20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
হাতিরঝিলের হাত-পা বাঁধা লাশ চট্টগ্রামের মেহেদীর

নিহত আজিজুল ইসলাম মেহেদী

হাতিরঝিলের হাত-পা বাঁধা লাশ চট্টগ্রামের মেহেদীর

তার চাচাতো ভাই আশরাফ জানান, মেহেদী চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী। চাকরির ইন্টারভিউ দিতে ও পাসপোর্টের নাম সংশোধন করতে শনিবার রাতে তিনি রাজধানীতে আসেন।

রাজধানীর হাতিরঝিলের মেরুল বাড্ডা সংলগ্ন এলাকা থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার লাশের পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহতের নাম আজিজুল ইসলাম মেহেদী (২৪); গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সন্দীপে। তিনি থাকতেন চট্টগ্রাম শহরে।

মঙ্গলবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে এসে মেহেদীর মরদেহ শনাক্ত করেন স্বজনরা।

তার চাচাতো ভাই আশরাফ উজ জামান জানান, মেহেদী চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী। চাকরির ইন্টারভিউ দিতে ও পাসপোর্টের নাম সংশোধন করতে শনিবার রাতে তিনি রাজধানীতে আসেন। ওঠেন নিকুঞ্জতে বন্ধুর বাসায়। রোববার বাসা থেকে বের হওয়ার পর আর তার সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না।

পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মশাড়ি দিয়ে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তারা আঙ্গুলের ছাপের মাধ্যমে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র থেকে তার পরিচয় নিশ্চিত হন। পরে মেহেদীর বাড়িতে খবর দেয়া হয়। খবর পেয়ে ঢাকায় থাকা মেহেদীর চাচাতো ভাই আশরাফ হাসপাতালে গিয়ে তাকে শনাক্ত করেন।

আশরাফ বলেন, ‘মেহেদী কোন চাকরির ইন্টারভিউ দিতে এসেছিল- আমরা তা জানি না। তার সঙ্গে কারো শ্ত্রুতা ছিল কিনা- তাও আমাদের জানা নেই।‘

এ ঘটনায় হাতিরঝিল থানায় হত্যা মামলা করা হবে বলে জানান আশরাফ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার হাফিজ আল ফারুক বলেন, ‘আমরা এই হত্যায় কারা জড়িত তা খুঁজে বের করতে কাজ করছি। এখনও কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।‘

শেয়ার করুন

মন্তব্য