20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
রাগী পাখি ঈগল

পানি থেকে নখ দিয়ে ছোঁ মেরে খাবার তুলে আনছে...

রাগী পাখি ঈগল

রাগী পাখি ঈগল। ছোঁ মেরে নিয়ে যায় কতো কিছু! এ পাখি তোমরা অনেকেই দেখেছো সামনাসামনি। অনেকে দেখেছো বইয়ে বা টিভিতে। ঈগল পাখি সম্পর্কে মজার কিছু তথ্য জেনে নিই চলো...

দুনিয়ায় যত শিকারি পাখি আছে, ঈগল তাদের অন্যতম। এটি আকারে অনেক বড়। ডানা ছড়ানো অবস্থায় ৭ ফুট ২ ইঞ্চি থেকে ৮ ফুট পর্যন্ত হয়।

সব ঈগল কিন্তু দেখতে এক রকম নয়। প্রায় ৬০ প্রজাতির ঈগল রয়েছে এশিয়া, আফ্রিকা ও ইউরোপ মহাদেশে। অন্য মহাদেশগুলোতে আছে আরও প্রায় ১৪ প্রজাতির ঈগল।

kid
সোনালি রঙের ঈগল

এক ধরনের ঈগল পাখির সিংহের মতো কেশর। ইংরেজিতে এদের ব্যাল্ড ঈগল বলা হয়। শুধু তাই নয়, এটি আবার যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় পাখি।

ঈগলের রয়েছে ইয়া বড় বাঁকানো ঠোঁট, ঠিক বড়শির মতো। তাই ওরা ছোঁ মারলে, কিছু না-কিছু আটকে যায় ঠোঁটে।

জগতে যত পাখির দৃষ্টিশক্তি খুবই প্রখর, ঈগল তাদের অন্যতম। ওরা খুব উঁচু থেকেই ঠিকঠাক খুঁজে নিতে পারে নিজের শিকার।

ওদের নখ তোমার আমার নখ থেকে অনেক বাঁকানো। আর ভীষণ ধারালো। ফলে ওরা যে কোনোকিছুকে নখের মধ্যে আটকে নিতে পারে। তাছাড়া ওদের থাবায় থাকে অনেক জোর।

golden-eaglenewsbanglakid-0

চোখ দেখে বুঝে নাও কেমন তার রাগ

ঈগলেরও ঘরবাড়ি আছে। তবে ওরা ঘর বানায় সাধারণত অনেক উঁচু গাছের মগডালে, নয়তো দুর্গম কোনো পর্বতের চূড়ায়।

অনেক উঁচুতে থাকা ঘরে বসে ওরা দোল খায়, ভাবতেই মজা লাগছে, তাই না?

গোল্ডেন ঈগল বা সোনালি রঙের ঈগল খুবই দাপুটে হয়। ওরা অনেক বেশি সাহসী হয়। তাছাড়া ঈগল ভয়ানক খাদকও।

ওরা কী খায়? আস্ত শিয়াল, বুনো বিড়াল, এমনকি হরিণ ও ছাগলছানা সাবাড় করে দেয়।

কেশরওয়ালা ঈগলেরা সাধারণত ২০ বছরের মতো আয়ু পায়। তবে সবচেয়ে বয়স্ক ঈগলের বয়স ছিল ৩৮ বছর।

বুঝলে তো, ওরা সাধারণ কোনো পাখি নয়!

শেয়ার করুন