20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
স্কুলছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’ ও ভিডিও ধারণ

স্কুলছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’ ও ভিডিও ধারণ

স্বজনরা জানান, বিষয়টি ধামাচাপা দিতে একটি মহল উঠেপড়ে লাগে। তারা মীমাংসা করার উদ্যোগ নেয়।

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় নবম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের বিরুদ্ধে। তার এক সহযোগী ধর্ষণের দৃশ্য ধারণ করেছেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এসব অভিযোগ এনে সোমবার দুপুরে ওই স্কুলছাত্রীর বাবা কোটালীপাড়া থানায় মামলা করেছেন।

এজাহারে বলা হয়েছে, শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টায় প্রাইভেট পড়ে স্থানীয় একটি বাজারে খাতা ও কলম কিনতে যায় মেয়েটি।

এ সময় একই উপজেলার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আলী হোসাইন হাওলাদার ও মাসুদ হাওলাদার তাকে ভয় দেখিয়ে বিলের মধ্যে নির্জন ঘেরপাড়ে নিয়ে যায়।

পরে একটি টং ঘরে আলী হোসাইন স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এ সময় তার বন্ধু মাসুদ হাওলাদার মোবাইল ফোনে এ দৃশ্য ধারণ করে। ধর্ষণের কথা কাউকে বললে এই দৃশ্য ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ার হুমকিও দেয় তারা।

স্বজনরা জানান, বিষয়টি ধামাচাপা দিতে একটি মহল উঠে পড়ে লাগে। তারা মীমাংসা করার উদ্যোগ নেন। কিন্তু ওই স্কুলছাত্রীর পরিবার রাজি না হওয়ায় সব ভেস্তে যায়।

কোটালীপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাকারিয়া বলেন, দোষীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ওই স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে।

শেয়ার করুন