20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
রাঙ্গামাটিতে গোলাগুলিতে দুইজন নিহত

রাঙ্গামাটিতে গোলাগুলিতে দুইজন নিহত

সেনা টহল দলের ওপর হামলা করে বন্দুকধারীরা। পাল্টা গুলিতে প্রাণ হারায় দুই জন। নিহতরা ইউপিডিএফ কর্মী বলে তথ্য মিললেও সংগঠনটি তা স্বীকার করেনি।

রাঙ্গামাটিতে সেনাবাহিনীর টহলের ওপর গুলি ছোঁড়ার পর পাল্টা গুলিতে দুইজন হামলাকারী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় একজন সেনাসদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জানিয়েছে ।

মঙ্গলবার বিকাল পাঁচটার দিকে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলার বুড়িঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর আইএসপিআর থেকে কিছু জানানো হয়নি।

এ সময় ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে একটি ২২ এসএমজি উদ্ধার করার তথ্য মিলেছে।

হামলাকারী নিহত দুই যুবক ইউনাইটেড পিপিলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ-প্রসিত গ্রুপ) এর সক্রিয়কর্মী ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে, যদিও ইউপিডিএফ তাদেরকে নিজেদের কর্মী বলে অস্বীকার করেছে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একজন কর্মকর্তা জানান, রাঙ্গামাটি জোনের একটি সেনা টহল দল রউফ টিলা এলাকায় ইউপিডিএফের (প্রসিত গ্রুপ) কর্মীদের গ্রেফতারে অভিযানে যায়। এ সময় একটি গ্রুপ সেনাবাহিনীর ওপর গুলি চালায়। সেনাবাহিনীর পাল্টা গুলি ছুঁড়লে ঘটনাস্থলে দুই যুবক মারা যান।

এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন শাহাবুদ্দিন নামে একজন সেনাসদস্য। তার বুকের বাম পাশে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। তাকে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম সিএমএইচে পাঠানো হয়েছে।

রাঙ্গামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর নিউজবাংলাকে বলেন, ‘লাশ উদ্ধারের জন্য নানিয়ারচর থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলের দিকে রওনা দিয়েছে। সেনা টহলের ওপর হামলার কথা শুনেছি মাত্র। বিস্তারিত এখনও পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। ’

নানিয়ারচর থানার ওসি সাব্বির হোসেন জানান, ‘ঘটনাটি শোনামাত্রই নানিয়ারচর থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলের দিকে রওনা দিয়েছে।

ঘটনায় সংগঠনটির কেউ জড়িত নয় বলে দাবি করেন ইউপিডিএফের অন্যতম মূখপাত্র অংগ্যা মারমা। তিনি বলেন, ‘পাহাড়ে কোনো ঘটনা ঘটলেই ইউপিডিএফকে জড়ানো একটি নাটকীয় বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। ঠিক তেমনি এই ঘটনায় জড়িতদের ইউপিডিএফের সদস্য বলা হচ্ছে।’

AK22
রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর থেকে উদ্ধার করা একে-২২ রাইফেল।

ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)। এক বিজ্ঞপ্তিতে আইএসপিআর জানিয়েছে, রাঙামাটির নানিয়ারচর সংলগ্ন বুড়িঘাট এলাকায় রাঙ্গামাটি সেনা জোনের একটি টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইউপিডিএফ (প্রসিত গ্রুপ) এর সশস্ত্র চাঁদাবাজদের গ্রেফতারের জন্য একটি অভিযান চালায়।

এ সময় ইউপিডিএফের চাঁদাবাজরা সেনা টহলের উপস্থিত বুঝতে পেরে পার্শ্ববর্তী একটি টিলার উপর থেকে সেনা টহলের উপর আচমকা গুলিবর্ষণ শুরু করে। সেনা টহলে থাকা সেনা সদস্যরা তখন পাল্টা গুলিবর্ষণ করে।

গোলাগুলির ঘটনায় ঘটনাস্থলে ইউপিডিএফের দুইজন সশস্ত্র চাঁদাবাজ নিহত হন। সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা টহলের সৈনিক শাহাবুদ্দিন বাম কাঁধে গুলিবিদ্ধ হন। সেনা সদস্যরা পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে গুলিসহ সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত একটি একে-২২ এসএমজি উদ্ধার করে।

আহত সেনা সদস্যকে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সিএমএইচে স্থানান্তর করা হয়েছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছে এবং এ ব্যাপারে আইনগত কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য