20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
বেগমগঞ্জ নারী নির্যাতন মামলা পিবিআইয়ে

বেগমগঞ্জ নারী নির্যাতন মামলা পিবিআইয়ে

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ভিডিও প্রকাশের দুটি মামলা তদন্ত পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন শুক্রবার নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, পুলিশ হেডকোয়ার্টারের নির্দেশে মামলা দুটি পিবিআইতে হস্তান্তর করা হয়েছে। এর আগে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ তদন্ত করেছিল।

পুলিশ সুপার জানান, নারী নির্যাতনের ঘটনায় এজহারভুক্ত এক আসামি ছাড়া সবাই গ্রেফতার হয়েছে। এছাড়া তদন্তে ঘটনায় জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় গ্রেফতার হয়েছেন আরও দুইজন।

এ নিয়ে তিন মামলায় মোট ১১ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

২ সেপ্টেম্বর বেগমগঞ্জে বাড়িতে ঢুকে এক নারীকে নির্যাতন করে ভিডিও ধারণ করা হয়। ৪ অক্টোবর সেই ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

মামলার আগেই আটক হয় একজন।

এরপর ভুক্তভোগী নারী নয় জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেন; একটি নির্যাতনের ঘটনায়, একটি পর্নোগ্রাফি আইনে। পরে ধর্ষণের অভিযোগে আরও একটি মামলা করেন তিনি।

প্রথম দুই মামলার আসামিরা হলেন- নুর হোসেন বাদল, মো. রহিম, আবুল কালাম, ইস্রাফিল হোসেন, সাজু মিয়া, সামছুদ্দিন সুমন, আবদুর রব, আরিফ ও রহমত উল্যা।

পরে দেলোয়ার ও আগের দুই মামলার আসামি আবুল কালামের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন ভুক্তভোগী নারী।

ইস্রাফিল ছাড়া সবাই এবং এজাহারের বাইরে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ ও মাঈন উদ্দিনকেও আটক করা হয়।

শেয়ার করুন