বামন গ্রহ প্লুটো

বামন গ্রহ প্লুটো

প্লুটো এবং তার চাঁদ ক্যারন।

২০০৬ সালে এসে বিজ্ঞানীরা প্লুটোকে গ্রহের তালিকা থেকে বাদ দেন। এখন সেটা বামন গ্রহ। মানে ছোট গ্রহ।

আমেরিকান বিজ্ঞানী ক্লাইড টমবো ১৯৩০ সালে একটি গ্রহ আবিষ্কার করেন।

ছোট্ট আর কিউট এই গ্রহটির নাম রাখা হয় প্লুটো।

কিন্তু কয়েক বছর পরেই বেঁধে যায় গণ্ডগোল।

সৌরজগতের বিভিন্ন গ্রহে প্লুটোর চেয়ে বড় উপগ্রহ বা চাঁদ আবিষ্কার হতে থাকে।

গ্রহের চেয়ে চাঁদ বড়-ব্যাপারটা কেমন হয়ে যায় না!

তাই ২০০৬ সালে এসে বিজ্ঞানীরা প্লুটোকে গ্রহের তালিকা থেকে বাদ দেন।

এখন সেটা বামন গ্রহ। মানে ছোট গ্রহ।

চলো, এই গ্রহ সম্পর্কে আরও কিছু তথ্য জেনে নিই।

১. প্লুটো আকারে প্রায় আমাদের চাঁদের সমান।

২. সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে পৃথিবীর লাগে এক বছর। কিন্তু প্লুটোর লাগে ২৪৮ বছর।

৩. সূর্য থেকে প্লুটোতে আলো পৌঁছাতে সময় লাগে পাঁচ ঘণ্টা। পৃথিবীতে আলো আসতে লাগে মাত্র আট মিনিট।

৪. পৃথিবীর চাঁদ একটা। কিন্তু প্লুটোর চাঁদ পাঁচটা।

৫. পৃথিবীতে তোমার ওজন যদি হয় ৩০ কেজি, তবে প্লুটোতে ওজন হবে দুই কেজি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য