× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Supporters riot Bolsonaros role in investigation
hear-news
player
google_news print-icon

সমর্থকদের তাণ্ডব: তদন্তে বলসোনারোর ভূমিকা

সমর্থকদের-তাণ্ডব-তদন্তে-বলসোনারোর-ভূমিকা
ব্রাজিলের জাতীয় কংগ্রেসে গত ৮ জানুয়ারি তাণ্ডব চালান সাবেক প্রেসিডেন্ট জায়ের বলসোনারোর সমর্থকরা। ছবি: এজেন্সিয়া সেনাদো
সাবেক প্রেসিডেন্ট বলসোনারোর বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করতে স্থানীয় সময় শুক্রবার কৌঁসুলিদের আবেদন গ্রহণ করে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। আদেশে বিচারক আলেকজান্দ্রে দি মোরায়েস বলেন, ‘গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে কাপুরুষোচিত ষড়যন্ত্র করে যেসব আলোচিত ব্যক্তি অস্বাভাবিক পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করছেন, তাদের দায়ী করা হবে।’

ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাসিলিয়ায় ৮ জানুয়ারির দাঙ্গায় সাবেক প্রেসিডেন্ট জায়ের বলসোনারোর ভূমিকা তদন্তে সায় দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

সাবেক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করতে স্থানীয় সময় শুক্রবার কৌঁসুলিদের আবেদন গ্রহণ করে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

আদেশে বিচারক আলেকজান্দ্রে দি মোরায়েস বলেন, ‘গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে কাপুরুষোচিত ষড়যন্ত্র করে যেসব আলোচিত ব্যক্তি অস্বাভাবিক পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করছেন, তাদের দায়ী করা হবে।’

ব্রাজিলের প্রধান কৌঁসুলির দপ্তরের বিবৃতিতে বলা হয়, গত রোববার সমর্থকদের গণতন্ত্রবিরোধী আচরণের (ভাঙচুর ও সহিংসতা) কারণে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বলসোনারোর বিরুদ্ধে উসকানি ও পরিকল্পনায় জড়িত থাকার অভিযোগ তদন্ত করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রে থাকা বলসোনারোর আমলের আইনমন্ত্রী অ্যান্ডারসন তোরেসকে গ্রেপ্তারে এরই মধ্যে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

ব্রাসিলিয়ার জননিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তোরেসের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ না ঠেকানোর অভিযোগ আনা হয়েছিল।

নৈরাজ্য সৃষ্টি ও সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে বামপন্থি প্রেসিডেন্ট লুই ইনাসিও লুলা দা সিলভাকে উৎখাত করে কট্টর ডানপন্থি বলসোনারোকে ক্ষমতায় পুনর্বহালে গত সপ্তাহান্তে ব্রাজিলের সুপ্রিম কোর্ট, কংগ্রেস ও প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে তাণ্ডব চালান সাবেক রাষ্ট্রপ্রধানের সমর্থকরা।

ব্রাজিলে গত বছরের অক্টোবরের নির্বাচনে হারের পর মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রাক্কালে দেশ ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে যান বলসোনারো। ফ্লোরিডায় থাকা তার সাবেক সহকারী তোরেস বলেছেন, আত্মসমর্পণ করতে ফিরতে চান দেশে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বলসোনারো বলেছেন, ব্রাজিলে ফেরার বিষয়ে পিছু হটবেন না তিনি।

আরও পড়ুন:
কালের অধ্যায় শেষে সমাহিত পেলে
চলছে পেলের শেষকৃত্য
আলভেসের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ
পেলের বিদায়ে কাতর অন্য ক্রীড়ার তারকারাও
পেলের মৃত্যুতে শোক জামাল-সাকিবদের

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Earthquake US ready to help Turkey in any way

ভূমিকম্প: তুরস্ককে যেকোনো সহায়তায় প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র

ভূমিকম্প: তুরস্ককে যেকোনো সহায়তায় প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র তুরস্কে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনে তৎপরতা চালাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা। ছবি: আনাদোলু
যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান এক বিবৃতিতে বলেন, তুরস্ক ও সিরিয়ায় ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্পের খবরে যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

তুরস্কে সোমবার শক্তিশালী ভূমিকম্পে ব্যাপক প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতির মধ্যে দেশটিকে যেকোনো ধরনের সহায়তায় প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

তুরস্ক ও সীমান্তবর্তী সিরিয়ায় সোমবার শক্তিশালী ভূমিকম্পে কমপক্ষে ১১৮ জনের মৃত্যু হয় বলে টিআরটি ওয়ার্ল্ডের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরি অবস্থা ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (এএফএডি) জানায়, সোমবার ভোররাত ৪টা ১৭ মিনিটে ৭.৪ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়, যার উৎপত্তিস্থল কাহরামানমারাস প্রদেশের পাজারসিক জেলায়। উৎপত্তিস্থলে এর গভীরতা ছিল ৭ কিলোমিটার।

পাজারসিকের পর তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় গাজিয়ানটেপ প্রদেশে ৬.৪ ও ৬.৫ মাত্রার দুটি ভূমিকম্প হয়।

দেশটির কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশগুলোতে ৭.৪ মাত্রার ভূমিকম্পে কমপক্ষে ৭৬ জনের প্রাণহানি ও ৪৪০ জন আহত হয়।

এমন বাস্তবতায় যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান এক বিবৃতিতে বলেন, তুরস্ক ও সিরিয়ায় ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্পের খবরে যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

তিনি বলেন, ‘যেকোনো ধরনের সহায়তা দিতে আমরা প্রস্তুত আছি।’

আমেরিকার নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেন, সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় করণীয় ঠিক করতে ইউএসএআইডিসহ কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

তিনি আরও বলেন, ‘তুরস্ক সরকারের সঙ্গে সমঝোতা করে আমরা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করে যাব।’

এদিকে তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সয়লু বলেছেন, উদ্ধার তৎপরতায় বেশ কিছু দল যুক্ত হয়েছে। চতুর্থ পর্যায়ের সতর্কতা সংকেত জারি করা হয়েছে, যার মধ্যে আন্তর্জাতিক সহায়তার আহ্বানও রয়েছে।

আরও পড়ুন:
ইন্দোনেশিয়ায় অগ্ন্যুৎপাত,পালাচ্ছে মানুষ
ধ্বংসস্তূপে ৪৮ ঘণ্টা থেকেও অক্ষত ৬ বছরের আজকা
ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ২৬৮, বেশির ভাগই শিশু
ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ১৬২
সিরিয়া থেকে তুরস্কে পাল্টা হামলা, নিহত ৩

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
US searches for Chinese balloon wreckage

চীনা বেলুনের ধ্বংসাবশেষ খুঁজছে যুক্তরাষ্ট্র

চীনা বেলুনের ধ্বংসাবশেষ খুঁজছে যুক্তরাষ্ট্র যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্রে ধ্বংস হওয়া বেলুনটি সাউথ ক্যারোলিনার সৈকতের কাছে সমুদ্রে পড়ে। ছবি: সংগৃহীত
নর্থ আমেরিকান এরোস্পেস ডিফেন্স কমান্ড ও নর্দার্ন কমান্ডের কমান্ডার জেনারেল গ্লেন ভ্যানহার্ক জানান, যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী বেলুনটি উদ্ধারে কাজ করছে। নৌবাহিনীর পাশাপাশি কোস্টগার্ড সদস্যরা অভিযানে নিরাপত্তা দিচ্ছেন।

সমুদ্রসীমায় ভূপাতিত করা চীনের নজরদারি বেলুনের ধ্বংসাবশেষ খোঁজা হচ্ছে বলে রোববার জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী।

নর্থ আমেরিকান এরোস্পেস ডিফেন্স কমান্ড ও নর্দার্ন কমান্ডের কমান্ডার জেনারেল গ্লেন ভ্যানহার্ক জানান, যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী বেলুনটি উদ্ধারে কাজ করছে। নৌবাহিনীর পাশাপাশি কোস্টগার্ড সদস্যরা অভিযানে নিরাপত্তা দিচ্ছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ধ্বংসাবশেষ সফলভাবে উদ্ধার করতে পারলে চীনের নজরদারি সক্ষমতা নিয়ে বড় পরিসরে জানার সুযোগ হবে যুক্তরাষ্ট্রের। যদিও যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলেছেন, জাতীয় নিরাপত্তার ওপর বলার মতো প্রভাব রাখতে পারবে না বেলুনটি।

আলাস্কার কাছে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশসীমায় প্রবেশের এক সপ্তাহ পর শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর একটি যুদ্ধবিমান বেলুনটিকে ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ভূপাতিত করে।

জেনারেল গ্লেন ভ্যানহার্ক বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের জলসীমায় বস্তুটিকে নামিয়ে আনা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এ তৎপরতাকে ‘অতি প্রতিক্রিয়া’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে চীন। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপের বিপরীতে কোনো ব্যবস্থা নেয়ার আগে সম্পর্কের আরও অবনতি হওয়ার বিষয়টি বিবেচনায় নিতে পারে চীন।

এদিকে উড়তে থাকা বেলুন ধ্বংসে সময় নেয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সমালোচনা করেছেন রিপাবলিকান পার্টির আইনপ্রণেতারা। তারা মনে করছেন, সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করে বাইডেন দুর্বলতার পরিচয় দিয়েছেন।

আরও পড়ুন:
যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে পুলিশের বিশেষ ইউনিট নিষিদ্ধ
মারছিল পুলিশ, ‘মা, মা’ বলে কাঁদছিলেন নিকোলস
স্টুডেন্ট ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি
ক্যালিফোর্নিয়ায় আবারও গুলি, নিহত ৭
ক্যালিফোর্নিয়ায় ১০ খুনের ১২ ঘণ্টা পর আত্মহত্যা বন্দুকধারীর

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
China warns US for destroying surveillance balloon

নজরদারি বেলুন ধ্বংস করায় যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের হুঁশিয়ারি

নজরদারি বেলুন ধ্বংস করায় যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের হুঁশিয়ারি মিসাইল দিয়ে নজরাদারি বেলুনকে ধ্বংস করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ছবি: সংগৃহীত

সাউথ ক্যারোলিনা সৈকতের কাছে রাখা নজরদারি বেলুনটি ধ্বংস করায় যুক্তরাষ্ট্রকে হুমকি দিয়েছে চীন। ওয়াশিংটনকে সতর্ক করে বেইজিং বলছে, এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় প্রতিক্রিয়া দেখানো হবে।

পেন্টাগনের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় শনিবার এফ-২২ যুদ্ধ বিমান থেকে একটি মিসাইল ছুড়ে বেলুনটিকে ধ্বংস করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন জানিয়েছেন, সার্বভৌমত্বের অগ্রহণযোগ্য লঙ্ঘনের প্রতিক্রিয়া হিসেবে ইচ্ছাকৃত বেলুনটিকে ধ্বংস করা হয়েছে।

এ নিয়ে চীন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রোববার একটি বিবৃতিতে জানায়, বেসামরিক বেলুনটি স্পষ্টভাবে অত্যধিক প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। এটি গুরুতরভাবে আন্তর্জাতিক চর্চার লঙ্ঘন।

স্থানীয় সময় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বেলুনটিকে ধ্বংসের নির্দেশ দিয়েছিলেন, তবে দেশটির প্রতিরক্ষা সদরদপ্তর পেন্টাগনের কর্মকর্তারা সে সময় বলেছিলেন, হাজার ফুট ওপর থেকে বেলুনের ধ্বংসাবশেষ মাটিতে পড়লে বেসামরিক লোকজনের ক্ষতি হতে পারে। তাই সমুদ্রসীমায় যাওয়ার আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

চীনের নজরদারি বেলুনটি ধ্বংসের পর যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়ে বাইডেন বলেন, ‘তারা সফলভাবে একে ভূপাতিত করেছে এবং আমি এ জন্য আমাদের পাইলটদের অভিনন্দন জানাতে চাই।’

আরও পড়ুন:
স্টুডেন্ট ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি
ক্যালিফোর্নিয়ায় আবারও গুলি, নিহত ৭
ক্যালিফোর্নিয়ায় ১০ খুনের ১২ ঘণ্টা পর আত্মহত্যা বন্দুকধারীর
ক্যালিফোর্নিয়ায় চীনা নববর্ষ উদযাপনে গুলি, নিহত ১০
এক সপ্তাহে চীনে করোনায় ১৩ হাজার মৃত্যু

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Chile burns 23 dead

পুড়ছে চিলি, ২৩ প্রাণহানি

পুড়ছে চিলি, ২৩ প্রাণহানি চিলির নাসিমিয়েন্তো এলাকায় অগ্নিনির্বাপণে ব্যস্ত ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। ছবি: এএফপি
রাজধানী সান্তিয়াগোতে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যারোলিনা তোহা জানান, আবহাওয়া পরিস্থিতির কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণ কঠিন হয়ে পড়েছে।

লাতিন আমেরিকার দেশ চিলিজুড়ে দাবানলে কমপক্ষে ২৩ জনের মৃত্যু ও ৯৭৯ জন দগ্ধ বা আহত হয়েছেন।

এমন পরিস্থিতিতে স্থানীয় সময় শনিবার জরুরি অবস্থার আওতা বাড়িয়েছে সরকার।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, গ্রীষ্মের খরতাপে আগুনের ব্যাপকতা বেড়েছে, যাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা কঠিন হয়ে পড়েছে।

দেশটির এক কর্মকর্তা শনিবার ব্রিফিংয়ে জানান, আগুন থেকে বাঁচতে নিরাপদে আশ্রয় নিয়েছেন ১ হাজার এক শর বেশি মানুষ।

সর্বশেষ জরুরি অবস্থার আদেশের আওতায় রয়েছে দক্ষিণাঞ্চলীয় আরাউক্যানিয়া অঞ্চল। এর আগে কাছাকাছি বায়োবিও ও নাবল অঞ্চলেও এ অবস্থা জারি করা হয়।

রাজধানী সান্তিয়াগোতে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যারোলিনা তোহা জানান, আবহাওয়া পরিস্থিতির কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণ কঠিন হয়ে পড়েছে।

তিনি জানান, রোববার নতুন করে ৭৬টি আগুনের ঘটনা ঘটেছে।

দেশটিতে কম বসতিপূর্ণ যে তিন অঞ্চলে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে, সেগুলো ফল উৎপাদনের জন্য বিখ্যাত। অঞ্চলগুলোতে উৎপাদিত আঙুর, আপেলের মতো ফল বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হয়।

আগুন বেড়ে যাওয়ার মধ্যে শনিবার চিলির কর্মকর্তারা সাংবাদিকদের জানান, অগ্নিনির্বাপণে উড়োজাহাজ ও ফায়ার ফাইটার দিয়ে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে স্পেন, যুক্তরাষ্ট্র, আর্জেন্টিনা, ইকুয়েডর, ব্রাজিল ও ভেনেজুয়েলা।

আরও পড়ুন:
বিশ্ব ফুটছে দাবদাহে
আগ্রাসী হচ্ছে দাবানল
ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে ফ্রান্স স্পেন পর্তুগাল
ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানল: হুমকিতে ৩ হাজার বছর বয়সী গাছ
আগুন থেকে বাঁচতে কম্বল গায়ে বিশ্বের বৃহত্তম গাছ

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
US destroys Chinas surveillance balloon with supersonic missile

সুপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রে চীনের নজরদারি বেলুন ধ্বংস যুক্তরাষ্ট্রের

সুপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রে চীনের নজরদারি বেলুন ধ্বংস যুক্তরাষ্ট্রের যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্রে ধ্বংস হওয়া বেলুনটি সাউথ ক্যারোলিনার সৈকতের কাছে সমুদ্রে পড়ে। ছবি: সংগৃহীত
যুক্তরাষ্ট্রের এক সামরিক কর্মকর্তা জানান, অভিযানে অংশ নেয় বেশ কয়েকটি যুদ্ধবিমান ও রিফুয়েলিং উড়োজাহাজ। এর মধ্যে দেশটির ভার্জিনিয়ার ল্যাংলি বিমান ঘাঁটি থেকে আসা একটি এফ-২২ যুদ্ধবিমান স্থানীয় সময় শনিবার দুপুর ২টা ৩৯ মিনিটে এআইএম-নাইনএক্স সুপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে বেলুনটিকে আঘাত করে।  

সাউথ ক্যারোলিনা সৈকতের কাছে শনিবার ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে চীনের নজরদারি বেলুনটি ধ্বংস করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

আকাশসীমায় প্রবেশের এক সপ্তাহ পর বেলুন নিয়ে দুই দেশের মধ্যে ব্যাপক নাটকীয়তা শেষে বস্তুটিকে সমুদ্রে বিনাশ করে আমেরিকা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, স্থানীয় সময় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বেলুনটিকে ধ্বংসের নির্দেশ দিয়েছিলেন, তবে দেশটির প্রতিরক্ষা সদরদপ্তর পেন্টাগনের কর্মকর্তারা সে সময় বলেছিলেন, হাজার ফুট ওপর থেকে বেলুনের ধ্বংসাবশেষ মাটিতে পড়লে বেসামরিক লোকজনের ক্ষতি হতে পারে। তাই সমুদ্রসীমায় যাওয়ার আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

চীনের নজরদারি বেলুনটি ধ্বংসের পর যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়ে বাইডেন বলেন, ‘তারা সফলভাবে একে ভূপাতিত করেছে এবং আমি এ জন্য আমাদের বৈমানিকদের অভিনন্দন জানাতে চাই।’

যুক্তরাষ্ট্রের এক সামরিক কর্মকর্তা জানান, অভিযানে অংশ নেয় বেশ কয়েকটি যুদ্ধবিমান ও রিফুয়েলিং উড়োজাহাজ। এর মধ্যে দেশটির ভার্জিনিয়ার ল্যাংলি বিমান ঘাঁটি থেকে আসা একটি এফ-২২ যুদ্ধবিমান স্থানীয় সময় শনিবার দুপুর ২টা ৩৯ মিনিটে এআইএম-নাইনএক্স সুপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে বেলুনটিকে আঘাত করে।

আরও পড়ুন:
নজরদারি বেলুনে যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্কে আরও ফাটলের শঙ্কা
আকাশে ‘চীনা’ বেলুন, গুলি করবে না যুক্তরাষ্ট্র
যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে পুলিশের বিশেষ ইউনিট নিষিদ্ধ
মারছিল পুলিশ, ‘মা, মা’ বলে কাঁদছিলেন নিকোলস
স্টুডেন্ট ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Fears of further rift in US China ties over surveillance balloons

নজরদারি বেলুনে যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্কে আরও ফাটলের শঙ্কা

নজরদারি বেলুনে যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্কে আরও ফাটলের শঙ্কা আকাশসীমায় চীনের নজরদারি বেলুন শনাক্তের কথা বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের জানান যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক কর্মকর্তা। ছবি: রয়টার্স
গুপ্তচরবৃত্তির উদ্দেশ্যে বেলুন পাঠানোর ঘটনাকে যুক্তরাষ্ট্রের সার্বভৌমত্বের ‘অগ্রহণযোগ্য লঙ্ঘন’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন আমেরিকার কর্মকর্তারা। দেশটির কিছু আইনপ্রণেতা চীনকে জবাবদিহির মুখোমুখি করতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে দাবি জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে চীনের নজরদারি বেলুন ওড়ার খবরে যে রাজনৈতিক শোরগোল শুরু হয়েছে, তাতে আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনের ঘোষিত বেইজিং সফরই শুধু বাতিল হয়নি, দুই দেশের ক্রমাবনতিশীল সম্পর্ক মেরামতের চেষ্টা ব্যাহত হওয়ার শঙ্কাও তৈরি হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, গুপ্তচরবৃত্তির উদ্দেশ্যে বেলুন পাঠানোর ঘটনাকে যুক্তরাষ্ট্রের সার্বভৌমত্বের ‘অগ্রহণযোগ্য লঙ্ঘন’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন আমেরিকার কর্মকর্তারা। দেশটির কিছু আইনপ্রণেতা চীনকে জবাবদিহির মুখোমুখি করতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে দাবি জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিক্লেন শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া সফর আপাতত বাতিলের ঘোষণা দিয়ে জানিয়েছেন, পরিস্থিতি অনুকূলে এলে তিনি বেইজিং সফরের প্রস্তুতি নেবেন, তবে নীতি বিশ্লেষকদের ভাষ্য, চীনের পক্ষ থেকে যথেষ্ট সদিচ্ছা দেখানো না হলে খুব দ্রুত দেশটিতে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই ব্লিঙ্কেনের।

আমেরিকার আকাশে উড়তে থাকা বেলুনটি আবহাওয়াসংক্রান্ত কাজের জন্য মোতায়েন করা হয় দাবি করে চীনের পক্ষ থেকে বলা হয়, সেটি ভুলবশত যুক্তরাষ্ট্রের আকাশসীমায় ঢুকে পড়ে।

এ নিয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে এশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কূটনীতিক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা ড্যানিয়েল রাসেল বলেন, চীনের এ ‘হাস্যকর অজুহাত’ কাজে আসবে না।

তার মতে, গত বছরের নভেম্বরে ইন্দোনেশিয়ার বালিতে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিংয়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বৈঠকে দ্বিপক্ষীয় যোগাযোগ বাড়ানোর বিষয়ে যে ঐকমত্য সৃষ্টি হয়েছিল, সে অবস্থায় ফেরা কঠিন হয়ে যাবে।

বৈশ্বিক দুই পরাশক্তির মধ্যে গত কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে সম্পর্কের অবনতি হচ্ছিল। গত বছরের আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফরে যাওয়ার পর সে সম্পর্ক তলানিতে নেমে যায়। পেলোসির সফরের প্রতিক্রিয়ায় তাইওয়ান ঘিরে সামরিক মহড়া চালায় চীন।

এমন বাস্তবতায় বাইডেন প্রশাসনের আশা ছিল, সম্পর্ক মেরামতের একটি রাস্তা তৈরি হবে, যাতে করে সংঘাত ঠেকানো যাবে, কিন্তু সে আশায় গুড়েবালি হয়ে দেখা দিল বেলুন ওড়ানোর ঘটনা।

আরও পড়ুন:
আকাশে ‘চীনা’ বেলুন, গুলি করবে না যুক্তরাষ্ট্র
যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে পুলিশের বিশেষ ইউনিট নিষিদ্ধ
মারছিল পুলিশ, ‘মা, মা’ বলে কাঁদছিলেন নিকোলস
স্টুডেন্ট ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি
ক্যালিফোর্নিয়ায় আবারও গুলি, নিহত ৭

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
US will not shoot Chinese balloons in the sky

আকাশে ‘চীনা’ বেলুন, গুলি করবে না যুক্তরাষ্ট্র

আকাশে ‘চীনা’ বেলুন, গুলি করবে না যুক্তরাষ্ট্র আকাশসীমায় চীনের নজরদারি বেলুন শনাক্তের কথা বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের জানান যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক কর্মকর্তা। ছবি: রয়টার্স
নাম প্রকাশ না করার শর্তে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের একজন সাংবাদিকদের বলেন, আকাশসীমায় প্রবেশের পর বেলুনটিকে ‘হেফাজতে’ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। চালকসহ সামরিক বিমান দিয়ে একে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।

চীনের একটি গুপ্তচর বেলুন কয়েক দিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশসীমায় উড়ছে জানিয়ে দেশটির এক কর্মকর্তা বলেছেন, নিরাপত্তা ঝুঁকির শঙ্কায় বস্তুটিকে গুলি না করতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে পরামর্শ দিয়েছেন সামরিক কর্মকর্তারা।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক কর্মকর্তা বেলুনের অবস্থানের বিষয়ে জানান বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

আমেরিকার কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি জানায়, আকাশসীমায় বেলুন দেখে একে ধ্বংস করতে উদ্যত হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক যুদ্ধবিমান, তবে জ্যেষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তারা বাইডেনকে পরামর্শ দেন, বেলুনের ধ্বংসাবশেষ নাগরিকদের জন্য ঝুঁকি তৈরি করতে পারে, যা মেনে নেন প্রেসিডেন্ট।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কর্মকর্তাদের একজন সাংবাদিকদের বলেন, আকাশসীমায় প্রবেশের পর বেলুনটিকে ‘হেফাজতে’ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। চালকসহ সামরিক বিমান দিয়ে একে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।

এদিকে ‘বেশি উচ্চতার নজরদারি বেলুন’ শনাক্তের কথা জানিয়েছে কানাডার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ও।

ওই বেলুনটি চীনের কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রণালয় আরও বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে এ বিষয়ে নিয়মিত যোগাযোগ করা হচ্ছে।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে শুক্রবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মাও নিং বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের দাবি যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:
ক্যালিফোর্নিয়ায় চীনা নববর্ষ উদযাপনে গুলি, নিহত ১০
এক সপ্তাহে চীনে করোনায় ১৩ হাজার মৃত্যু
ক্যালিফোর্নিয়ায় গুলি, হতাহতের শঙ্কা
দ্বীপটির দাম ৫ কোটি টাকা
ক্যালিফোর্নিয়ায় গুলিতে নিহত ৬

মন্তব্য

p
উপরে