গান-কবিতা-পথনাটকে ধর্ষণ প্রতিরোধের আহ্বান

শাহবাগে ধর্ষণবিরোধি সমাবেশ

গান-কবিতা-পথনাটকে ধর্ষণ প্রতিরোধের আহ্বান

উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সাধারণ সম্পাদক জামশেদ আনোয়ার নিউজবাংলাকে বলেন, ‘ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনের মুখে সরকার দায়সারা পদক্ষেপ নিয়েছে। সাক্ষ্য আইন সংশোধনের দাবি তারা আমলে নিচ্ছে না।’

শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে অষ্টম দিনের মতো ধর্ষণ ও নিপীড়নবিরোধী কর্মসূচি পালন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থী ও বামপন্থী কয়েকটি ছাত্র সংগঠন।

‘চিৎকার করো মেয়ে দেখি কত দূর গলা যায়, আমাদের শুধু মোমবাতি হাতে নীরব থাকার দায়’ গান পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় শুরু হয় কর্মসূচি।

‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ প্লাটফর্মের ব্যনারে কর্মসূচিতে গণসঙ্গীত পরিবেশন করেন বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী ও চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সদস্যরা। ছিল একক পরিবেশনা ও পথনাটক।

উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সাধারণ সম্পাদক জামশেদ আনোয়ার নিউজবাংলাকে বলেন, ‘ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনের মুখে সরকার দায়সারা পদক্ষেপ নিয়েছে। সাক্ষ্য আইন সংশোধনের দাবি তারা তা আমলে নিচ্ছে না।‘

ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদি হাসান নোভেল নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমরা ৯টি দাবি করেছি। অথচ সংশ্লিষ্টরা সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করে ধর্ষণের বিরুদ্ধে আন্দোলনে ধোঁয়াশা তৈরি করতে চাচ্ছেন।’

গত শুক্রবার (৯ অক্টোবর) মহাসমাবেশ থেকে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা দেন ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়। এর মধ্যে ১১ অক্টোবর ছিল ধর্ষণবিরোধী আলোকচিত্র প্রদর্শনী, ১২ অক্টোবর প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ১৩ অক্টোবর চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, ১৪ অক্টোবর নারী সমাবেশ ও ১৫ অক্টোবর ঢাকায় সাইকেল র‌্যালি।

এদিকে, ধর্ষণ ও নিপীড়নের বিচারের দাবিতে রাজধানীর উত্তরা, ধানমন্ডি, মিরপুর-১০ গোলচত্বরে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

শেয়ার করুন

মন্তব্য