20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ইউএনওকে ‘লাঞ্ছনা’: মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা

মেয়র আবদুল বাতেন ও ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকী। ছবি: নিউজবাংলা

ইউএনওকে ‘লাঞ্ছনা’: মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা

পৌর মেয়র উত্তেজিত হয়ে ‘অকথ্য ভাষায়’ ইউএনওকে গালিগালাজ শুরু করেন। একপর্যায়ে চেয়ার থেকে উঠে গিয়ে ধাক্কা দিয়ে ইউএনওকে মারতে উদ্যত হন তিনি।

পাবনার বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ আনাম সিদ্দিকীকে লাঞ্ছনার অভিযোগে বেড়া পৌরসভার মেয়র আবদুল বাতেনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

বুধবার রাতে ইউএনও আসিফ বাদী হয়ে বেড়া মডেল থানায় মামলাটি করেন।

স্থানীয় একাধিক জনপ্রতিনিধি জানান, সোমবার উপজেলা পরিষদের সম্মেলনকক্ষে মাসিক সমন্বয় সভা হয়। এতে মেয়র আবদুল বাতেন উপজেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে থাকা কাজিরহাট ও নগরবাড়ি ঘাট নিজ নিয়ন্ত্রণে নেয়ার একটি লিখিত প্রস্তাব দেন। অনুমোদন দিতে ইউএনওকে চাপও দেন মেয়র।

জনপ্রতিনিধিরা আরও জানান, বিষয়টি মেয়রের এখতিয়ার-বহির্ভূত ও বিধিসম্মত নয় বলে ইউএনও তা অনুমোদন সম্ভব নয় বলে জানান।

ওই সময় পৌর মেয়র উত্তেজিত হয়ে ‘অকথ্য ভাষায়’ ইউএনওকে গালিগালাজ শুরু করেন। একপর্যায়ে চেয়ার থেকে উঠে গিয়ে ধাক্কা দিয়ে ইউএনওকে মারতে উদ্যত হন তিনি। ওই সময় সভায় উপস্থিত অন্যরা তাকে থামানোর চেষ্টা করেন।

এ ঘটনায় স্থানীয় সরকার বিভাগ মঙ্গলবার মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে আবদুল বাতেনকে।

বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম জানান, সরকারি কাজে বাধা, হুমকি ও ইউএনওকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করায় দণ্ডবিধির ৩২৩, ৩৩২, ৩৫৩, ৩৫৫ ও ৫০৬ ধারায় মামলা করা হয়।

ওসি আরও জানান, মামলায় ঘটনার সময় উপস্থিত তিন জনপ্রতিনিধিকে সাক্ষী করা হয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য