× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Mamata is going to Meghalaya ahead of the election
hear-news
player
google_news print-icon

নির্বাচন সামনে রেখে মেঘালয়ে যাচ্ছেন মমতা

নির্বাচন-সামনে-রেখে-মেঘালয়ে-যাচ্ছেন-মমতা
তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: পিটিআই
মেঘালয়ের আগামী বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন বিজেপিকে সরাতে জোরোশোরে মাঠে নেমেছে তৃণমূল কংগ্রেস। দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বারবার মেঘালয় ছুটে গেছেন।

আগামী বছর অনুষ্ঠেয় মেঘালয় বিধানসভা নির্বাচনের আগে সংগঠনকে চাঙা করতে ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে রাজ্যটিতে যাচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেসপ্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নির্বাচন কমিশনের সূচি অনুযায়ী ২০২৩ সালের মার্চের মধ্যে ৬০ আসনের মেঘালয় বিধানসভায় ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ে পৌঁছে সোমবার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাড়ি পরিদর্শনে যাবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার শিলংয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরি মিলনায়তনে কর্মিসভা করবেন তিনি।

বিধানসভা নির্বাচনে অংশ না নিয়েও তৃণমূল কংগ্রেস রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল। কংগ্রেস ভেঙে মুকুল সাংমাসহ ১১ বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দেয়ায় মেঘালয় বিধানসভায় দলটি বিরোধীর মর্যাদা পায়।

রাজ্যটিতে সফর নিয়ে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘এটা একমাত্র রাজ্য যেখানে কংগ্রেস বিজেপিকে সমর্থন করে; বিজেপি কংগ্রেসকে সমর্থন করে। আমি মুকুল সাংমাকে ধন্যবাদ দেব যে, তিনি কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে এসেছেন; তৃণমূল কংগ্রেসকে বেছে নিয়েছেন।

‘আমার অনুরোধ, বিজেপিকে ওদের পথ দেখিয়ে দিন। সূর্য পূর্ব দিকে ওঠে। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হবে সেই পূর্ব দিক থেকেই।’

মেঘালয়ের আগামী বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন বিজেপিকে সরাতে জোরোশোরে মাঠে নেমেছে তৃণমূল কংগ্রেস। দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বারবার মেঘালয় ছুটে গেছেন।

এক মাস আগে মেঘালয়ে তৃণমূল কার্যালয় উদ্বোধন করেন অভিষেক। দলটি রাজ্যে সদস্য সংগ্রহের কাজ শুরু করেছে।

আগামী নির্বাচনে বড় ফ্যাক্টর মেঘালয়ের পশ্চিম গারো পাহাড়ের আদিবাসী ভোট। তৃণমূলসহ দলগুলোর নজর সে ভোটারদের দিকে।

তৃণমূলের প্রধান প্রতিপক্ষ বিজেপিকে সামনাসামনি টক্কর দিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে মেঘালয় সফরে যাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের জলসম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী মানস ভূঁইয়া। তাদের সঙ্গ দেবেন তৃণমূলের মেঘালয় রাজ্য সভাপতি চার্লস পাইনগ্রোপে এবং মেঘালয় বিধানসভার বিরোধী দলনেতা মুকুল সাংমা।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের ভাষ্য, মমতার তৃণমূল কংগ্রেসের লক্ষ্য ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা। তাই এখন থেকেই রাজ্যে রাজ্যে কোমর বেঁধে নেমেছে দলটি।

আরও পড়ুন:
ফের ডি-লিট পাচ্ছেন মমতা
কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব শুরু ১৫ ডিসেম্বর
রাজ্যবাসীকে বিজয়ার শুভেচ্ছা মমতার
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মমতার অভিনন্দন
মমতার বিরুদ্ধে জনস্বার্থ মামলা

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Adanis three institutions under surveillance in the capital market

পুঁজিবাজারে নজরদারিতে আদানির তিন প্রতিষ্ঠান

পুঁজিবাজারে নজরদারিতে আদানির তিন প্রতিষ্ঠান আদানি গ্রুপের লোগোর পাশে কর্ণধার গৌতম আদানি। ছবি: সংগৃহীত
অন্যান্য দিনের মতো বৃহস্পতিবারও আদানি গ্রুপের হোল্ডিং কোম্পানি আদানি এন্টারপ্রাইজেসের শেয়ার ২৬ শতাংশের বেশি দর হারিয়েছে। গ্রুপের অন্য কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দরপতনও অব্যাহত রয়েছে। সব মিলিয়ে ছয় দিনে পুঁজিবাজার থেকে কোম্পানিগুলোর ৮ লাখ ৭৬ হাজার কোটি রুপি উধাও হয়ে গেছে।

পুঁজিবাজারে দরপতনের হিড়িকের মধ্যে স্বল্পমেয়াদি বাড়তি নজরদারি ব্যবস্থায় (এএসএম) রাখা হয়েছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ধনকুবের গৌতম আদানির মালিকানাধীন আদানি গ্রুপের তিনটি প্রতিষ্ঠানকে।

ভারতের মুম্বাইভিত্তিক বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ (বিএসই) ও ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ (এনএসই) থেকে বৃহস্পতিবার পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার এ খবর জানায় এনডিটিভি।

নজরদারিতে থাকা প্রতিষ্ঠান তিনটি হলো- আদানি এন্টারপ্রাইজ, আদানি পোর্টস অ্যান্ড স্পেশাল ইকনোমিক জোন এবং আম্বুজা সিমেন্টস।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হিন্ডেনবার্গ রিসার্চ গ্রুপের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে আদানি গ্রুপের বিরুদ্ধে পুঁজিবাজারে লেনদেনে প্রতারণা ও শেয়ার দরে কারসাজির অভিযোগ করা হয়। এর পর থেকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আদানি গ্রুপের কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দরে ধস নামে।

ওই প্রতিবেদনকে মিথ্যা আখ্যা দিয়ে আদানি গ্রুপ বলেছে, তাদের কোম্পানিগুলো সব আইন মেনে চলছে।

বেশ কয়েকটি বিষয়ের ভিত্তিতে কোনো কোম্পানিকে এএসএমের আওতায় রাখা হয়। এর মধ্যে রয়েছে কোম্পানির আয়ের ওপর গ্রাহকদের অংশীদারত্ব, প্রাইস-আর্নিং রেশিও ইত্যাদি।

এনএসই ও বিএসই জানিয়েছে, আদানি গ্রুপের তিনটি কোম্পানি নির্ধারিত মানদণ্ডে পড়ায় এগুলোকে এএসএমের আওতাভুক্ত করা হয়েছে।

এদিকে অন্যান্য দিনের মতো বৃহস্পতিবারও আদানি গ্রুপের হোল্ডিং কোম্পানি আদানি এন্টারপ্রাইজেসের শেয়ার ২৬ শতাংশের বেশি দর হারিয়েছে। গ্রুপের অন্য কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দরপতনও অব্যাহত রয়েছে।

সব মিলিয়ে ছয় দিনে পুঁজিবাজার থেকে কোম্পানিগুলোর ৮ লাখ ৭৬ হাজার কোটি রুপি উধাও হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন:
সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন
সূচকের সঙ্গে কমল লেনদেনও
ডিএসই’র সতর্কতার পরও ছুটছে ঢাকা ইন্স্যুরেন্স
বিশ্বের শীর্ষ ধনীর পাঁচেও নেই আদানি
পুঁজিবাজারে কয়েক ঘণ্টায় ২ লাখ কোটি রুপি উধাও আদানির

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Kappan the popular journalist of Kerala released after 2 years

২ বছর পর কারামুক্ত কেরালার আলোচিত সাংবাদিক কাপ্পান

২ বছর পর কারামুক্ত কেরালার আলোচিত সাংবাদিক কাপ্পান কেরালার সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পান বৃহস্পতিবার লক্ষ্ণৌর কারাগার থেকে মুক্তি পান। ছবি: সংগৃহীত
উত্তর প্রদেশের রাজধানীর কারাগার থেকে বের হয়ে এনডিটিভিকে কাপ্পান বলেন, ‘আমাকে জেলে রেখে কার লাভ হয়েছে, জানি না। এ দুই বছর খুবই কঠিন ছিল, তবে আমি কখনোই শঙ্কিত ছিলাম না।’

ভারতের উত্তর প্রদেশে দলিত তরুণীকে ‘ধর্ষণের’ পর হত্যার বিষয়ে প্রতিবেদন করতে গিয়ে গ্রেপ্তার হওয়া কেরালার আলোচিত সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পান বৃহস্পতিবার কারামুক্ত হয়েছেন।

দুই মামলায় জামিন পাওয়ার এক মাসের বেশি সময় পর লক্ষ্ণৌর বিশেষ আদালত কাপ্পানের মুক্তির আদেশে সই করে বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

উত্তর প্রদেশের রাজধানীর কারাগার থেকে বের হয়ে এনডিটিভিকে কাপ্পান বলেন, ‘নির্মম আইনের বিরুদ্ধে লড়াই অব্যাহত রাখব। জামিন পাওয়ার পরও তারা আমাকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে।

‘আমাকে জেলে রেখে কার লাভ হয়েছে, জানি না। এ দুই বছর খুবই কঠিন ছিল, তবে আমি কখনোই শঙ্কিত ছিলাম না।’

কারাগার থেকে কাপ্পানের মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল বুধবার সন্ধ্যায়, তবে অর্থপাচার প্রতিরোধবিষয়ক বিশেষ আদালতের বিচারক বার কাউন্সিল নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত থাকায় মুক্তির আদেশে সই করতে পারেননি।

উত্তর প্রদেশে দলিত তরুণীকে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের’ পর হত্যার সংবাদ সংগ্রহ করতে ঘটনাস্থল হাথরাসে যাওয়ার পথে ২০২০ সালের অক্টোবরে গ্রেপ্তার হন সিদ্দিক কাপ্পান।

রাজ্য পুলিশ সে সময় জানিয়েছিল, দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি করা ঘটনা কাভার করতে যাওয়া সাংবাদিক হাথরাসে অস্থিরতা তৈরি করতে যাচ্ছিলেন।

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগের দুই সপ্তাহ পর দিল্লির একটি হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছিল দলিত তরুণীর। পরে মধ্যরাতে তরুণীর শেষকৃত্য সম্পন্ন করে হাথরাস জেলা প্রশাসন, যাকে অনেকে ঘটনা আড়াল করার চেষ্টা হিসেবে অভিহিত করে ব্যাপক সমালোচনা করে যোগী আদিত্যনাথের নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকারের।

কাপ্পানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ করা হয়, যাকে অভিযুক্ত করা হয় সন্ত্রাসবিরোধী কঠোর আইন ইউএপিএতে। নিষিদ্ধ সংগঠন পিপল’স ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার কাছ থেকে অর্থ গ্রহণের অভিযোগে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে তার নামে অর্থ পাচারের মামলা করে ভারতের অর্থ গোয়েন্দা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

এ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠনিক কোনো অভিযোগ গঠন না করায় গত বছরের সেপ্টেম্বরে তাকে জামিন দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন:
উত্তর প্রদেশে সড়কে গেল ৩১ প্রাণ
দলিত বোনদের ধর্ষণ ও হত্যায় ভেঙে পড়েছে পরিবারটি
বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ-হত্যা দলিত ২ বোনকে
গাছে ঝুলছিল দুই বোনের নিথর দেহ
মায়ের হত্যার বিচার চেয়ে রক্তে লেখা চিঠি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
14 dead in multi storey building fire in India

ভারতে বহুতল ভবনে আগুনে ১৪ মৃত্যু

ভারতে বহুতল ভবনে আগুনে ১৪ মৃত্যু ভারতের ঝাড়খণ্ডের বহুতল ভবনে ধরা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে ফায়ার সার্ভিসের প্রায় ৪০টি ইউনিট। ছবি: পিটিআই
আগুনে হতাহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করে টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, ‘ধানবাদে আগুনে প্রাণহানির ঘটনায় (আমি) গভীরভাবে শোকাহত। স্বজন হারানো লোকজনের প্রতি আমার সমবেদনা। অসুস্থরা দ্রুত আরোগ্য লাভ করুক।’

ভারতের ঝাড়খণ্ডের ধানবাদ এলাকায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভয়াবহ আগুনে ১০ নারী ও তিন শিশুসহ কমপক্ষে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজ্যের মুখ্যসচিব সুখদেব সিং প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়াকে (পিটিআিই) বিষয়টি জানিয়েছেন বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

সুখদেব বলেন, ‘মৃতের সংখ্যা এ মুহূর্তে ১৪ এবং ১১ জন চিকিৎসাধীন। আগুনের প্রকৃত কারণ জানা যায়নি।’

আগুনে হতাহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করে টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, ‘ধানবাদে আগুনে প্রাণহানির ঘটনায় (আমি) গভীরভাবে শোকাহত। স্বজন হারানো লোকজনের প্রতি আমার সমবেদনা। অসুস্থরা দ্রুত আরোগ্য লাভ করুক।’

ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সরেন জানান, জেলা প্রশাসন তাৎক্ষণিক কাজ শুরু করেছে। অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়, ঝাড়খণ্ডের রাজধানী রাঁচি থেকে প্রায় ১৬০ কিলোমিটার দূরে জরাফাতাক এলাকায় ‘আশীর্বাদ টাওয়ার’ নামের ১৩ তলা ভবনে আগুন ধরে। সে আগুন নেভাতে কাজ করে ফায়ার সার্ভিসের প্রায় ৪০টি ইউনিট।

ধানবাদের জেলা প্রশাসক সন্দীপ কুমার জানান, ভবন থেকে আট থেকে ১০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে, যাদের শরীর মারাত্মক দগ্ধ হয়েছে।

আরও পড়ুন:
মোদিকে নিয়ে ডকুমেন্টারি ফের প্রদর্শন হায়দরাবাদ ইউনিভার্সিটিতে
গণিত শিক্ষক চাওয়া এই বিজ্ঞাপনই যেন এক জটিল প্রশ্নপত্র
নদীতে পরিবারের ৭ সদস্যের লাশ
গোহত্যা বন্ধ হলেই পৃথিবীর সমস্যা শেষ: ভারতের আদালত
কামরাঙ্গীরচরে জুতার কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Death toll rises to 100 in Peshawar

পেশাওয়ারে মিলল হামলাকারীর মাথা, নিহত বেড়ে ১০০

পেশাওয়ারে মিলল হামলাকারীর মাথা, নিহত বেড়ে ১০০ পাকিস্তানের পেশাওয়ারে মসজিদে হামলার পর চলছে উদ্ধারকাজ। ছবি: এএফপি
তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তানের (টিটিপি) এক সদস্য প্রাথমিক পর্যায়ে এ হামলার দায় স্বীকার করলেও পরে তা টিটিপির পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়।

পাকিস্তানের পেশাওয়ারের পুলিশ হেডকোয়ার্টের ভেতরে অবস্থিত মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ১০০ জনে দাঁড়িয়েছে। এরইমধ্যে সন্দেহভাজন হামলাকারীর মাথা উদ্ধার করার খবর জানিয়েছে পাকিস্তান পুলিশ।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার বেলা ৩টার পর ওই হামলা হয়।

হামলায় দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন এবং তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জিও টিভিকে পেশোয়ার ক্যাপিটাল সিটি পুলিশ অফিসার (সিসিপিও) মোহাম্মদ আইজাজ খান বলেন, বিস্ফোরণটি একটি আত্মঘাতী হামলা ছিল বলে মনে হচ্ছে। সন্দেহভাজন হামলাকারীর মাথা উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ এই হামলা নিন্দা জানিয়ে বলেন, যারা পাকিস্তানকে রক্ষা করার দায়িত্ব পালন করে, তাদের টার্গেট করে সন্ত্রাসীরা ভয় দেখাতে চায়।

তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তানের (টিটিপি) এক সদস্য প্রাথমিক পর্যায়ে এ হামলার দায় স্বীকার করলেও পরে তা টিটিপির পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়।

গত বছরের আগস্টে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা বাহিনীর এক অভিযানে নিহত হন পাকিস্তানি তালেবানের কমান্ডার উমর খালিদ। তার এক ভাই দাবি করেন, আত্মঘাতী বিস্ফোরণটি ওই ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই চালানো হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকাটিতে যোহর নামাজের সময় হামলাটি হয়। হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য।

গত বছরের মার্চে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের হামলা পেশাওয়ারের একটি শিয়া মসজিদে ৬৪ জন নিহত হন। ২০১৮ সালের পর এটি ছিল পাকিস্তানের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা।

আরও পড়ুন:
পাকিস্তানের মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৮৩
মসজিদে হামলার দায় স্বীকার পাকিস্তানি তালেবানের, নিহত বেড়ে ৪৬
পাকিস্তানে পুলিশ হেডকোয়ার্টার মসজিদে বোমা, নিহত ২৮
একাই ৩৩ আসনে লড়বেন ইমরান
প্রধানমন্ত্রী ইমরানের হেলিকপ্টার ব্যয় ১০০ কোটি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Death toll rises to 59 in Pakistan mosque attack

পাকিস্তানের মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৮৩

পাকিস্তানের মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৮৩ পাকিস্তানের মসজিদে সোমবার হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। ছবি: বিবিসি
প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ এই হামলা নিন্দা জানিয়ে বলেন, যারা পাকিস্তানকে রক্ষা করার দায়িত্ব পালন করে, তাদের টার্গেট করে সন্ত্রাসীরা ভয় দেখাতে চায়।

পাকিস্তানের পেশাওয়ারের পুলিশ হেডকোয়ার্টের ভেতরে অবস্থিত মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

সোমবার বেলা ৩টার পর ওই হামলা হয় বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বলছে, মঙ্গলবার আরও ২০ মরদেহ উদ্ধারের মধ্যদিয়ে এ হামলায় নিহতের সংখ্যা ৮৯ জনে পৌঁছেছে। উদ্ধার তৎপরতা চলছে। মৃত্যু আরও বাড়তে পারে।

হামলায় দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন এবং তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ এই হামলা নিন্দা জানিয়ে বলেন, যারা পাকিস্তানকে রক্ষা করার দায়িত্ব পালন করে, তাদের টার্গেট করে সন্ত্রাসীরা ভয় দেখাতে চায়।

তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তানের (টিটিপি) এক সদস্য প্রাথমিক পর্যায়ে এ হামলার দায় স্বীকার করলেও পরে তা টিটিপির পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়।

গত বছরের আগস্টে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা বাহিনীর এক অভিযানে নিহত হন পাকিস্তানি তালেবানের কমান্ডার উমর খালিদ। তার এক ভাই দাবি করেন, আত্মঘাতী বিস্ফোরণটি ওই ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই চালানো হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকাটিতে যোহর নামাজের সময় হামলাটি হয়। হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য।

গত বছরের মার্চে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের হামলা পেশাওয়ারের একটি শিয়া মসজিদে ৬৪ জন নিহত হন। ২০১৮ সালের পর এটি ছিল পাকিস্তানের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা।

আরও পড়ুন:
মসজিদে হামলার দায় স্বীকার পাকিস্তানি তালেবানের, নিহত বেড়ে ৪৬
পাকিস্তানে পুলিশ হেডকোয়ার্টার মসজিদে বোমা, নিহত ২৮
একাই ৩৩ আসনে লড়বেন ইমরান

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The death toll of the Pakistani Taliban who claimed responsibility for the attack on the mosque rose to 46

মসজিদে হামলার দায় স্বীকার পাকিস্তানি তালেবানের, নিহত বেড়ে ৪৬

মসজিদে হামলার দায় স্বীকার পাকিস্তানি তালেবানের, নিহত বেড়ে ৪৬ পেশাওয়ারে মসজিদে হামলার ঘটনায় হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য। ছবি: সংগৃহীত
কর্মকর্তারা জানান, আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকাটিতে যোহর নামাজের সময় হামলাটি হয়। হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য।

পাকিস্তানের পেশাওয়ারের পুলিশ হেডকোয়ার্টের ভেতরে অবস্থিত একটি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬ জনে দাঁড়িয়েছে। সোমবারের এ হামলায় আহত হয়েছেন আরও ১৫০ জন।

এ হামলার দায় স্বীকার করে নিয়েছে তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি)। গত বছরের আগস্টে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা বাহিনীর এক অভিযানে নিহত হন পাকিস্তানি তালেবানের কমান্ডার উমর খালিদ। তার এক ভাই দাবি করেছেন যে, আত্মঘাতী বিস্ফোরণটি ওই ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই চালানো হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকাটিতে যোহর নামাজের সময় হামলাটি হয়। হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য।

পেশাওয়ারের লেডি রিডিং হাসপাতাল বোমা হামলার ঘটনায় ৪৬ জন নিহতের খবর জানিয়েছে। তবে পুলিশের হিসাবে হামলায় নিহতের সংখ্যা ৩৮।

এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ।

গত বছরের মার্চে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের হামলা পেশাওয়ারের একটি শিয়া মসজিদে ৬৪ জন নিহত হন। ২০১৮ সালের পর এটি ছিল পাকিস্তানের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা।

আরও পড়ুন:
বিপিএল খেলা ওয়াহাব পাকিস্তানের মন্ত্রী
পতনের দ্বারপ্রান্তে পাকিস্তানের অর্থনীতি: প্রতিবেদন
পাকিস্তানে ২৫৫ রুপিতে মিলছে এক ডলার
আলো ফিরেছে পাকিস্তানে
২৪ ঘণ্টা পরও বিদ্যুৎ ফেরেনি পাকিস্তানের অনেক এলাকায়

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
25 killed in attack on police headquarters mosque in Pakistan

পাকিস্তানে পুলিশ হেডকোয়ার্টার মসজিদে বোমা, নিহত ২৮

পাকিস্তানে পুলিশ হেডকোয়ার্টার মসজিদে বোমা, নিহত ২৮ আত্মঘাতী হামলার পর ধসে পড়েছে পেশাওয়ারের মসজিদটির দেয়াল। ছবি: এএফপি
এএফপির প্রতিবেদক দুটি মরদেহকে অ্যাম্বুলেন্স উঠাতে দেখেছেন। তিনি জানান, হামলার পর মসজিদটির দেয়াল ধসে পড়েছে।

পাকিস্তানের পেশাওয়ারের পুলিশ হেডকোয়ার্টের ভেতরে অবস্থিত একটি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ২৮ জন নিহত হয়েছেন। সোমবারের এ হামলায় আহত হয়েছেন আরও ১২০ জন।

স্থানীয় হাসপাতালের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকাটিতে আসরের নামাজের সময় হামলাটি হয়।

এএফপির প্রতিবেদক দুটি মরদেহকে অ্যাম্বুলেন্স উঠাতে দেখেছেন। তিনি জানান, হামলার পর মসজিদটির দেয়াল ধসে পড়েছে।

পেশাওয়ারের সরকারি হাসপাতালের মুখপাত্র মুহাম্মাদ আসিম খান বলেন, ‘জরুরি পরিস্থিতি। আমরা একের পর এক মরদেহ পাচ্ছি।’

গত বছরের মার্চে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের হামলা পেশাওয়ারের একটি শিয়া মসজিদে ৬৪ জন নিহত হন। ২০১৮ সালের পর এটি ছিল পাকিস্তানের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা।

আরও পড়ুন:
পাকিস্তানে জ্বালানির দামে রেকর্ড
রিজওয়ানার ওপর হামলার ঘটনায় ৫২ বিশিষ্টজনের উদ্বেগ
জারদারির বিরুদ্ধে হত্যার নতুন চক্রান্তের অভিযোগ ইমরানের
বিপিএল খেলা ওয়াহাব পাকিস্তানের মন্ত্রী
ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

মন্তব্য

p
উপরে