বেগমগঞ্জ নির্যাতনের ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার

নোয়াখালীতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলায় কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে গ্রেফতার আবুল কালাম।

বেগমগঞ্জ নির্যাতনের ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

তার নাম আবুল কালাম। এই ঘটনায় করা তিনটি মামলার মধ্যে দুটি মামলায় তার নাম আছে।

বুধবার কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে কালামকে গ্রেফতার কথা জানিয়েছেন র‌্যাব-১১ এর সহকারী পরিচালক জসিম উদ্দিন। তিনি জানান, গত ২ সেপ্টেম্বর নির্যতানের সময় ধারণ করা ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছিলেন এই আসামি। তাকে সহযোগিতা করেছেন আরও দুই জন।

র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক খন্দকার সাইফুল আলম নিউজবাংলাকে জানান, কালামকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থানায় পুলিশের হস্তান্তর করা হচ্ছে। ওই থানাতেই তার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।

সাইফুল আলম বলেন, ‘ওই গৃহবধূকে নির্যাতনের দিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন কালাম। তিনি দেলোয়ার বাহিনীর একজন সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছেন।’

ঘটনার ৩২ দিন পর গত রোববার এক মিনিট ৩৮ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হলে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত, ধর্ষণ-নির্যাতনের কঠোর শাস্তির দাবিতে শুরু হয় বিক্ষোভ।

এই ঘটনায় নির্যাতিতা নারী প্রথমে নারী নির্যাতন ও পর্নোগ্রাফি আইনে দুটি এবং পরে ধর্ষণের অভিযোগ এনে একটি মামলা করেন।

এর মধ্যে নারী নির্যাতনের মামলায় তিন নম্বর এবং ধর্ষণ মামলায় দুই নম্বর আসামি কালাম।

তিনটি মামলায় নাম উল্লেখ করা ১০ জন আসামির মধ্যে পুলিশ ও র‌্যাব এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সাত জনকে গ্রেফতার করেছে। আরও দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে যাদের নাম এজাহারে নেই। অজ্ঞাত আসামি হিসেবে তাদেরকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

শেয়ার করুন