× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Bolsonaro in hospital after supporters riot
google_news print-icon

সমর্থকদের তাণ্ডবের পর হাসপাতালে বলসোনারো

সমর্থকদের-তাণ্ডবের-পর-হাসপাতালে-বলসোনারো
হাসপাতালে ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট জায়ের বলসোনারো। ছবি: এএফপি
স্থানীয় সময় রোববার বলসোনারোর হাজার হাজার সমর্থক দেশটির কংগ্রেস, পার্লামেন্ট এবং প্রেসিডেন্টের প্রাসাদে হামলা চালিয়েছেন। হামলার পর এখন দাঙ্গাকারীদের আইনের আওতায় আনতে দেশটিতে ধরপাকড় চালাচ্ছে পুলিশ। এখন পর্যন্ত প্রায় দেড় হাজার জনকে আটক করা হয়েছে।

পেটে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট জায়ের বলসোনারো। তার স্ত্রীর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে স্থানীয় সময় রোববার বলসোনারোর হাজার হাজার সমর্থক দেশটির কংগ্রেস, পার্লামেন্ট এবং প্রেসিডেন্টের প্রাসাদে হামলা চালিয়েছেন। হামলার পর এখন দাঙ্গাকারীদের আইনের আওতায় আনতে দেশটিতে ধরপাকড় চালাচ্ছে পুলিশ। এখন পর্যন্ত প্রায় দেড় হাজার জনকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ও গ্লোবোর প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার অ্যাডভেন্টহেলথ হাসপাতালে বলসোনারোকে ভর্তি করা হয়েছে। প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার দুই দিন আগে গত ৩১ ডিসেম্বর আমেরিকায় যান তিনি।

ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্টের স্ত্রী মিশেল বলসোনারো ইনস্টাগ্রামে লেখেন, ২০১৮ সালে ছুরি হামলার পর বলসোনারো প্রায়ই পেটে ব্যথা অনুভব করেন ।

যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালটির পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো বক্তব্য পায়নি এএফপি।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে বামপন্থি নেতা লুই ইনাসিও লুলা দা সিলভার অভিষেকের মাত্র এক সপ্তাহ পর ব্রাজিলে রাজধানীতে সিরিজ হামলা চালিয়েছেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী বলসোনারোর সমর্থকরা।

এ হামলার নিন্দা জানিয়ে টুইট করেছেন ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট। তবে এ ঘটনার উসকানিদাতা তিনি নন বলে দাবি করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিতে না পেরে ২০২১ সালে ক্যাপিটলে তাণ্ডব চালিয়েছিলেন তার সমর্থকরা। সে ঘটনারই স্মৃতিচারণা করালেন বলসোনারোর সমর্থকরা।

আরও পড়ুন:
পেলের মৃত্যুতে শোক জামাল-সাকিবদের
অনবদ্য পেলে: ১৫ বছরে অভিষেক থেকে হাজার গোল
পেলের শেষকৃত্য কোথায় ও কবে
পেলেকে শেষবিদায় জানাতে ভক্তদের ভিড়
পেলেকে মেসি-রোনালডো-এমবাপের শ্রদ্ধা

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
The bodies of three more Israeli hostages were recovered

আরও তিন ইসরায়েলি জিম্মির মরদেহ উদ্ধার

আরও তিন ইসরায়েলি জিম্মির মরদেহ উদ্ধার হানান ইয়াবলোঙ্কা, মিশেল নিসেনবাউম ও ওরিয়ন হার্নান্দেজ। ছবি: সংগৃহীত

ফিলিস্তিনের যুদ্ধবিধ্বস্ত গাজা ভূখণ্ড থেকে আরও তিন ইসরায়েলি জিম্মির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)। বলা হয়েছে, ইসরায়েলের অভ্যন্তরীণ গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে যৌথ অভিযানের সময় উত্তরাঞ্চলীয় জাবালিয়া শহর থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

ইসরায়েলি যেসব জিম্মির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তারা হলেন- হানান ইয়াবলোঙ্কা, মিশেল নিসেনবাউম ও ওরিয়ন হার্নান্দেজ। তাদের মধ্যে হানান ইয়াবলোঙ্কা ও ওরিয়ন হার্নান্দেজ নোভা মিউজিক ফেস্টিভ্যালের স্থান থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর নিহত হন।

গাজায় এখনও হামাসের কাছে প্রায় ১৩০ জন বন্দি রয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েল।

‌ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘জিম্মিদের গাজা থেকে জীবিত উদ্ধার কারা আমাদের জাতীয় ও নৈতিক দায়িত্ব। সে সঙ্গে মৃতদেরও দেশে আনতে সবকিছু করবে ইসরায়েল। আমরা তা-ই করছি।’

হামাস পুনরায় সংগঠিত হয়েছে দাবি করে ইসরায়েল দুই সপ্তাহ আগে জাবালিয়ায় পুনরায় অভিযান শুরু করে।

হামাসের ৭ অক্টোবরের আক্রমণের পর থেকে গাজা উপত্যকা জুড়ে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে ইসরায়েল। তাদের নির্বিচার হামলায় গত সাত মাসে ৩৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে, যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

আরও পড়ুন:
আগ্রাসন বন্ধে আইসিজের নির্দেশের পর রাফাহতে ইসরায়েলের হামলা
রাফায় আগ্রাসন বন্ধ করতে ইসরায়েলকে আইসিজের নির্দেশ
রাফাহতে হামলা বন্ধে দক্ষিণ আফ্রিকার আবেদন, রায়ের অপেক্ষা
মধ্য গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত ১২
ইসরায়েলের প্রতি আইসিসির নিষেধাজ্ঞা সমর্থনের ইঙ্গিত যুক্তরাষ্ট্রের

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Hundreds killed in Papua New Guinea landslide

পাপুয়া নিউগিনিতে ভূমিধসে নিহত শতাধিক

পাপুয়া নিউগিনিতে ভূমিধসে নিহত শতাধিক
মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

পাপুয়া নিউগিনির উত্তরাঞ্চলের একটি প্রত্যন্ত এলাকায় বড় ধরনের ভূমিধসে শতাধিক মানুষ মারা গেছেন।

শুক্রবার এই তথ্য জানিয়েছে অস্টেলিয়া ব্রডকাস্টিং করপোরেশন।

এনগা প্রদেশের কাওকালাম গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। গ্রামটি রাজধানী পোর্ট মোর্সবি থেকে প্রায় ৬০০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

রাত ৩টার দিকে যখন ভূমিধস শুরু হয়, তখন গ্রামের বেশিরভাগ বাসিন্দা ঘুমে ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী জেমস মারাপে এক বিবৃতিতে জানান, তিনি এখনো পরিস্থিতি নিয়ে নির্ভরযোগ্য ব্রিফিং পাননি। তবে তিনি আশ্বস্ত করেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এই দুর্যোগের মোকাবিলায় কাজ করছে।

তিনি বলেন, আমরা এনগার প্রাদেশিক ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ত্রাণ, মরদেহ উদ্ধার ও অবকাঠামো পুননির্মাণের উদ্যোগ সমন্বয় করার জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা, প্রতিরক্ষা বাহিনী, সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তাদের পাঠাচ্ছি।

অস্ট্রেলিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (এবিসি) ও অন্যান্য স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে ১০০ জনেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন।

স্থানীয় গণমাধ্যমে বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে এএফপি জানিয়েছে, মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ফটো ও ভিডিওতে ধ্বংসের মাত্রা দেখা যায়। এলাকাবাসীরা বড় বড় পাথর সরানোর চেষ্টা করছেন। অসংখ্য গাছ উপড়ে গেছে এবং ভেঙে পড়া ভবনের ধ্বংসাবশেষের নিচে অনেকেই চাপা পড়েছেন।

কয়েকটি ছবিতে পাথরে নিচ থেকে মানুষকে বের করে আনার দৃশ্য দেখা গেছে।

পুলিশ এই ব্যাপারে কোন ধরনের মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
9 killed in chemical factory fire in India

ভারতে রাসায়নিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৯

ভারতে রাসায়নিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৯ শুক্রবার মহারাষ্ট্র রাজ্যের থানে জেলার একটি কারখানায় এই আগুন লাগে। ছবি: সংগৃহীত
শুক্রবার মহারাষ্ট্র রাজ্যের থানে জেলার একটি কারখানায় এই আগুন লাগে। নিখোঁজদের উদ্ধারে ধ্বংসাবশেষের মধ্যে ব্যাপক তল্লাশি চালাচ্ছে জরুরি উদ্ধারকর্মীরা।

ভারতের পশ্চিমাঞ্চলে একটি রাসায়নিক কারখানায় বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত আরও ৬৪ জন।

শুক্রবার মহারাষ্ট্র রাজ্যের থানে জেলার একটি কারখানায় এই আগুন লাগে। নিখোঁজদের উদ্ধারে ধ্বংসাবশেষের মধ্যে ব্যাপক তল্লাশি চালাচ্ছে জরুরি উদ্ধারকর্মীরা। খবর ইউএনবি

প্রশাসনিক কর্মকর্তা শচীন শেজাল জানান, বৃহস্পতিবার কারখানার বয়লারে বিস্ফোরণের ফলে মহারাষ্ট্র রাজ্যের থানে জেলায় কারখানার বয়লার বিস্ফোরণে আশপাশের কারখানা ও বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সেজাল বলেন, আগুন নিভিয়ে ফেলা হয়েছে এবং উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপের মধ্যে আরও দুটি মৃতদেহ খুঁজে পেতে অনুসন্ধান চালাচ্ছে। যদিও ধ্বংসাবশেষের পরিমাণ অতিরিক্ত হওয়ার কারণে অনুসন্ধান বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

সেজাল বলেন, এখন পর্যন্ত দুটি লাশ শনাক্ত করা গেছে এবং সাতটি বেশি পুড়ে যাওয়ার কারণে তাদের চেনা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, 'আমরা নিহতদের পরিবারের সদস্যদের ডিএনএ নমুনা জমা দিতে বলেছি। যা লাশগুলো শনাক্তে আমাদের সহায়তা করতে পারে।’

বিস্ফোরণের পর ওই এলাকায় ধূসর ধোঁয়ার কুণ্ডলী ছড়িয়ে পড়ার কারণ ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান এই প্রশাসনিক কর্মকর্তা।

ভারতের ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্স জানিয়েছে, কারখানাটিতে খাবারের রং উৎপাদন করা হতো। এতে খুবই প্রতিক্রিয়াশীল রাসায়নিক ব্যবহার করার কারণে বিস্ফোরণ ঘটে থাকতে পারে।

সেজাল বলেন, বৃহস্পতিবারের বিস্ফোরণে তীব্র কম্পনের কারণে আশপাশের কারখানাগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং আশপাশের বাড়ির কাচের জানালা ভেঙে গেছে।

এদিকে দিল্লির কার্নিভাল রিসোর্টে আরেকটি আগুনের ঘটনা ঘটেছে।

বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দমকল কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে এবং আগুন নেভানোর চেষ্টা চলছে।

শুক্রবার দিল্লির আলিপুর এলাকায় কার্নিভাল রিসোর্টে এই ভয়াবহ আগুনের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে দমকল কর্মকর্তারা।

আরও পড়ুন:
ভারতে চলন্ত বাসে আগুনে ৯ জনের মৃত্যু

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
ICZ orders Israel to stop aggression in Rafah

রাফায় আগ্রাসন বন্ধ করতে ইসরায়েলকে আইসিজের নির্দেশ

রাফায় আগ্রাসন বন্ধ করতে ইসরায়েলকে আইসিজের নির্দেশ শুক্রবার ইসরায়েলের বিরুদ্ধে দক্ষিণ আফ্রিকার করা মামলার শুনানিতে আন্তর্জাতিক বিচার আদালত। ছবি: রয়টার্স
ইসরায়েলের ওপর আদালতের এই রায় কার্যকরের কোনো উপায় না থাকলেও এ রায়টি বিশ্ব থেকে দেশটিকে বিচ্ছিন্ন করার একটি বড় হুমকি হিসেবে বিবেচিত হবে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

অবিলম্বে দক্ষিণ গাজার শহর রাফায় সামরিক অভিযান বন্ধ করতে ইসরায়েলকে নির্দেশ দিয়েছে আন্তর্জাতিক বিচার আদালত (আইসিজে)।

দক্ষিণ আফ্রিকার করা মামলার পরিপ্রেক্ষিতে এক জরুরি রায়ে শুক্রবার এ নির্দেশ দেয় জাতিসংঘের শীর্ষ এ আদালত।

ইসরায়েলের ওপর আদালতের এই রায় কার্যকরের কোনো উপায় না থাকলেও এ রায়টি বিশ্ব থেকে দেশটিকে বিচ্ছিন্ন করার একটি বড় হুমকি হিসেবে বিবেচিত হবে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

রায়ে সামরিক অভিযান বন্ধের পাশাপাশি রাফায় ত্রাণ প্রবেশের জন্য মিশর সীমান্ত খুলে দেয়া এবং তদন্তের স্বার্থে ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনকে গাজায় প্রবেশের অনুমতি দেয়ার মতো নির্দেশও দেয়া হয়েছে।

এসব আদেশ পালনের অগ্রগতি জানিয়ে এক মাসের মধ্যে ইসরায়েলকে আইসিজেতে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

২০২৩ সালের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে গাজার শাসক গোষ্ঠী হামাসের হামলার জবাবে উপত্যকায় ভয়াবহ আগ্রাসন শুরু করে ইসরায়েল।

দেশটির হামলায় গাজায় প্রাণ হারিয়েছে কমপক্ষে ৩৫ হাজার ৮০০ মানুষ। উপত্যকায় আহত হয়েছে ৮০ হাজার ২০০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি।

এছাড়া ইসরায়েলের হামলা শুরুর পর থেকে গাজায় কমপক্ষে সাত হাজার মানুষ নিখোঁজ রয়েছে যারা ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে নিহত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফিলিস্তিনি ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভাষ্য, গাজায় হতাহত ফিলিস্তিনিদের বেশিরভাগ নারী ও শিশু।

ফিলিস্তিনি জনগণের বেঁচে থাকা নিশ্চিত করতে গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকার আইনজীবীরা রাফায় ইসরায়েলের হামলা বন্ধের জন্য আইসিজের কাছে জরুরি ব্যবস্থা চেয়ে আবেদন করেন। সেই মামলায় এ আদেশ দিল জাতিসংঘের শীর্ষ আদালত।

তবে ইসরায়েল আইসিজের সদস্য না হওয়ায় তাদের এ রায় মানার বাধ্যবাধকতা নেই। কিন্তু ফিলিস্তিন সদস্য হওয়ায় ইসরায়েলের ওপর এই আদালতের এখতিয়ার রয়েছে।

আরও পড়ুন:
রাফাহতে হামলা বন্ধে দক্ষিণ আফ্রিকার আবেদন, রায়ের অপেক্ষা
ইসরায়েলের প্রতি আইসিসির নিষেধাজ্ঞা সমর্থনের ইঙ্গিত যুক্তরাষ্ট্রের
ফিলিস্তিন রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দেবে নরওয়ে, আয়ারল্যান্ড ও স্পেন

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Iran will continue to strengthen ties in the Middle East Ayatollah

মধ্যপ্রাচ্যে বন্ধন জোরদার অব্যাহত রাখবে ইরান: আয়াতুল্লাহ

মধ্যপ্রাচ্যে বন্ধন জোরদার অব্যাহত রাখবে ইরান: আয়াতুল্লাহ ইরানের প্রয়াত প্রেসিডেন্টের প্রতি সম্মান জানাতে তেহরান সফরে আসা কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির সঙ্গে বুধবার বৈঠক করেন ইসলামি প্রজাতন্ত্রটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনি। ছবি: প্রেস টিভি
রাইসির মৃত্যুতে সমবেদনা জানাতে আসায় কাতারের আমিরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা। ওই সময় তিনি ইরান ও কাতারের মধ্যকার সম্পর্ক এগিয়ে নেয়ার ওপর জোর দেন।

দুর্ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মৃত্যুর পরও ইরান মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে বন্ধুত্বের বন্ধন জোরদার অব্যাহত রাখবে বলে বুধবার জানিয়েছেন ইসলামি প্রজাতন্ত্রটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ সাইয়েদ আলি খামেনি।

ইরানের প্রয়াত প্রেসিডেন্টের প্রতি সম্মান জানাতে তেহরান সফরে আসা কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির সঙ্গে বৈঠকে এ কথা জানান তিনি।

রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম প্রেস টিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়, রাইসির মৃত্যুতে সমবেদনা জানাতে আসায় কাতারের আমিরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা। ওই সময় তিনি ইরান ও কাতারের মধ্যকার সম্পর্ক এগিয়ে নেয়ার ওপর জোর দেন।

ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশে রোববার হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আবদোল্লাহিয়ান, পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের গভর্নর মালেক রহমতিসহ হেলিকপ্টারের ৯ আরোহীর সবাই নিহত হন।

খামেনি বলেন, এ অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতা নস্যাতের চেষ্টার মধ্যে দেশগুলোর ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া বিকল্প নেই।

এদিকে কাতারের আমির শেখ তামিম বলেন, ইরানের সঙ্গে কাতারের সম্পর্ক সবসময়ই শক্তিশালী ছিল এবং তা অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, ‘ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক বর্ধিতকরণে কোনো সীমাবদ্ধতা দেখছি না আমরা।’

আরও পড়ুন:
রাইসির শোকে সমাবেশ করছেন ইরানিরা
রাইসির দাফন হবে জন্ম-শহর মাশহাদে
মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনায় রসদ যোগাতে পারে রাইসির মৃত্যু
ইরানের প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক
ইরানের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি বাঘেরি কানি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Taiwan deploys troops in response to Chinas punitive drills

চীনের ‘শাস্তিমূলক’ মহড়ার জবাবে সেনা মোতায়েন তাইওয়ানের

চীনের ‘শাস্তিমূলক’ মহড়ার জবাবে সেনা মোতায়েন তাইওয়ানের তাইওয়ানের চিয়ায়ির সামরিক ঘাঁটিতে ২০২৩ সালের ৬ জানুয়ারি তৎকালীন প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েনের সফরকালে সেনাদের প্রদর্শনী। ছবি: এএফপি
তাইওয়ানের নতুন প্রেসিডেন্ট লাই চিং-তে দায়িত্ব নেয়ার ঠিক তিন দিন পর এ মহড়া শুরু করল চীন। দ্বীপরাষ্ট্রটির নতুন প্রেসিডেন্টকে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী’ মনে করে বেইজিং।

পূর্ব এশিয়ার দেশ তাইওয়ানের আশপাশে বৃহস্পতিবার থেকে দুই দিনব্যাপী ‘শাস্তিমূলক’ সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন, যার প্রতিক্রিয়ায় দেশজুড়ে সেনা মোতায়েন করেছে তাইওয়ান।

রয়টার্স জানায়, ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী কর্মকাণ্ডের’ জবাবে সামরিক মহড়া শুরু করেছে বলে দাবি করেছে চীন।

বার্তা সংস্থাটির প্রতিবেদনে বলা হয়, তাইওয়ান প্রণালি ও চীনের উপকূলের ঠিক পাশে তাইওয়ান নিয়ন্ত্রিত বেশ কিছু দ্বীপ ঘিরে মহড়া শুরু করে চীন।

তাইওয়ানের নতুন প্রেসিডেন্ট লাই চিং-তে দায়িত্ব নেয়ার ঠিক তিন দিন পর এ মহড়া শুরু করল প্রতিবেশী বৈশ্বিক পরাশক্তিটি। দ্বীপরাষ্ট্রটির নতুন রাষ্ট্রপ্রধানকে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী’ মনে করে বেইজিং।

গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থায় চলা তাইওয়ানকে নিজস্ব ভূখণ্ড হিসেবে দেখে চীন। দেশটি গত সোমবার অভিষেক অনুষ্ঠানে লাইয়ের দেয়া বক্তব্যের নিন্দা জানায়।

ওই বক্তব্যে চীনকে হুমকি বন্ধের আহ্বান জানান লাই। এর এক দিন পর মঙ্গলবার চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই লাইকে ‘অত্যন্ত বাজে’ আখ্যা দেন।

চীনের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে আলোচনার আহ্বান জানিয়ে ব্যর্থ হয়েছেন লাই।

তার ভাষ্য, একমাত্র তাইওয়ানের জনগণই তাদের ভবিষ্যৎ ঠিক করতে পারে।

লাই তাইওয়ানের ওপর বেইজিংয়ের সার্বভৌমত্বের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

আরও পড়ুন:
তাইওয়ানের ভূমিকম্পে হাজার ছাড়াল আহতের সংখ্যা
তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত চার, আহত অর্ধশতাধিক
২৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপল তাইওয়ান
বাংলাদেশের আম চায় চীন
সিআইএকে দিয়ে চীনবিরোধী গোপন তৎপরতা ট্রাম্পের

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Rishi Sunak announced the general election of the United Kingdom on July 4

৪ জুলাই যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচন, জানালেন ঋষি সুনাক

৪ জুলাই যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচন, জানালেন ঋষি সুনাক
সরকারি বাসভবন ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে ঋষি সুনাক এই ঘোষণা দিয়ে ‘প্রতিটি ভোটের জন্য লড়াই করার’ অঙ্গীকার করেন। আসন্ন ভোটে তিনিও লড়বেন। 

আগাম নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক।

ঘোষণা অনুযায়ী আসন্ন ৪ জুলাই দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন হবে বলে বৃহস্পতিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে ঋষি সুনাক এই ঘোষণা দিয়ে ‘প্রতিটি ভোটের জন্য লড়াই করার’ অঙ্গীকার করেন। আসন্ন ভোটে লড়বেন কনজারভেটিভ পার্টির এ নেতাও।

আগামী অক্টোবর বা নভেম্বরে যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল।

আনুষ্ঠানিকভাবে পাঁচ সপ্তাহের নির্বাচনি প্রচারণার আগে পরের হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে পার্লামেন্ট স্থগিত হবে শুক্রবার। এর মানে হল যে কোনো আইন পাস করার জন্য মাত্র দুই দিন হাতে আছে।

বেশ কয়েক বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা ঋষি সুনাকের দল কনজারভেটিভ পার্টির প্রতি জনসমর্থন বড় ধাক্কার মুখে পড়েছে মুদ্রাস্ফীতিসহ নানা কারণে। এসব কারণেই অনেকের ধারণা, আগামী নির্বাচনের মাধ্যমে লেবার পার্টি এগিয়ে থাকতে পারে।

মন্তব্য

p
উপরে