× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Children on the brink of starvation on the rise in Gaza WHO
google_news print-icon

ক্ষুধায় মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে থাকা শিশু বাড়ছে গাজায়: ডব্লিউএইচও

ক্ষুধায়-মৃত্যুর-দ্বারপ্রান্তে-থাকা-শিশু-বাড়ছে-গাজায়-ডব্লিউএইচও
গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ এলাকায় গত ৯ ফেব্রুয়ারি স্বেচ্ছাসেবীদের প্রস্তুতকৃত খাবার নিতে লাইনে অপেক্ষায় শিশুরা। ছবি: আনাদোলু
ডব্লিউএইচওর কর্মকর্তা মার্গারেট বলেন, গাজায় অবস্থানরত মেডিক্যাল টিমগুলোও স্বীকার করছে যে, মারাত্মক কম ওজনের অন্তঃসত্ত্বা নারীর সংখ্যা বাড়ছে।

ফিলিস্তিনের গাজায় প্রায় সাড়ে পাঁচ মাস ধরে চলা যুদ্ধের মধ্যে তীব্র ক্ষুধার কারণে মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে থাকা শিশুর সংখ্যা ক্রমবর্ধমান বলে মন্তব্য করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

সংস্থাটির মুখপাত্র ডা. মার্গারেট হ্যারিস এ মন্তব্য করেন বলে বুধবার জানিয়েছে আল জাজিরা।

মার্গারেটকে উদ্ধৃত করে সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘চিকিৎসক ও হাসপাতালের কর্মীরা আমাদের যা বলছেন, তা হলো তারা একের পর এক অনাহারের ফল দেখছেন। তারা দেখছেন, নিছক জন্মগত অতি কম ওজনের কারণে নবজাতকরা মারা যাচ্ছে।’

মার্গারেট আরও বলেন, ‘ক্রমবর্ধমানভাবে আমরা মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তের অবস্থানে দেখছি শিশুদের, যাদের ফের পুষ্টিকর খাবার দেয়া দরকার।’

ডব্লিউএইচওর এ কর্মকর্তা বলেন, গাজায় অবস্থানরত মেডিক্যাল টিমগুলোও স্বীকার করছে যে, মারাত্মক কম ওজনের অন্তঃসত্ত্বা নারীর সংখ্যা বাড়ছে।

তিনি আরও বলেন, গাজায় ক্ষুধার সংকট পুরোপুরিভাবে যুদ্ধের ফল এবং এটি সম্পূর্ণ মনুষ্যসৃষ্ট।

আরও পড়ুন:
যুদ্ধবিরতির আশার মধ্যে রাফাহতে হামলা পরিকল্পনায় অনুমোদন ইসরায়েলের
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত খাদ্যের জন্য অপেক্ষমাণ ২৯ জন
গাজায় খাদ্যের জন্য অপেক্ষমাণদের ওপর ইসরায়েলের গুলি, নিহত ৬
রমজানেও গাজায় হামলা চালানোয় আতঙ্কিত জাতিসংঘ প্রধান
‘গাজার সর্বত্র ক্ষুধা’, ইসরায়েলি হামলায় নিহত ছাড়াল ৩১ হাজার

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Former General Gantz threatens to leave Netanyahus cabinet

নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভা ছাড়ার হুমকি সাবেক জেনারেল গানৎজের

নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভা ছাড়ার হুমকি সাবেক জেনারেল গানৎজের ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য বেনি গানৎজ। ছবি: রয়টার্স
সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী গানৎজ জানান, দাবি পূরণ না হলে গাজায় যুদ্ধের বিষয়টি তদারকির জন্য গত বছর হওয়া জরুরি ঐক্যের সরকার থেকে বেরিয়ে আসবে তার দল।

ফিলিস্তিনের গাজার জন্য যুদ্ধ পরবর্তী পরিকল্পনা পেশ করতে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে আগামী ৮ জুন পর্যন্ত সময় দিয়েছেন দেশটির যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য বেনি গানৎজ।

ওই সময়ের মধ্যে নেতানিয়াহু পরিকল্পনা উপস্থাপনে ব্যর্থ হলে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক এ জেনারেল।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়, স্থানীয় সময় শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে গানৎজ এ হুমকি দেন।

তিনি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভাকে ছয় দফা পরিকল্পনায় সম্মত হওয়ার আহ্বান জানান। ওই ছয় দফায় গাজায় যুদ্ধ শেষে উপত্যকার শাসনের সম্ভাব্য পরিকল্পনা রয়েছে।

সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী গানৎজ জানান, দাবি পূরণ না হলে গাজায় যুদ্ধের বিষয়টি তদারকির জন্য গত বছর হওয়া জরুরি ঐক্যের সরকার থেকে বেরিয়ে আসবে তার দল।

ইসরায়েলে নেতানিয়াহুর প্রধান রাজনৈতিক বিরোধী হিসেবে মনে করা হয় গানৎজকে। যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভায় যোগ দেয়ার আগে বিরোধী দলগুলোর শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তি ছিলেন তিনি।

গানৎজের এ আলটিমেটাম ইসরায়েল সরকারে ফাটল আরও বাড়িয়েছে। একই সঙ্গে এটি গাজায় নেতানিয়াহুর নীতির বিরুদ্ধে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক অব্যাহত চাপে রসদ জুগিয়েছে।

আরও পড়ুন:
নিজেদের হামলায় ৫ ইসরায়েলি সেনা নিহত
অবস্থান পাল্টাল বাইডেন প্রশাসন, যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্রেই গাজায় হামলা চালাবে ইসরায়েল
রাফায় হামলা চালিয়ে হামাসকে নির্মূল করা যাবে না: ব্লিংকেন
গাজায় বোলতার কামড়ে হাসপাতালে ইসরায়েলের ১২ সেনা
বাইডেন ইসরায়েলে সব সহায়তা বন্ধ করতে চান: ট্রাম্প

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
US seeks Hamas chief Sinwar in Gaza

গাজায় হামাসপ্রধান সিনওয়ারের খোঁজে যুক্তরাষ্ট্র

গাজায় হামাসপ্রধান সিনওয়ারের খোঁজে যুক্তরাষ্ট্র গাজা সিটিতে ২০২২ সালের ১৪ ডিসেম্বর মুখোশ পরা এক যোদ্ধার সঙ্গে করমর্দন করেন হামাসের গাজা উপত্যকার প্রধান ইয়াহইয়া সিনওয়ার। ছবি: মোহাম্মেদ আবেদ/এএফপি
যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তা মিডল ইস্ট আইকে বলেন, হামাসের গাজা উপত্যকার প্রধান সিনওয়ার পালিয়ে প্রথমে মিসরের সিনাই উপদ্বীপ এবং পরবর্তী সময়ে লেবানন কিংবা সিরিয়ায় গেছেন কি না, সে সম্ভাবনাও খতিয়ে দেখছে যুক্তরাষ্ট্র।  

ফিলিস্তিনের গাজায় চলমান যুদ্ধে ইসরায়েলের ‘সম্পূর্ণ বিজয়’ অর্জনে সহায়তার অংশ হিসেবে উপত্যকায় হামাসের প্রধান ইয়াহইয়া সিনওয়ারের অবস্থান শনাক্তের ওপর যুক্তরাষ্ট্র মূল দৃষ্টি রেখেছে বলে জানিয়েছে মিডল ইস্ট আই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায় মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটি।

যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ও সাবেক এসব কর্মকর্তা মিডল ইস্ট আইকে জানান, ৬১ বছর বয়সী সিনওয়ার গাজার গভীরে টানেলগুলোতে লুকিয়ে আছেন বলে ধারণা করছে যুক্তরাষ্ট্র। এর ভিত্তিতে দেশটি এ অঞ্চলে তল্লাশি জোরদার করেছে।

দেশটির এক কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমটিকে বলেন, হামাসের গাজা উপত্যকার প্রধান সিনওয়ার পালিয়ে প্রথমে মিসরের সিনাই উপদ্বীপ এবং পরবর্তী সময়ে লেবানন কিংবা সিরিয়ায় গেছেন কি না, সে সম্ভাবনাও খতিয়ে দেখছে যুক্তরাষ্ট্র।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভানের বক্তব্য জানতে চায় মিডল ইস্ট আই, তবে সিনওয়ার সংক্রান্ত গোয়েন্দা তথ্যের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করবেন না বলে জানান তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ও সাবেক কর্মকর্তারা সুনির্দিষ্ট কোনো গোপন তথ্যের কথা জানাননি। তাদের ভাষ্য, একটি বিষয়কে ঘিরে বির্তক এগোচ্ছে। আর তা হলো সিনওয়ারের সর্বশেষ অবস্থা নিয়ে তথ্যের ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে যুক্তরাষ্ট্র।

ওই কর্মকর্তাদের মতে, সিনওয়ারের সর্বশেষ অবস্থান শনাক্তে মোটাদাগে এক মাসের মতো পিছিয়ে আছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির কাছে থাকা তথ্য অনুযায়ী, গাজায় ছিলেন হামাসের শীর্ষস্থানীয় এ নেতা।

আরও পড়ুন:
ইসরায়েলের সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধে প্রস্তুত হামাস: মুখপাত্র
হামাসের সুড়ঙ্গ থেকে ৩ জিম্মির মরদেহ উদ্ধারের দাবি ইসরায়েলের
গাজা নিয়ে ইসরায়েলের মন্ত্রিসভার বিরোধ প্রকাশ্যে
‘যুক্তরাষ্ট্র নির্মিত ঘাট দিয়ে গাজায় ত্রাণ ঢুকছে’
নিজেদের হামলায় ৫ ইসরায়েলি সেনা নিহত

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Hamas ready for long war with Israel spokesman

ইসরায়েলের সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধে প্রস্তুত হামাস: মুখপাত্র

ইসরায়েলের সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধে প্রস্তুত হামাস: মুখপাত্র ফিলিস্তিনের গাজার রাফাহতে ২০১৭ সালের ৩১ জানুয়ারি সাংবাদিকদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন হামাসের সামরিক শাখা আল-কাসাম ব্রিগেডসের মুখপাত্র আবু ওবেইদা। ছবি: আলি জাদাল্লাহ/আনাদোলু এজেন্সি
‘আমাদের জনগণের ওপর আগ্রাসন বন্ধে আমাদের (হামাস) পূর্ণ অঙ্গীকার সত্ত্বেও আমরা শত্রুর সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত’, বলেন আবু ওবেইদা।

ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতির কথা শুক্রবার জানিয়েছে হামাস।

ফিলিস্তিনের গাজার শাসক দলটির সামরিক শাখা আল-কাসাম ব্রিগেডসের মুখপাত্র আবু ওবেইদা এক ভিডিওবার্তায় এ কথা জানান বলে তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলুর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

‘আমাদের জনগণের ওপর আগ্রাসন বন্ধে আমাদের (হামাস) পূর্ণ অঙ্গীকার সত্ত্বেও আমরা শত্রুর সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত’, বলেন আবু ওবেইদা।

তিনি জানান, আল-কাসাম ব্রিগেডসের যোদ্ধারা গত ১০ দিনে গাজা উপত্যকাজুড়ে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর ১০০ সামরিক যানকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে।

তার অভিযোগ, ইসরায়েলের সেনাবাহিনী তাদের সব ক্ষতির কথা ঘোষণা করে না।

‘আল-কাসাম ব্রিগেডস যোদ্ধারা রাফাহ শহরের পূর্বাঞ্চলে শত্রুদের ওপর মারাত্মক আঘাত হেনেছে’, বলেন আবু ওবেইদা।

গত সপ্তাহে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী মিসর সীমান্তবর্তী গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফাহতে হামলা করে, যেখানে আশ্রয় নেন বাস্তুচ্যুত ১৫ লাখের বেশি ফিলিস্তিনি।

রাফাহতে হামলার পাশাপাশি সীমান্তের ফিলিস্তিন অংশের নিয়ন্ত্রণও নেয় ইসরায়েল।

গত বছরের ৭ অক্টোবর দক্ষিণ ইসরায়েলে হামাসের প্রাণঘাতী হামলার জবাবে গাজায় পাশবিক আক্রমণ শুরু করে ইসরায়েল।

হামাসের হামলায় নিহত হয় প্রায় এক হাজার ১৩৯ ইসরায়েলি। অন্যদিকে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয় ৩৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি।

আরও পড়ুন:
রাফায় হামলা চালিয়ে হামাসকে নির্মূল করা যাবে না: ব্লিংকেন
গাজায় বোলতার কামড়ে হাসপাতালে ইসরায়েলের ১২ সেনা
বাইডেন ইসরায়েলে সব সহায়তা বন্ধ করতে চান: ট্রাম্প
ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য করতে জাতিসংঘে বিপুল ভোটে প্রস্তাব পাস
আমেরিকান অস্ত্র দিয়ে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে থাকতে পারে ইসরায়েল

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Israel claims to have recovered the bodies of 3 hostages from the Hamas tunnel

হামাসের সুড়ঙ্গ থেকে ৩ জিম্মির মরদেহ উদ্ধারের দাবি ইসরায়েলের

হামাসের সুড়ঙ্গ থেকে ৩ জিম্মির মরদেহ উদ্ধারের দাবি ইসরায়েলের গাজায় তিন জিম্মির মরদেহ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে ইসরায়েল। ছবি: বিবিসি
আইডিএফ জানায়, গত বছরের ৭ অক্টোবর হামাসের হামলার সময় দক্ষিণ ইসরায়েলে গাজার সীমানার কাছে নোভা মিউজিক ফেস্টিভাল চলছিল। হামাসের হামলায় ওই উৎসবে উদ্ধার করা তিনজনসহ ৩৫০ জন প্রাণ হারান।

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় হামাসের একটি সুড়ঙ্গে থেকে তিন জিম্মির মরদেহ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)।

আইডিএফের বরাত দিয়ে শনিবার বিবিসি জানায়, গত বছর ৭ অক্টোবরের হামাসের হামলায় তাদের হত্যা করা হয়েছে। এরপর তাদের দেহাবশেষ গাজায় ফিরিয়ে নেয়া হয়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, হামাসের একটি সুড়ঙ্গে মরদেহগুলো পাওয়া গেছে।

প্রাণ হারানো তিনজন হলেন শানি লোউক (২২), অমিত বুসকিলা (২৮) এবং ইজহাক গেলেরেন্তার (৫৬)।

এ ঘটনায় ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘আমরা আমাদের সকল জিম্মি, জীবিত ও মৃত সবাইকে ফিরিয়ে আনব।’

রাতভর অভিযান চালিয়ে মৃতদেহগুলো উদ্ধার করা হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে আইডিএফ।

বাহিনী জানায়, গত বছরের ৭ অক্টোবর হামাসের হামলার সময় দক্ষিণ ইসরায়েলে গাজার সীমানার কাছে নোভা মিউজিক ফেস্টিভাল চলছিল। হামাসের হামলায় ওই উৎসবে উদ্ধার করা তিনজনসহ ৩৫০ জন প্রাণ হারান।

হামাসের ৭ অক্টোবরের হামলায় ১ হাজার ২০০ জন নিহত হন। তারা আরও ২৫২ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে যান।

হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ৭ অক্টোবরের পর গাজায় ইসরায়েলের চলমান হামলায় এ পর্যন্ত অন্তত ৩৫ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন, যাদের বেশিরভাগই বেসামরিক নাগরিক।

আরও পড়ুন:
গাজায় বোলতার কামড়ে হাসপাতালে ইসরায়েলের ১২ সেনা
বাইডেন ইসরায়েলে সব সহায়তা বন্ধ করতে চান: ট্রাম্প
ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য করতে জাতিসংঘে বিপুল ভোটে প্রস্তাব পাস
আমেরিকান অস্ত্র দিয়ে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে থাকতে পারে ইসরায়েল
গাজায় একা লড়তে প্রস্তুত ইসরায়েল: নেতানিয়াহু

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Israels cabinet rifts over Gaza are out in the open

গাজা নিয়ে ইসরায়েলের মন্ত্রিসভার বিরোধ প্রকাশ্যে

গাজা নিয়ে ইসরায়েলের মন্ত্রিসভার বিরোধ প্রকাশ্যে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউআভ গালান্ট, যাদের বিরোধ এরই মধ্যে প্রকাশ্যে চলে এসেছে। ছবি: রয়টার্স
কয়েক মাস আগে ইসরায়েলের সেনারা যেসব জায়গায় হামাসের সঙ্গে লড়ছিল, সেসব এলাকায় তাদের ফিরে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর কাছে স্পষ্ট কৌশল জানতে চান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউআভ গালান্ট। এর মধ্য দিয়ে মন্ত্রিসভায় বিরোধের বিষয়টি উন্মুক্ত হয়ে যায়।

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় যুদ্ধ নিয়ে ইসরায়েলের মন্ত্রিসভার বিরোধ চলতি সপ্তাহে প্রকাশ্যে চলে এসেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

বার্তা সংস্থাটির প্রতিবেদনে জানানো হয়, কয়েক মাস আগে ইসরায়েলের সেনারা যেসব জায়গায় হামাসের সঙ্গে লড়ছিল, সেসব এলাকায় তাদের ফিরে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর কাছে স্পষ্ট কৌশল জানতে চান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউআভ গালান্ট। এর মধ্য দিয়ে মন্ত্রিসভায় বিরোধের বিষয়টি উন্মুক্ত হয়ে যায়।

গালান্টের ভাষ্য, গাজা উপত্যকায় সামরিক সরকার বসানোর বিষয়ে তার সমর্থন নেই।

তার এ বক্তব্যে যুদ্ধ শেষে গাজার শাসনভার অর্পণ নিয়ে নেতানিয়াহুর নির্দেশনার ঘাটতি নিয়ে শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের ক্রমবর্ধমান অস্বস্তির বিষয়টি ফুটে উঠেছে।

গালান্টের এ বক্তব্যের পক্ষে-বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে নিজেদের বিভক্তি স্পষ্ট করেছেন প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভার চার সদস্য।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যকে সমর্থন করেছেন মধ্যমপন্থি হিসেবে পরিচিত সেনাবাহিনীর সাবেক দুই জেনারেল বেনি গানৎজ ও গাদি এইজেনকট। অন্যদিকে কট্টর ডানপন্থি অর্থমন্ত্রী বেজালেল স্মোটরিচ ও অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা মন্ত্রী ইতামার বেন-গভির গালান্টের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছেন।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভার বিরোধ নিয়ে ‘এটি যুদ্ধ চালানোর কোনো পন্থা নয়’ শিরোনামে খবর ছাপে ডানপন্থি ইসরায়েলি ট্যাবলয়েড ইসরায়েল টুডে। সংবাদে বিভিন্ন দিকে তাকানো নেতানিয়াহু ও গালান্টের ছবি ছাপা হয়েছে।

গাজার শাসক দল হামাসকে নির্মূল ও তাদের হাতে থাকা ১৩০ জনের মতো বন্দিকে ফেরতের পাশাপাশি উপত্যকায় যুদ্ধ অভিযান শেষ করার কৌশলগত কোনো লক্ষ্য ঠিক করেননি নেতানিয়াহু। এরই মধ্যে ইসরায়েলের হামলায় গাজায় ৩৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এটি ইসরায়েলের আন্তর্জাতিক বিচ্ছিন্নতা প্রতিনিয়ত বাড়াচ্ছে।

আরও পড়ুন:
বাইডেন ইসরায়েলে সব সহায়তা বন্ধ করতে চান: ট্রাম্প
ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য করতে জাতিসংঘে বিপুল ভোটে প্রস্তাব পাস
আমেরিকান অস্ত্র দিয়ে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে থাকতে পারে ইসরায়েল
গাজায় একা লড়তে প্রস্তুত ইসরায়েল: নেতানিয়াহু
বাইডেনের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে রাফায় ইসরায়েলের হামলা

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Unraveling the secret of making pyramids

পিরামিড তৈরির রহস্য উন্মোচন!

পিরামিড তৈরির রহস্য উন্মোচন! ছবি: সংগৃহীত
গবেষক দলের একজন ড. সুজান অনস্টাইন বলেন, ‘নীল নদের হারিয়ে যাওয়া শাখাটি ৩১টি পিরামিডের সীমানায় রয়েছে। এই জলপথ ভারী ব্লক, সরঞ্জাম ও মানুষ পরিবহনের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকতে পারে। আর এসব কিছুই আমাদের পিরামিড নির্মাণ ব্যাখ্যা করতে সাহায্য করেছে।’

চার হাজার বছরেরও বেশি সময় আগে মিসরে বিশ্বখ্যাত গিজা কমপ্লেক্সসহ ৩১টি পিরামিড কীভাবে তৈরি হয়েছিল সেই রহস্যের সমাধান করেছেন- এমনটা বিশ্বাস করেন বিজ্ঞানীরা।

ইউনিভার্সিটি অফ নর্থ ক্যারোলিনা উইলমিংটনের একটি গবেষক দল বলছে, পিরামিডগুলো সম্ভবত দীর্ঘ-হারিয়ে যাওয়া নীল নদের একটি প্রাচীন শাখার পাশে নির্মিত হয়েছিল যা এখন মরুভূমি এবং কৃষি জমির নিচে ঢাকা পড়ে গেছে।

প্রত্নতত্ত্ববিদরা বহু বছর ধরেই ধারণা পোষণ করে আসছেন যে প্রাচীন মিসরীয়রা নদীর ওপর পিরামিড নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় পাথরের খণ্ডের মতো উপকরণ পরিবহনের জন্য নিকটবর্তী জলপথ ব্যবহার করেছিল।

অধ্যাপক ইমান ঘোনিমের মতে, এখনও পর্যন্ত এই মেগা জলপথের পাশে প্রকৃত পিরামিড সাইটের অবস্থান, আকৃতি, আকার বা নৈকট্য সম্পর্কে কিছুই নিশ্চিত ছিল না। গবেষকরা স্যাটেলাইট থেকে প্রাপ্ত ছবি থেকে এই নদের শাখাটি শনাক্ত করে। পরে ফিল্ড সার্ভে ও সেখান থেকে পাওয়া পলি থেকে বিজ্ঞানীরা নদীর শাখা থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হন।

গবেষণায় বলা হয়, বিজ্ঞানীদের আবিষ্কার করা ৬৪ কিলোমিটার দীর্ঘ নীল নদের শাখাটি শুকিয়ে মরুভূমির নিচে চাপা পড়ে গেছে। এই নদী থেকে এখন বিজ্ঞানীরা বের করার চেষ্টা করছেন যে কেন গিজা পিরামিড কমপ্লেক্সের ৩১টি পিরামিড এই মরুভূমিতে এক সারিতে তৈরি করা হয়েছিল।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই পিরামিডগুলো চার হাজার ৭০০ থেকে তিন হাজার ৭০০ বছরের পুরনো।

নেচার জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় বলা হয়েছে, রাডার প্রযুক্তি ব্যবহার করে গবেষক দলটি বালির পৃষ্ঠে লুকানো বৈশিষ্ট্যগুলোর চিত্র আঁকতে সক্ষম হয়েছিলেন।

গবেষণার একজন সহ-লেখক ড. সুজান অনস্টাইন বিবিসিকে বলেন, ‘ডেটা বিশ্লেষণে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে এটা বলা যায় যে এখানে একটি জলপথ ছিল যা ভারী ব্লক, সরঞ্জাম ও মানুষ পরিবহনের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকতে পারে। আর এসব কিছুই আমাদের পিরামিড নির্মাণ ব্যাখ্যা করতে সাহায্য করেছে।’

বিজ্ঞানীদের দাবি, নীল নদের হারিয়ে যাওয়া শাখাটি প্রায় ৬৪ কিলোমিটার দীর্ঘ ছিল। আর নদীটির প্রস্থ ছিলে দু শ’ থেকে সাত শ’ মিটার। ওই শাখাটি ৩১টি পিরামিডের সীমানায় রয়েছে, যা চার হাজার ৭০০ থেকে তিন হাজার ৭০০ বছর আগে নির্মিত হয়েছিল।

বিলুপ্ত নদী শাখার আবিষ্কারটি গিজা এবং লিস্ট (মধ্য রাজ্যের সমাধিস্থল)-এর মধ্যে উচ্চ পিরামিডের ঘনত্ব ব্যাখ্যা করতে সাহায্য করে, যা এখন সাহারান মরুভূমির অন্তর্ভুক্ত।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
12 Israeli soldiers in hospital with bolt bites in Gaza

গাজায় বোলতার কামড়ে হাসপাতালে ইসরায়েলের ১২ সেনা

গাজায় বোলতার কামড়ে হাসপাতালে ইসরায়েলের ১২ সেনা বোলতার কামড়ে আহত সব সেনাকে চিকিৎসার জন্য ইসরায়েলের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ছবি: গেটি ইমেজেস
ইসরায়েলের নিরিম কিবুৎজের কাছে সেনাবাহিনীর গাজা ডিভিশনের সাদার্ন ব্রিগেডের একটি ট্যাংক বিপুলসংখ্যক বোলতার সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় হুল ফোটানোর ঘটনা ঘটে। বোলতার কামড়ে মোটামুটি আহত হন এক সেনা। বাকি ১১ জন সামান্য আহত হন।

ফিলিস্তিনের গাজার দক্ষিণে বোলতার কামড় খাওয়া ১২ সেনাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী।

মিডল ইস্ট আই জানায়, শুক্রবার উপত্যকায় আহত হন ইসরায়েলের সেনারা।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ইসরায়েলের নিরিম কিবুৎজের কাছে সেনাবাহিনীর গাজা ডিভিশনের সাদার্ন ব্রিগেডের একটি ট্যাংক বিপুলসংখ্যক বোলতার সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় হুল ফোটানোর ঘটনা ঘটে। বোলতার কামড়ে মোটামুটি আহত হন এক সেনা। বাকি ১১ জন সামান্য আহত হন।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, আহত সব সেনাকে চিকিৎসার জন্য ইসরায়েলের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন:
বাইডেনের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে রাফায় ইসরায়েলের হামলা
অস্ত্র পাঠানো নিয়ে বাইডেনের হুমকি হতাশাজনক: ইসরায়েল
এবার ইসরায়েলে অস্ত্র পাঠানো বন্ধ করার হুমকি বাইডেনের
ইসরায়েলে বোমা পাঠানোর সিদ্ধান্ত স্থগিত করল যুক্তরাষ্ট্র
এমআইটি’র ক্যাম্প পুনরুদ্ধার করেছে ফিলিস্তিনপন্থী বিক্ষোভকারীরা

মন্তব্য

p
উপরে