20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
নাট্যশিল্পীকে ধর্ষণের মামলায় আসামি খালাস

নাট্যশিল্পীকে ধর্ষণের মামলায় আসামি খালাস

রাষ্ট্রপক্ষ মামলার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছেন। সে কারণে তাকে খালাস দেয়া হল

নাট্যশিল্পীকে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় একটি বেসরকারি টেলিভিশনের প্রোগ্রাম প্রডিউসার আসলাম শিকদারকে খালাস দিয়েছে আদালত।

বুধবার ঢাকার ৫ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সামছুন্নাহার এ রায় ঘোষণা করেন।

ট্রাইবুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আলী আসগর স্বপন বলেন, 'মামলাটির সব সাক্ষ্য ও শুনানি করেছিলেন ৭ নম্বর ট্রাইবুনালের বিচারক। আমাদের এখানে শুধু যুক্তিতর্ক উপস্থাপন হয়েছে। বিচারক খালাসের রায়ে বলেছেন, রাষ্ট্রপক্ষ মামলার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছেন। সে কারণে তাকে খালাস দেয়া হল।'

রায়ের বিবরণ থেকে জানা যায়, একটি বেসরকারি টেলিভিশনে কর্মরত থাকা অবস্থায় আসলাম শিকদারের সঙ্গে ওই নাট্যশিল্পীর পরিচয় হয়। পরিচয়ের একপর্যায়ে আসামি বাদীকে জানান, তিনি অনেক ভালোবেসে ফেলেছেন পরে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এমনকি বাদীকে আরও বড় নাট্যশিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার আশ্বাস দেন।

একই সঙ্গে বাদীকে নানা ধরনের কাজের কথা বলে বাসায় ডাকতেন। বাদী দীর্ঘদিন তার ডাকে সাড়া না দিলেও ২০১৮ সালের ২৬ আগস্ট আসলাম শিকদারের সঙ্গে প্রথমবারের মতো অফিসে যান। তখন অফিস থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করলে আসামি তাকে বাধা দেন।

বিবরণে বলা হয়, বাদী নাট্যশিল্পীকে এরপর ধর্ষণ করা হয়। বাদী শিকদারকে আইনের আশ্রয়ের কথা বললে তাকে বিয়ের আশ্বাস দেন। পরে আরও কয়েকবার তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়ান। বাদিনী তাকে বিয়ের কথা বললে, বিয়ে করবেন না বলে জানান এবং হত্যার হুমকি দেন। এ ঘটনায় ২০১৮ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর হাতিরঝিল থানায় আসলাম শিকদারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন ওই নাট্যশিল্পী।

গত বছরের ৬ ফেব্রুয়ারি আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে ট্রাইব্যুনাল। ১৩ সাক্ষীর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ১২ জন সাক্ষ্য দেন এ মামলায়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য