20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি চায় ত্রিপুরা

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশি হাইকমিশনার মহম্মদ ইমরান। ছবি: নিউজবাংলা

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি চায় ত্রিপুরা

ত্রিপুরা সফররত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মহম্মদ ইমরানের কাছে দুই দেশের সম্পর্ক উন্নত করার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেব ও রাজ্যপাল রমেশ বাইস।

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরও উন্নত করতে চায়। দ্রুত শেষ করতে চায় দুই দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ।

মঙ্গলবার ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মহম্মদ ইমরানের ত্রিপুরা সফরকালে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেব ও রাজ্যপাল রমেশ বাইস।

বন্ধুত্বের বার্তা নিয়ে সোমবার চার দিনের সফরে ত্রিপুরা পৌঁছান হাইকমিশনার। মঙ্গলবার তিনি রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। দিল্লিতে হাইকমিশনার হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার পর এটিই তার প্রথম ত্রিপুরা সফর।

ত্রিপুরার তিন দিকে বাংলাদেশ। রাজ্যটির ৮৪ শতাংশ সীমান্তই বাংলাদেশের সঙ্গে। ফলে ত্রিপুরার উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের গুরুত্ব অপরিসীম।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ত্রিপুরার বড় অবদান আছে। মুক্তিযোদ্ধারা অনেকেই ত্রিপুরায় প্রশিক্ষণ নেন।

হাইকমিশনার বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধে ত্রিপুরার অবদান ভোলেনি বাংলাদেশ। সীমান্তের দুই পারের উন্নয়নই আমাদের উভয়ের লক্ষ্য।’

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেব আখাউড়া-আগরতলা রেল সংযোগ, ফেনী নদীর ওপর নির্মাণাধীন মৈত্রী সেতুসহ একাধিক প্রকল্প দ্রুত শেষ করার ওপর গুরুত্ব দেন।

বুধবার মুহুরিচর, বিলোনিয়াসহ একাধিক সীমান্তবর্তী এলাকা পরিদর্শনের কর্মসূচি রয়েছে বাংলাদেশের হাই কমিশনারের।

শেয়ার করুন