সুদের টাকা ‘না পেয়ে’ কলেজ শিক্ষকের বাড়ি ভাঙচুর

সুদের টাকা ‘না পেয়ে’ কলেজ শিক্ষকের বাড়ি ভাঙচুর

শেরপুরের নকলা উপজেলায় এক শিক্ষকের বাড়িতে ভাঙচুর করা হয়েছে। সুদের টাকা না পেয়ে উপজেলার হালগড়া গ্রামের সুদ ব্যবসায়ী সুজন এই হামলা চালান বলে অভিযোগ করেছেন ওই শিক্ষক।

নকলার চন্দ্রকোনা কলেজের আইসিটি বিভাগের শিক্ষক মাহদী মাসুদ লিটন। তিনি জানান, পাঁচ বছর আগে সুজনের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ নেন। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে টাকা শোধ করতে না পারায় তা সুদে-আসলে ৫ লাখ টাকায় দাঁড়ায় বলে দাবি করেন সুজন।

লিটনের অভিযোগ, সুদের অতিরিক্ত টাকা না পেয়ে সোমবার বিকেলে ভাড়াটে বাহিনী নিয়ে তার বাড়িতে হামলা চালান সুজন। ওই সময় আসবাবপত্র ভাঙচুর করে টাকা, স্বর্ণালংকারসহ পাঁচ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করেন সুজন ও তার লোকজন। তারা গুঁড়িয়ে দেন হয় লিটনের আধা পাকা বাড়ি।

লিটন বলেন, এই সুদ ব্যবসায়ীর পাল্লায় পড়ে সর্বস্বান্ত হয়ে গেছি। এখন আমার কিছুই নেই। সাদা চেক নিয়ে চাকরির ভয় দেখিয়ে আমার সবকিছু হাতিয়ে নিয়েছে।

লিটনের মা জোবেদা বেগম বলেন, এতগুলো মানুষ এসে তাদের বাড়িতে ভাঙচুর, লুটপাট চালালেও বাধা দিতে কেউ এগিয়ে আসেনি।

স্থানীয় কয়েকজন এ হামলার ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বিচার দাবি করেছেন।

শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমিনুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে ২০ জনের নাম উল্লেখ করে ৩২ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা নেয়া হয়েছে। এরই মধ্যে সাত জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন