× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Which is in Zelenskys secret bunker
google_news print-icon

জেলেনস্কির গোপন বাঙ্কারে যা আছে

জেলেনস্কির-গোপন-বাঙ্কারে-যা-আছে
গোপন বাঙ্কারে থেকে ইউক্রেনীয় সেনাদের সাহস যুগিয়ে যাচ্ছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কি। ছবি: সংগৃহীত
এর আগেও বিভিন্ন সময়ে ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কির বাঙ্কারটির কিছু অংশ দেখা গেছে। তবে এবার তথ্যচিত্রটিতে পুরোপুরি প্রকাশিত হয়েছে।

রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছে এক বছরের বেশি সময় হলো। এ সময়ে ইউক্রেনের সেনাদের নেতৃত্ব দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কি। যুদ্ধে সাবেক এ কমেডিয়ানকে মুখোমুখি হতে হয়েছে কঠিন পরিস্থিতির।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপে সংঘটিত সবচেয়ে বড় এ যুদ্ধে একটি গোপন বাঙ্কারে থেকে ইউক্রেনীয় সেনাদের সাহস যুগিয়ে যাচ্ছেন জেলেনস্কি। ইউক্রেন যুদ্ধের এক বছর পূর্ণ উপলক্ষে তথ্যচিত্র ‘ইয়ার’-এ সেই বাঙ্কারটিকে দেখানো হয়েছে।

এর আগেও বিভিন্ন সময়ে ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কির বাঙ্কারটির কিছু অংশ দেখা গেছে। তবে এবার তথ্যচিত্রটিতে পুরোপুরি প্রকাশিত হয়েছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মেট্রোর প্রতিবেদনে বলা হয়, বাঙ্কারটিতে একটি সিঙ্ক, একটি বিছানা ও বেশ কয়েকটি শোপিস।

তথ্যচিত্র নির্মাতা দিমিত্রো কোমারোভকে জেলেনস্কি বলেন, এটি আমার বাসা। যেখানে আমি এক বছর ধরে থাকছি।

যুদ্ধ শুরু হওয়ার দিনের কথা স্মরণ করে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, ফোনে জানতে পেরেছিলাম যুদ্ধ শুরু হয়েছে। এরপরই আমি বাঙ্কারের উদ্দেশে রওনা হই।

সেদিন সকালে আমার স্ত্রী ও আমি জেগে উঠি। আমার সন্তান ও পরিবারের বাকি সদস্যরা ঘুমাচ্ছিল। আমি দ্রুত বের হয়ে যাই। আমি আমার পরিবারকে ভালোবাসি, কিন্তু প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমার এখানে থাকাটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

জেলেনস্কি জানান, তিনি আসার কয়েক ঘণ্টা পর তার পরিবারের সদস্যরা তার কাছে আসেন।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট যে বাঙ্কারটি থেকে যুদ্ধ পর্যবেক্ষণ করছেন সেখানে একটি টেলিফোন, যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী উইস্টন চার্চিলের মূর্তি ও ছোট ছোট যুদ্ধবিমান ও ট্যাংকের মডেল দেখা গেছে।

জেলেনস্কি জানান, ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে রাশিয়া হামলার চালানোর পর তিনি বিশ্বের ২৭টি দেশের প্রধানকে ফোন দিয়েছিলেন।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাকে বলা হয়েছিল সব গুছিয়ে নিতে। কারণ আমাকে হত্যা করতে চেয়েছিল। আমি আমার কথা ভাবিনি।

জেলেনস্কি তথ্যচিত্র নির্মাতাকে তার ওয়্যারড্রোবও দেখিয়েছেন। সেখানে বেশিরভাগ খাকি রংয়ের সোয়েটার ও জ্যাকেট দেখা গেছে। সেইসঙ্গে ছিল একটি নতুন স্যুটও।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, যুদ্ধ জয়ের পরদিনই তিনি সেই স্যুটটি পরবেন।

আরও পড়ুন:
ইউক্রেনে শান্তি ফেরাতে চীনের ১২ দফা
পশ্চিমের সঙ্গে ‘অন্তহীন’ যুদ্ধে পুতিন
যুদ্ধ থেকে বাঁচতে থাইল্যান্ডমুখী রুশরা
পুতিনের ঘোষণায় পরমাণু অস্ত্রের প্রতিযোগিতা বাড়ার শঙ্কা
ইউক্রেন ইস্যুতে পুতিন-বাইডেন বাগযুদ্ধ

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Dani Alvez jailed for 4 and a half years for sexual harassment

যৌন হেনস্তায় সাড়ে ৪ বছরের জেল দানি আলভেজের

যৌন হেনস্তায় সাড়ে ৪ বছরের জেল দানি আলভেজের বার্সার জার্সিতে স্প্যানিশ ক্লাব ও ব্রাজিল জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার দানি আলভেজ। ছবি: গোল ডটকম
বার্সেলোনার একটি নাইট ক্লাবের বাথরুমে ২০২২ সালের ৩১ ডিসেম্বর ভোরে নারীকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ ছিল আলভেজের বিরুদ্ধে, যার প্রমাণ পায় আদালত। ওই নারীর অভিযোগ, আলভেজ তাকে ধর্ষণ করেছেন।

স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কাতালোনিয়ার রাজধানী বার্সেলোনায় এক নারীকে যৌন হেনস্তার মামলায় ব্রাজিল জাতীয় দল ও বার্সেলোনার সাবেক ফুটবলার দানি আলভেজকে সাড়ে চার বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

বার্সেলোনার একটি আদালতের তিন বিচারকের প্যানেল বৃহস্পতিবার এ রায় বলে দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

সংবাদমাধ্যমটির খবরে বলা হয়, মামলার বিচারের সময় ৪০ বছর বয়সী আলভেজ কোনো ধরনের অপরাধ করেননি বলে দাবি করেছেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন তিনি।

বার্সেলোনার একটি নাইট ক্লাবের বাথরুমে ২০২২ সালের ৩১ ডিসেম্বর ভোরে নারীকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ ছিল আলভেজের বিরুদ্ধে, যার প্রমাণ পায় আদালত। ওই নারীর অভিযোগ, আলভেজ তাকে ধর্ষণ করেছেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলিরা আলভেজের ৯ বছর কারাদণ্ড চান, যেখানে মামলার বাদীর আইনজীবীরা ফুটবলারের ১২ বছরের কারাদণ্ডের আর্জি জানান। অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা আলভেজের খালাস অথবা দোষী সাব্যস্ত হলে তাকে যেন এক বছরের কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার ইউরো জরিমানা করা হয়, সেই আবেদন করেছিলেন।

গত ২০ জানুয়ারি গ্রেপ্তারের পর থেকে কারাগারে রয়েছেন আলভেজ। তার জামিন আবেদন নাকচ করা হয়।

আরও পড়ুন:
ব্রাজিলে ভারি বর্ষণ, বন্যায় ৩৬ প্রাণহানি
ব্রাজিলে ভবন ধসে নিহত ১৪
ব্রাজিলে বছরের প্রথমার্ধে আমাজন উজাড়করণ কমেছে ৩৪%
সেনেগালের কাছে ৪-২ গোলে হারল ব্রাজিল
খেলায় হেরে যাওয়ায় হাসাহাসি, ৭ জনকে গুলি করে হত্যা

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Putin Monster Trudeau

পুতিন দানব: ট্রুডো

পুতিন দানব: ট্রুডো রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ছবি: উইকিমিডিয়া কমন্স
কানাডার একদল ব্যবসায়ী নেতার সঙ্গে আলাপকালে ট্রুডো ‘মৌলিক স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের’ পক্ষে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে নাভালনির ‘অপরিসীম সাহসের’ প্রশংসা করেন।

ক্রেমলিন সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনির মৃত্যুকে ‘ট্র্যাজেডি’ আখ্যা দিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শুক্রবার বলেছেন, এর মধ্য দিয়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দানব রূপটি প্রকাশ পেয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে জানানো হয়, রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম সিবিসিকে নাভালনির মৃত্যুর বিষয়ে ট্রুডো বলেন, ‘এটি ট্র্যাজেডি।’

তিনি বলেন, ‘এর মধ্য দিয়ে আসলে প্রমাণ হয় যে, রাশিয়ার জনগণের মুক্তির জন্য লড়াই করা যে কারও ওপর কতটা চড়াও হতে পারেন পুতিন। একই সঙ্গে এটি পুরো বিশ্বকে মনে করিয়ে দিয়েছে যে, পুতিন কেমন দানব।’

রাশিয়ার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ শুক্রবার জানায়, উত্তর মেরুর কারাগারে বন্দি ৪৭ বছর বয়সী নাভালনির আকস্মিক মৃত্যু হয়।

চলতি বছরের মার্চে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দুই দশকের ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করতে পুতিনের চেষ্টার মধ্যে তার বিরোধী নাভালনির মৃত্যুর খবরটি প্রকাশ হয়।

কারিশম্যাটিক আইনজীবী নাভালনিকে রাশিয়ার শীর্ষ বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে অনেকে বিবেচনা করতেন। তাকেই বিরোধী একমাত্র রাজনীতিক মনে করা হতো যিনি বিপুল লোকসমাগমের পাশাপাশি ৭১ বছর বয়সী পুতিনকে টেক্কা দিতে পারতেন।

এদিকে কানাডার একদল ব্যবসায়ী নেতার সঙ্গে আলাপকালে ট্রুডো ‘মৌলিক স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের’ পক্ষে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে নাভালনির ‘অপরিসীম সাহসের’ প্রশংসা করেন।

আরও পড়ুন:
গাজায় দ্রুত যুদ্ধবিরতি চান পুতিন
রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র দৃঢ় সম্পর্কের প্রতীক: পুতিন
কিমের বাসায় দাওয়াত পেলেন ‘বন্ধু’ পুতিন
ঠিক হয়েছে বিমান, কানাডার পথে ট্রুডো
‘প্লেনের অভাবে’ ভারত থেকে বাড়ি যেতে পারছেন না ট্রুডো

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
No plans to attack Poland or Latvia Putin

পোল্যান্ড বা লাটভিয়ায় হামলার পরিকল্পনা নেই: পুতিন

পোল্যান্ড বা লাটভিয়ায় হামলার পরিকল্পনা নেই: পুতিন যুক্তরাষ্ট্রের রক্ষণশীল সাংবাদিক টাকার কার্লসনকে দেয়া সাক্ষাৎকারের একটি মুহূর্তে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ছবি: রয়টার্স
সামরিক জোট ন্যাটোভুক্ত দেশ পোল্যান্ডে রুশ সেনা পাঠানোর কোনো পরিকল্পনা আছে কি না জানতে চাইলে পুতিন বলেন, পোল্যান্ড যদি রাশিয়ায় হামলা চালায়, তাহলে দেশটিতে সেনা পাঠানো হবে। এ ছাড়া পোল্যান্ড, লাটভিয়া কিংবা অন্য কোথাও হামলার পরিকল্পনা নেই রাশিয়ার।

রাশিয়া তার স্বার্থে লড়ে যাবে মন্তব্য করে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ইউক্রেন যুদ্ধকে পোল্যান্ড কিংবা লাটভিয়া পর্যন্ত টেনে নেয়ার কোনো ইচ্ছা নেই তার।

যুক্তরাষ্ট্রের রক্ষণশীল সাংবাদিক টাকার কার্লসনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পুতিন এ কথা বলেন, যেটি প্রকাশ হয় বৃহস্পতিবার।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ২০২২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ হামলা শুরুর পর প্রথম কোনো আমেরিকান সাংবাদিককে সাক্ষাৎকার দেন পুতিন। এতে রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, পশ্চিমা নেতারা বুঝতে পেরেছেন যে, রাশিয়ার কৌশলগত পরাজয় অসম্ভব। পরবর্তী করণীয় নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছেন তারা।

টাকার কার্লসনের সঙ্গে মঙ্গলবার দুই ঘণ্টা ধরে প্রশ্নোত্তরে অংশ নেন পুতিন, যা দুই দিন পর প্রকাশ হয় টাকারকার্লসন ডটকমে।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়ায় বন্দি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাংবাদিক ইভান গেরশকোভিচের মুক্তির জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছা সম্ভব বলে মনে করেন তিনি। রাশিয়ায় প্রায় এক বছর ধরে বন্দি গেরশকোভিচ, যিনি গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগের বিচার ‍শুরুর প্রতীক্ষায় আছেন।

সামরিক জোট ন্যাটোভুক্ত দেশ পোল্যান্ডে রুশ সেনা পাঠানোর কোনো পরিকল্পনা আছে কি না জানতে চাইলে পুতিন বলেন, পোল্যান্ড যদি রাশিয়ায় হামলা চালায়, তাহলে দেশটিতে সেনা পাঠানো হবে। এ ছাড়া পোল্যান্ড, লাটভিয়া কিংবা অন্য কোথাও হামলার পরিকল্পনা নেই রাশিয়ার।

আরও পড়ুন:
বাংলাদেশে ‘আরব বসন্তের উসকানি’ নিয়ে রাশিয়ার মন্তব্যে নীরব যুক্তরাষ্ট্র
পাঁচ লাখ নতুন সেনার প্রয়োজন: জেলেনস্কি
‘বাংলাদেশ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করছে না রাশিয়া’
যুক্তরাষ্ট্র জনগণের ইচ্ছায় সন্তুষ্ট না হলে বাংলাদেশে ‘আরব বসন্ত’র পরিস্থিতি হতে পারে: রাশিয়া
বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে রাশিয়া সবকিছু করবে: রাষ্ট্রদূত

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Russian military plane crashed with 65 Ukrainian prisoners of war

‘ইউক্রেনের ৬৫ যুদ্ধবন্দি’ নিয়ে রাশিয়ার সামরিক বিমান বিধ্বস্ত

‘ইউক্রেনের ৬৫ যুদ্ধবন্দি’ নিয়ে রাশিয়ার সামরিক বিমান বিধ্বস্ত ছবি: রয়টার্স
রাশিয়ার দাবি, বিমানটিতে রুশ বাহিনীর হাতে বন্দী হওয়া ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর ৬৫ জন সদস্য, ছয়জন ক্রু এবং যুদ্ধবন্দীদের পাহারায় নিয়োজিত তিনজন ছিলেন। তবে ইউক্রেনের একটি ইংরেজি পত্রিকার দাবি, ওই বিমান ইউক্রেনের সেনারা ভূপাতিত করেছে এবং সেটিতে ইউক্রেনের কোনো বন্দি ছিল না।

ইউক্রেন সীমান্তের কাছে রাশিয়ার একটি ইউশিন আইএল-৭৬ সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় বিমানটির ভেতরে থাকা ৬৫ জন ইউক্রেনীয় যুদ্ধবন্দির মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

বুধবার রাশিয়ার বেলগোরোদ অঞ্চলে বিমানটি মাটিতে আছড়ে পড়ে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তাসংস্থা আরআইএ।

রাশিয়ার দাবি, বিমানটিতে রুশ বাহিনীর হাতে বন্দী হওয়া ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর ৬৫ জন সদস্য, ছয়জন ক্রু এবং যুদ্ধবন্দীদের পাহারায় নিয়োজিত তিনজন ছিলেন। তবে ইউক্রেনের একটি ইংরেজি পত্রিকার দাবি, ওই বিমান ইউক্রেনের সেনারা ভূপাতিত করেছে এবং সেটিতে ইউক্রেনের কোনো বন্দি ছিল না।

রাশিয়ার বার্তাসংস্থা আরআইএ নভোস্তি জানিয়েছে, বিমানটিতে রুশ বাহিনীর হাতে বন্দি ইউক্রেনীয় সেনারা ছিলেন। যাদের বন্দি বিনিময়ের জন্য বেলগোরোদে নিয়ে আসা হচ্ছিল।

বেলগোরোদের আঞ্চলিক গভর্নর ভায়াচেসলাভ গ্লাদকোভ জানিয়েছেন, তিনি বিমান দুর্ঘটনা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন এবং ঘটনাস্থলে গেছেন। তিনি আরও জানিয়েছেন, সেখানে উদ্ধারকারী দল পৌঁছেছে। বিমান বিধ্বস্তের কারণ অনুসন্ধান চলছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, স্থানীয় সময় সকাল ১১টার দিকে ইয়াবলোনোভো গ্রামে একটি বিমান খাড়াভাবে আছড়ে পড়ছে। বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার আগে একটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

রুশ প্রেসিডেন্টের দপ্তর ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকোভ জানিয়েছেন, তারা বিমান বিধ্বস্তের ব্যাপারে জানতে পেরেছেন। তবে তিনিও বিস্তারিত কোনো কিছু জানাননি।

আইএল-৭৬ বিমানটি তৈরি করা হয়েছে সেনা, কার্গো, সামরিক সরঞ্জাম এবং অস্ত্র পরিবহণের জন্য। বিমানটিতে সাধারণত পাঁচজন ক্রু থাকেন এবং এটি সর্বোচ্চ ৯০ জন যাত্রী বহন করতে পারে।

রুশ বার্তাসংস্থা আরআইএ নভোস্তি আরও জানিয়েছে, বিমানটিতে ৬৫ জন যুদ্ধবন্দি ছাড়াও ৯ জন অন্য যাত্রী ছিলেন। যাদের মধ্যে ছয়জন ছিলেন ক্রু।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The Queen of Denmark announced her abdication live on television

টেলিভিশনের লাইভে ডেনমার্কের রানির পদত্যাগ ঘোষণা

টেলিভিশনের লাইভে ডেনমার্কের রানির পদত্যাগ ঘোষণা
টেলিভিশনের লাইভে এসে পদত্যাগ ঘোষণা করেন ডেনমার্কের রানি দ্বিতীয় মার্গ্রেথে। ছবি: বিবিসি
মার্গ্রেথে বলেন, ‘পরবর্তী প্রজন্মের কাছে দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার সময় এসেছে। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে এখনই সঠিক সময়, তাই আমার ছেলে ক্রাউন প্রিন্স ফ্রেডরিকের কাছে সিংহাসন ছেড়ে দেব।’

ডেনমার্কের রানি দ্বিতীয় মার্গ্রেথে নতুন বছর শুরুর আগে হঠাৎ করেই পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, রানি মার্গ্রেথের ঐতিহ্যবাহী নববর্ষের প্রাক্কালে দেয়া বক্তব্যের সময় টেলিভিশনের একটি লাইভ অনুষ্ঠানে রোববার এ পদত্যাগ ঘোষণা করেন। রানি হওয়ার ৫২ বছর পর আনুষ্ঠানিকভাবে তিনি ১৪ জানুয়ারি পদত্যাগ করবেন।

মার্গ্রেথে বলেন, ‘পরবর্তী প্রজন্মের কাছে দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার সময় এসেছে। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে এখনই সঠিক সময়, তাই আমার ছেলে ক্রাউন প্রিন্স ফ্রেডরিকের কাছে সিংহাসন ছেড়ে দেব।’

আল জাজিরার প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৮৩ বছর বয়সী বিশ্বের একমাত্র রাজত্বকারী রানি মার্গ্রেথে। তিনি ১৯৭২ সালে তার পিতা রাজা ফ্রেডেরিকের মৃত্যুর পর সিংহাসন গ্রহণ করেছিলেন।

২০২৩ সালের প্রথম দিকে তার পিঠে একটি অস্ত্রোপচার হয়। যা স্বাভাবিকভাবেই ভবিষ্যতের বিষয়ে চিন্তার জন্ম দিয়েছে বলে জানান মার্গ্রেথে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে তিনি ডেনিশ জনসাধারণকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, যারা এত বছর ধরে তাকে সমর্থন করেছে। প্রধানমন্ত্রী মেটে ফ্রেডেরিকসেন তার সেবার জন্য রানিকে ধন্যবাদ জানান।

আরও পড়ুন:
রানি এলিজাবেথের সম্মানে মুদ্রায় ৬৪০০ হীরা
অস্ট্রেলিয়ায় চাইল্ডকেয়ার কর্মীর বিরুদ্ধে ৯১ শিশুকে যৌন হয়রানির অভিযোগ
খুলনার উপকূলীয় জনপদে বেলজিয়ামের রানি
ঢাকায় বেলজিয়ামের রানি মাথিল্ডে

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
14 dead 25 injured in Prague university shooting

প্রাগে বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১৪, আহত ২৫

প্রাগে বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১৪, আহত ২৫ চেক প্রজাতন্ত্রের রাজধানী প্রাগের চার্লস ইউনিভার্সিটিতে বৃহস্পতিবার বন্দুক হামলার পর নিরাপত্তায় এক পুলিশ কর্মকর্তা। ছবি: রয়টার্স
পুলিশের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ৩৯ জনকে হতাহত করার আগে চেক প্রজাতন্ত্রের ওই শিক্ষার্থী তার বাবাকে গুলি করে হত্যা করেন। বন্দুকধারী সম্ভবত নিজের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন।

চেক প্রজাতন্ত্রের রাজধানী প্রাগের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার ২৪ বছর বয়সী শিক্ষার্থীর গুলিতে ১৪ জন নিহত ও ২৫ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ৩৯ জনকে হতাহত করার আগে চেক প্রজাতন্ত্রের ওই শিক্ষার্থী তার বাবাকে গুলি করে হত্যা করেন। বন্দুকধারী সম্ভবত নিজের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, বন্দুক হামলার ঘটনাটি চেক প্রজাতন্ত্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ন্যক্কারজনক।

হামলার পর মন্ত্রিপরিষদের সঙ্গে বৈঠক করেন চেক প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট পিতর পাভেল। সেই বৈঠক থেকে হতাহতদের স্মরণে ২৩ ডিসেম্বর মধ্য ইউরোপের দেশটিতে এক দিনের শোক ঘোষণা করা হয়।

প্রেসিডেন্ট পাভেল বলেন, ‘এত তরুণের অহেতুক প্রাণহানির ঘটনায় আমি তীব্র শোকের পাশাপাশি অসহায় ক্ষোভ প্রকাশ করব।’

প্রাগ চার্লস ইউনিভার্সিটির যে ভবনে বন্দুক হামলা চালানো হয়, সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রের সন্ধান পায় পুলিশ।

এর আগে বন্দুকধারী প্রাগের বাইরে নিজ শহর ক্লাদনো অঞ্চল থেকে রাজধানীর দিকে আত্মহত্যার জন্য যাচ্ছেন বলে খবর পায় পুলিশ। ওই খবরের কিছুক্ষণের মধ্যেই বন্দুকধারীর বাবাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

চেক প্রজাতন্ত্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ভিত রাকুসান জানান, বন্দুক হামলার সঙ্গে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসের যোগসূত্র নেই।

আরও পড়ুন:
যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় নিহত ২২, আহত অর্ধশতাধিক

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
500000 new troops needed Zelensky

পাঁচ লাখ নতুন সেনার প্রয়োজন: জেলেনস্কি

পাঁচ লাখ নতুন সেনার প্রয়োজন: জেলেনস্কি কিয়েভে মঙ্গলবার বছরের শেষ সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সঙ্গে দুই ঘণ্টার মতো সময় কথা বলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। ছবি: সংগৃহীত
পাঁচ লাখ সেনাসদস্য চাওয়ার বিষয়টিকে ব্যয়বহুল ও স্পর্শকাতর উল্লেখ করে জেলেনস্কি বলেন, ‘যুদ্ধক্ষেত্রে ইতোমধ্যে পাঁচ লাখ সেনা মোতায়েন আছে। সেনা চাওয়ার বিষয়ে সমর্থন দেয়ার আগে বিস্তারিত আরও জানা দরকার।’

ইউক্রেনের সেনাবাহিনী রাশিয়ার সঙ্গে চলমান যুদ্ধে আরও পাঁচ লাখ সেনা চায় বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

দুই বছর ধরে চলমান এ যুদ্ধ নিয়ে কিয়েভে মঙ্গলবার বছরের শেষ সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

পাঁচ লাখ সেনাসদস্য চাওয়ার বিষয়টিকে ব্যয়বহুল ও স্পর্শকাতর উল্লেখ করে জেলেনস্কি বলেন, ‘যুদ্ধক্ষেত্রে ইতোমধ্যে পাঁচ লাখ সেনা মোতায়েন আছে। সেনা চাওয়ার বিষয়ে সমর্থন দেয়ার আগে বিস্তারিত আরও জানা দরকার।’

পশ্চিমা বিশ্বের অর্থ ও সামরিক সহায়তার ওপরে ভিত্তি করেই রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেন।

কিন্তু সম্প্রতি আমেরিকান কংগ্রেসে ইউক্রেনের জন্য ৬০ বিলিয়ন ডলারের একটি যুদ্ধ সহায়তা প্যাকেজ আটকে দেয় রিপাবলিকানরা। এরপর গত সপ্তাহে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ৫০ বিলিয়ন ইউরোর একটি তহবিল আটকে দিয়েছে হাঙ্গেরি।

এসব কারণে রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়া নিয়ে অনেকটা জটিল পরিস্থিতে রয়েছে ইউক্রেন। এর মধ্যে যুদ্ধের ময়দানে ইউক্রেন বাহিনীতে আরও সেনা বাড়ানোর ইচ্ছার কথা জানালেন জেলেনস্কি। আরও সেনা মোতায়েনের অর্থ খরচ বাড়ানো।

যদিও ইউরোপের নেতারা বলে যাচ্ছেন, ইউক্রেনে সহায়তা বন্ধ করা হবে না।

শীতের শুরুতে রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে বলে ধারণা দেশটির।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন যদি এ সময় যথাযথ সাহায্যের হাত না বাড়ায় তাহলে ইউক্রেনের অবস্থা কঠিন হয়ে পড়বে জানিয়ে চলতি মাসের শুরুর দিকে বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ইউক্রেনের ফার্স্টলেডি ওলেনা জেলেনস্কা বলেন, ‘পশ্চিমা সমর্থন ছাড়া মারা যাওয়ার মতো বিপদে পড়বে ইউক্রেনের মানুষ।’

অন্যদিকে, ইউক্রেনের চলমান পরিস্থিতি সুবিধা এনে দিয়েছে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে। চলতি সপ্তাহেই তিনি বলেছেন, ‘তাদের বাহিনী আক্রমণ অব্যাহত রাখবে। সব লক্ষ্য অর্জনের অঙ্গীকার করলাম।’

জেলেনস্কির বছরের শেষ সংবাদ সম্মেলনটি কিয়েভে অনুষ্ঠিত হলেও সংবাদ সম্মেলনস্থল ও সময় সাধারণ মানুষের কাছে গোপন রাখা হয়। ইউক্রেনীয় ও বিদেশি গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের চিঠির মাধ্যমে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

আরও পড়ুন:
সরকারবিরোধী বিক্ষোভের পরিকল্পনা নিয়ে বিরোধী নেতার সঙ্গে বৈঠক করেছেন হাস: রাশিয়া
ব্রিকস সদস্য হতে রাশিয়ার সাহায্য চায় পাকিস্তান
ইউক্রেনের কাছে অস্ত্র বেচেছে পাকিস্তান, দাবি বিবিসির
চট্টগ্রাম বন্দরে রুশ নৌবহর
গাজায় মানবিক সহায়তা পাঠাল রাশিয়া

মন্তব্য

p
উপরে