20201002104319.jpg
গির্জায় ধর্ষণের অভিযোগ, ফাদার গ্রেফতার

আটক ফাদার প্রদীপ গ্রেগরি

গির্জায় ধর্ষণের অভিযোগ, ফাদার গ্রেফতার

রাজশাহীতে গির্জায় কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে এক যাজককে। 

মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে রাজশাহীর বিশপ হাউজ থেকে আটক করা হয় ফাদার প্রদীপ গ্রেগরিকে। পরে তাকে তানোর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

প্রদীপ তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা মাহালীপাড়া সাধুজন মেরি গির্জার ফাদার।

র‍্যাব জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার সাধু জন মেরি ভিয়ান্নি গির্জা থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশ। রাতেই তানোর থানায় মামলা হয় প্রদীপের বিরুদ্ধে।

নির্যাতিতার একজন স্বজন জানান, গত শনিবার সকালে গির্জার পাশে মাঠে ঘাস কাটতে গিয়ে নিখোঁজ হয় কিশোরীটি। রোববার এ বিষয়ে সাধারণ ডায়েরি হয় তানোর থানায়। পরদিন (সোমবার) ফাদার প্রদীপের ভবনের ছাদে ওই কিশোরীকে দেখতে পায় স্থানীয়রা।

ঘটনাটি রাজশাহীর জেলা ধর্ম প্রদেশের ইনচার্জকে জানালে তিনি তিনজন প্রতিনিধি পাঠান গির্জায়। তারা সোমবার সেখানে সালিশ বৈঠক করে।

ওই কিশোরীর স্বজন জানান, ওই বৈঠকে তাদেরকে ভয় ভীতি ও প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ ডায়েরি প্রত্যাহার করতে চাপ দেয়া হয়। কিশোরীর লেখাপড়া ও ভরণ-পোষণসহ বিয়ের আগ পর্যন্ত যাবতীয় খরচ বহন করার আশ্বাসও দেয়া হয়। তবে তারা রাজি হননি।

ওই কিশোরীর অবস্থানের বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গির্জায় যায়। কিন্তু সেখান থেকে আগেই চলে যান ফাদার প্রদীপ। আশ্রয় নেন রাজশাহী নগরীর ওমরপুর, আমচত্তর এলাকার বিশপ হাউজে।

র‌্যাব-৫ এর রাজশাহীর কোম্পানি কমান্ডার এটিএম মাইনুল ইসলাম জানান, তাদের মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি দল মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে বিশপ হাউজে গিয়ে প্রদীপকে গ্রেফতার করে।

প্রদীপের বাড়ি নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার ভবানীপুর এলাকায়।

শেয়ার করুন