20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ধর্ষণকারীর ফাঁসির পক্ষে প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা

ধর্ষণকারীর ফাঁসির পক্ষে প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা

‘আমি তো মনে করি ধর্ষণকারী যদি প্রমাণিত হয়, তবে অবশ্যই তার ফাঁসি হওয়া উচিত।’

ধর্ষণকারীর অবশ্যই ফাঁসি হওয়া উচিত বলেন মনে করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

বুধবার সচিবালয়ের নিজ দফতরে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি তো মনে করি ধর্ষণকারী যদি প্রমাণিত হয়, তবে অবশ্যই তার ফাঁসি হওয়া উচিত।’

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে গত কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভ চলছে সারাদেশে। তারা ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানিয়ে আসছেন।

ক্ষমতাসীন দল সমর্থক ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগও একই দাবি জানিয়েছে।

আইন অনুযায়ী, বাংলাদেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং এতে মৃত্যু হলে সাজা প্রাণদণ্ড। দলগত ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজাও মৃত্যুদণ্ড।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ধর্ষণের প্রতিবাদে যারা রাস্তায় নেমেছে, তাদের স্বাগত জানাই। কিন্তু এই আন্দোলনের পেছনে যেন অন্য কোনো উদ্দেশ্য না থাকে।

ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, ধর্ষকের কোনো সামাজিক, রাজনৈতিক ও পারিবারিক পরিচয় নেই। ধর্ষক নিশ্চয়ই কোনো না কোনো মায়ের সন্তান। আমি সেই মাকে আহ্বান জানাব, আপনি ধর্ষক ছেলেকে বর্জন করুন। সমাজের প্রতি আহ্বান জানাব, যেন সব ধর্ষণকারীকে প্রত্যাখ্যান করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, যখনই কোনো নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে সংশ্লিষ্ট জেলার ডিসি, এসপি ও ওসিকে ফোন করে আসামিদের গ্রেপ্তার নিশ্চিত করা হয়। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা নির্যাতনের শিকার নারীর বাড়িতে গিয়ে আইনগত সহায়তাসহ সব ধরনের সহযোগিতা করেন।

বলেছেন, অভিযোগ প্রমাণিত হলে ধর্ষণকারীর অবশ্যই ফাঁসি হওয়া উচিত।

শেয়ার করুন