20201002104319.jpg
চলো হাসি হোজ্জার সঙ্গে

চলো হাসি হোজ্জার সঙ্গে

হোজ্জা নাসিরুদ্দিন বা নাসিরুদ্দিন হোজ্জা হাসির রাজা। চলো, এই হাসির রাজার সঙ্গে একটু হাসাহাসি করি...

কুর্তার ভেতর আমিও ছিলাম

গভীর রাতে হোজ্জার বাসা থেকে কিছু পড়ার শব্দ শুনলেন এক প্রতিবেশী।পরদিন তাদের দেখা হলে প্রতিবেশী লোকটা হোজ্জাকে বললেন, 'ভাই, গত রাতে আপনার বাসা থেকে ভারী কিছু পড়ার শব্দ পেলাম। কি পড়লো বলুন তো?'হোজ্জা বললেন, 'আর বলবেন না ভাই, আজকাল আমার স্ত্রী শুধুই রাগ করে।

কাল রাতেও সে রাগ করে আমার কুর্তাটা উপর থেকে নিচে ফেলে দেয়।'প্রতিবেশী অবাক হয়ে বললেন, 'আরে ভাই, কুর্তা ফেললে কী এতো শব্দ হয়?'

হোজ্জা এদিক-সেদিক তাকিয়ে কাউকে না দেখে বললেন, 'ভাই, কুর্তার ভেতর আমিও ছিলাম!'

 

এবার দ্বিতীয় প্রশ্ন বলুন

বাজারে ঘর ভাড়া নিয়ে হোজ্জা তার গায়ে একটা নোটিশ টাঙিয়ে দিলেন।তাতে লেখা- 'যে কোনো বিষয়ে দুটি প্রশ্নের জবাবের বিনিময়ে পাঁচ টাকা।'একজন হাটুরে সবার আগে দৌড়ে হোজ্জার ঘরে ঢুকে হাঁপাতে হাঁপাতে তার হাতে পাঁচ টাকা দিয়ে বললেন, 'দুটো প্রশ্নের জন্য পাঁচ টাকা, একটু বেশি নয় কী?'

'হ্যাঁ, তা ঠিকই বলেছেন। এবার আপনার দ্বিতীয় প্রশ্নটি বলুন?'

 

লবণ আর তুলো

হোজ্জা নতুন করে লবণের ব্যবসা শুরু করলেন। তো একদিন সে গাধার পিঠে লবণের বস্তা তুলে বাজারের পথ ধরলেন।

গাধাসহ পথে নদী পার হলেন। ওমা, পাড়ে ওঠে দেখেন নদীর পানিতে ধুয়ে লবণের বস্তা পুরো ফাঁকা!

মহা বিরক্ত হলেন হোজ্জা। অন্যদিকে পিঠের ভার কমে যওয়ায় খুব খুশি তার গাধা।

ক'দিন পরে গাধার পিঠে বস্তাসহ হোজ্জা ফের সেই নদী পার হলেন। তবে এবার বস্তায় লবণ নেননি তিনি, নিলেন তুলা।

নদী পার হয়ে গাধার পা টলমল শুরু করে দিলো। হোজ্জা গাধার কানে কানে বললেন, 'কী, ভেবেছিলে এবারও পানি দিয়ে গেলে বস্তার সব ধুয়ে ওজন কমে যাবে, না?'

 

kid

 

ঘুমের খোঁজে...

মধ্যরাতে একা হেঁটে যাচ্ছিলেন হোজ্জা। গার্ড তাকে দেখে কাছে গেলেন। তারপর জিজ্ঞেস করলেন, 'এতো রাতে রাস্তায় একাকি কী করছেন হোজ্জা সাহেব?'

হোজ্জা মাথা চুলকাতে চুলকাতে বলেন, 'আমার ঘুম হারিয়ে গেছে। তাকে খুঁজতে বের হয়েছি ভাই!'

 

যমজ ভাই

হোজ্জাদের গ্রামে থাকে দুই যমজ ভাই। হোজ্জা একদিন শুনলেন, যমজ ভাইদের একজন মারা গেছে। প্রতিবেশী সেই পরিবারকে সমবেদনা জানাতে বের হলেন তিনি।

একটু এগিয়ে যেতেই সেই যমজ ভাইদের এক ভাইকে দেখে হোজ্জা দৌড়ে তার কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করলেন, 'তোমাদের মধ্যে কোনজন মারা গেছে; তুমি না তোমার ভাই?'

 

আপনার ওষুধ আপনিই খান

হোজ্জার স্মৃতিশক্তি কমে যাচ্ছে। এটা বুঝতে পেরে তিনি গেলেন হেকিমের কাছে। হেকিম স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর ওষুধ দিলেন হোজ্জাকে।

কয়েক মাস ঠিকঠাক থাকার পর ফের ওষুধ আনতে গেলেন হেকিমের কাছে। হেকিম তাকে দেখে বললেন, 'গতবার আপনাকে কী ওষুধ দিয়েছিলাম, সেটা একেবারেই মনে করতে পারছি না।'

'মনে করতে না পারলে আপনার ওষুধ আপনি নিজেই খান।' এই বলে হোজ্জা বাড়ির দিকে হাঁটা ধরলেন।

শেয়ার করুন