর সামসুল আলমের ছেলে সালমানশাহ গ্রুপের সদস্য নুরুন নবী (২৯),যার এমআরসি-০০৩১০।

পুলিশ পরিদর্শক রকিবুল ইসলামের নেতৃত্বে এসআই মাহবুব হোসেন ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানের বিষয়ে ১৬ এপিবিএন অধিনায়ক মোহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম শুক্রবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বেশ কিছু দিন ধরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইন-শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে কিছু সন্ত্রাসী। সেখানে উগ্রপন্থী লোকজনও জড়িত বলে তারা বিভিন্ন সুত্রে জানতে পেরেছেন।

এরপর থেকে ক্যাম্পগুলোতে ব্যাপক নজরদারি বাড়ানো হয়। সম্ভাব্য স্থানে অভিযানও চালাচ্ছে প্রশাসন।

ইতিমধ্যে, অনেক রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী অস্ত্রসহ গ্রেফতার হয়েছে। অধিনায়ক মোহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম জানান,শুক্রবার আটক হওয়া সন্ত্রাসী নুরুন নবীকে কিছুদিন আগে উখিয়া থানায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছিল। তিনি সালমান শাহ গ্রুপের সদস্য। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হয়েছে।

অপরাধীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

মন্তব্য