20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
দেলোয়ারের খামার থেকে ককটেল, গুলি উদ্ধার

গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার দেলোয়ার (ডান থেকে দ্বিতীয়)।

দেলোয়ারের খামার থেকে ককটেল, গুলি উদ্ধার

বেগমগঞ্জ নির্যাতনে আসামিদের সবাই দেলোয়ার বাহিনীর লোক বলে জানিয়েছে র‌্যাব

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার দেলোয়ার হোসেনের মাছের খামার থেকে সাতটি তাজা ককটেল ও দুটি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার রাত নয়টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১১ এর সরকারি পরিচালক জসিম উদ্দিন।

রোববার রাত আড়াইটার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোড এলাকা থেকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয় দেলোয়ারকে। তার বাহিনীই বেগমগঞ্জ নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত বলে জানিয়েছে র‌্যাব। তবে মামলায় তাকে আসামি করা হয়নি।

আটকের সময় দেলোয়ারের কাছ থেকে একটি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন ও দুটি গুলি উদ্ধারের কথা জানায় র‌্যাব।

র‌্যাব কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন নিউজবাংলাকে জানান, দেলোয়ারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তার ও বাহিনীর অপকর্মের অনেক তথ্য পেয়েছেন তারা। পরে সন্ধ্যায় বেগমগঞ্জে দেলোয়ারের বাড়িতে অভিযান করে চালানো হয়।

এর আগে বিকালে নারায়ণগঞ্জে করা সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল খন্দকার সাইফুল আলম জানান, দেলোয়ারের বিরুদ্ধে এলাকায় চাঁদাবাজি, অস্ত্রবাজি, মাদক কারবারসহ নানা অপরাধের অভিযোগ আছে। আগে থেকে তার বিরুদ্ধে দুটি হত্যা এবং দুটি চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে।

গৃহবধূকে ঘরে ঢুকে ঘরে নির্যাতনের ঘটনায় দেলোয়ারের বাহিনী জড়িত জানিয়ে র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, ‘আসামিরা সকলেই দেলোয়ার হোসেনের লোক। তারা একত্রে চলাফেলা করে; নানা অপর্কম করে।’

‘দেলোয়ার এলাকায় অস্ত্রধারী চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তাদের ভয়ে এলাকার লোকজন ভীত সন্ত্রস্ত্র। দেলোয়ারের বিরুদ্ধে দুইটি চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে’- বলেন খন্দকার সাইফুল আলম।

শেয়ার করুন