শেরপুরের পাহাড়ে বন্যহাতির মৃত্যু

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার গারো পাহাড়ে মারা যাওয়া বন্যহাতি।

শেরপুরের পাহাড়ে বন্যহাতির মৃত্যু

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারত থেকে একদল বন্যহাতি আসে। খাদ্যের সন্ধানে তারা উপজেলার গারো পাহাড়ের রাঙাজান বাহাজের টিলায় ওঠে। এ সময় একটি হাতি খাদে পড়ে যায়। পরে সেখানেই এটির মৃত্যু হয়।

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার গারো পাহাড়ে একটি বন্যহাতির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে হাতিটির মৃত্যু হয়। শুক্রবার সকালে প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে এটির মৃতদেহ মাটি চাপা দেয়া হয়েছে।

খাদ্যে বিষক্রিয়ায় হাতিটির মৃত্যু হতে পারে বলে উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সার্জন মেহেদী হাসান জানান।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারত থেকে একদল বন্যহাতি আসে। খাদ্যের সন্ধানে তারা উপজেলার গারো পাহাড়ের রাঙাজান বাহাজের টিলায় ওঠে। এ সময় একটি হাতি খাদে পড়ে যায়। পরে সেখানেই এটির মৃত্যু হয়।

শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিলুফা আক্তারসহ কর্মকর্তারা। এ সময় হাতিটির প্রাথমিক পরীক্ষা করেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন মেহেদী হাসান।

ভেটেরিনারি সার্জন জানান, হাতিটির বয়স ৩৫ হতে ৪০ বছর হবে। দৈর্ঘ্য প্রায় ১৫ ফুট। এটি মাদি (স্ত্রী) হাতি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যায়, খাদ্যে বিষক্রিয়ায় হাতিটির মৃত্যু হতে পারে। এটির নমুনা নেয়া হয়েছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।
পরে সেখানেই গর্ত করে মৃত হাতিটি মাটি চাপা দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বন বিভাগের বালিজুরি রেঞ্জ কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম, বন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ওয়াইল্ড রেঞ্জার আব্দুল্লাহ আল আমিন, ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ রানা ও বিজিবির সদস্যরা।

শেয়ার করুন