× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Imran Khan declared ineligible for election for five years
google_news print-icon

ইমরান খানকে নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা

ইমরান-খানকে-নির্বাচনে-অযোগ্য-ঘোষণা
তোশাখানার উপহার বিক্রি করায় ইমরানকে নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করেছে ইসিপি। ছবি : সংগৃহীত
তোশাখানার উপহার বিক্রির অভিযোগ রয়েছে ইমরান খানের বিরুদ্ধে। তিনি নিজেও সেপ্টেম্বরে নির্বাচন কমিশনে পাঠানো এক চিঠিতে তা স্বীকার করেছেন। এই ইস্যুতে এবার ৫ বছরের জন্য নির্বাচনে তাকে নিষিদ্ধ করা হলো। ফলে সামনের জাতীয় নির্বাচনে তিনি অংশ নিতে পারবেন না।

রাষ্ট্রীয় উপহার সংক্রান্ত (তোশাখানা) তথ্যের বিষয়ে ভুল তথ্য দেয়ায় পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের নেতা ইমরান খানকে পাঁচ বছরের জন্য অযোগ্য ঘোষণা করেছে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি)। ফলে সামনের জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না তিনি।

দেশটির প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) সিকান্দার সুলতান রাজার নেতৃত্বে ৪ সদস্য ইসলামাবাদের নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে শুক্রবার এই রায় ঘোষণা করা হলো।

যদিও সিদ্ধান্তটি বেঞ্চের ৫ সদস্যের সর্বসম্মতির সিদ্ধান্ত। তবে আজকের ঘোষণায় পাঞ্জাবের সদস্য উপস্থিত ছিলেন না।

রায়ে একই সঙ্গে জানানো হয়েছে, ভুল তথ্যের জন্য ইমরানের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হবে।

নির্বাচন কমিশনের এই রায় ঘোষণার পরপরই পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরী নির্বাচন কমিশনের বাইরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জনসাধারণকে তাদের অধিকার আদায়ের জন্য বাড়ি থেকে রাস্তায় নামতে বলেছেন।

ইসিপির এই রায়কে ২২ কোটি মানুষের মুখে চপেটাঘাত হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন ফাওয়াদ।

তিনি বলেন, ‘আজ থেকে বিপ্লবের সূচনা। কেউই ইমরান খানকে অযোগ্য ঘোষণা করতে পারে না। এই এখতিয়ার কেবল জনগণের।’

তিনি অভিযোগ করেছেন, এই রায় নওয়াজ শরিফ লিখেছে আর তার চাকররা স্বাক্ষর করেছে।

জনসাধরণ এই সিদ্ধান্ত মানবে না বলে দাবি করেন ফাওয়াদ।

পিটিআই নেতা শাহবাজ গিল বলেছেন, পিটিআই রায়ের বিরুদ্ধে প্রতিটি ফোরামে যোগাযোগ করবে।

তিনি আরো বলেন, ইমরানকে শুধু একটি আসন থেকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে, রাজনীতি নয়।

রায়ের আগে ইসিপিতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল।

ইসিপির ঘোষণার আগে, টেলিভিশন ফুটেজে পিটিআই নেতাদের কমিশনের সচিবালয়ে পৌঁছানোর জন্য গেটের ওপরে উঠতে দেখা গেছে।

তোশাখানা উপহার ও বিক্রি থেকে আয়ের বিবরণ বিস্তারিতভাবে দেননি ইমরান, আগস্টে এমন অভিযোগের কথা জানিয়েছিল শাহবাজ নেতৃত্বাধীন সরকার। পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) সিকান্দার সুলতান রাজার কাছে চিঠি পাঠিয়েছিল সরকার।

১৯৭৪ সালে প্রতিষ্ঠিত তোশাখানা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণাধীন একটি বিভাগ, অন্যান্য সরকার ও রাজ্যের প্রধান এবং বিদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তি, শাসক, সংসদ সদস্য, আমলা ও কর্মকর্তাদের দেওয়া মূল্যবান উপহার সংরক্ষণ করে।

তোশাখানার নিয়ম অনুসারে, প্রাপ্ত উপহার/উপহার ও অন্যান্য এই জাতীয় উপকরণগুলোর বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে প্রতিবেদন দাখিল করতে হয়।

পিটিআই সরকারে থাকাকালীন, ২০১৮ সালে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ইমরানকে দেওয়া উপহারের বিবরণ প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক ছিল দলটি।

৮ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া লিখিত জবাবে, ইমরান প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন তার প্রাপ্ত উপহারের কমপক্ষে চারটি বিক্রি করার কথা স্বীকার করেছিলেন।

আরও পড়ুন:
ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা পাকিস্তানের
উইলিয়ামসন-ফিলিপস জুটি ভাঙলেন নাওয়াজ
পাকিস্তান সফরে ইংল্যান্ডের টেস্ট দলে লিভিংস্টোন
বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে ফিরছেন শাহিন আফ্রিদি
পাকিস্তানকে উড়িয়ে দারুণ জয় নিউজিল্যান্ডের

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Allegation of rape of Nedi dog goes viral

নেড়ি কুকুরকে ধর্ষণের অভিযোগ, ভিডিও ভাইরাল

নেড়ি কুকুরকে ধর্ষণের অভিযোগ, ভিডিও ভাইরাল প্রতীকী ছবি
সহকারী পুলিশ সুপার মনিশ কুমার বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত শুরু হয়েছে। আইপিসি ও প্রাণী আইনে ব্যবস্থা নেয়া হাবে।

ভারতের বিহারে একটি নেড়ি কুকুরকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

রাজ্যের পাটনা শহরের ফুলওয়ারী শরীফের ফয়সাল কলোনীতে গত ৮ মার্চ ওই ঘটনা ঘটে বলে পুলিশের বরাতে সোমবার জানিয়েছে এনডিটিভি।

এরই মধ্যে বীভৎস এ ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। উদ্বেগের কথা বলছেন অনেকে।

সিসিটিভি ফুটেজে একজন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে ওই প্রাণীটিকে ধর্ষণ করতে দেখা যায়। এরই প্রেক্ষাপটে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানায় একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা।

পরে পাটনা পুলিশ বিষয়টি তদন্ত শুরু করে।

সহকারী পুলিশ সুপার মনিশ কুমার বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত শুরু হয়েছে। আইপিসি ও প্রাণী আইনে ব্যবস্থা নেয়া হাবে।

আরও পড়ুন:
শিশু ধর্ষণের অভিযোগে চাচা আটক
নেশাযুক্ত খাবার খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার
খুকৃবির সাবেক ভিসি, বর্তমান রেজিস্ট্রারের নামে ধর্ষণ মামলা নেয়ার নির্দেশ

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
A leopard from Pakistan is threatening to enter India

ভারতে ঢুকে ভয় দেখাচ্ছে পাকিস্তানের চিতা

ভারতে ঢুকে ভয় দেখাচ্ছে পাকিস্তানের চিতা ফাইল ছবি
চিতাবাঘের অনুপ্রবেশের ভিডিও ছড়িয়েছে সামজিক যোগাযোগমাধ্যমেও। সীমান্তরক্ষী বাহিনীদের সদস্যদের সঙ্গে সঙ্গে এ নিয়ে ভীতু হয়ে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও।

মাঝে-মধ্যেই পাকিস্তান থেকে সীমান্ত দিয়ে ভারতে জঙ্গি ঢোকার খবর পাওয়া যায়। এবারও সীমান্ত দিয়ে ঢোকার এক খবর, তবে জঙ্গি সদস্য নয়। পাকিস্তানের একটি চিতাবাঘ ঢুকে পড়েছে ভারতে।

জম্মু-কাশ্মীরের সাম্বা জেলার রামগড় সাব সেক্টরে সীমান্ত পেরিয়ে ওই প্রাণীটি শনিবার সন্ধ্যায় ভারতে ঢুকেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছ এএনআই।

চিতাবাঘের অনুপ্রবেশের ভিডিও ছড়িয়েছে সামজিক যোগাযোগমাধ্যমেও। সীমান্তরক্ষী বাহিনীদের সদস্যদের সঙ্গে সঙ্গে এ নিয়ে ভীতু হয়ে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও।

ভিডিওতে দেখা যায়, প্রায় হামাগুড়ি দিয়ে কাঁটাতারের নীচ দিয়ে ভারতে ঢুকে পড়ে চিতাবাঘটি। তার পর এটি জঙ্গলে পালিয়ে যায়।

প্রশাসন স্থানীয়দের সতর্ক করেছে। নেয়া হয়েছে বাড়তি ব্যবস্থা।

ভিডিওতে একজন মন্তব্য করেছেন, ‘এ ধরনের অনুপ্রবেশ চলতেই পারে। আরেকজন লিখেছেন, চিতাবাঘটিও আর পাকিস্তানে থাকতে চাইছে না। সে দেশে নিজেকে নিরাপদ মনে করছে না।

আরও পড়ুন:
সুন্দরবনে বাঘের হামলা,হাসপাতালে মৃত্যু জেলের
সুন্দরবনে বাঘ গণনার ক্যামেরা চুরি
সুন্দরবনে মৃত বাঘ উদ্ধার

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Modi praised Sheikh Hasinas leadership

শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করলেন মোদি

শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করলেন মোদি শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারত থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মৈত্রী পাইপলাইন উদ্বোধন করেন। ছবি: পিআইডি
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ গত কয়েক বছরে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছে। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তার দূরদৃষ্টির জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র্র মোদি বলেছেন, ‘ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী পাইপলাইন দুই দেশের মধ্যে শক্তি নিরাপত্তায় সহযোগিতা বাড়াবে। আমি নিশ্চিত যে এই পাইপলাইন বাংলাদেশের উন্নয়নকে আরও ত্বরান্বিত করবে এবং উভয় দেশের মধ্যে ক্রমবর্ধমান সংযোগের একটি চমৎকার উদাহরণ হয়ে থাকবে।’

শনিবার সন্ধ্যায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যৌথভাবে আন্তঃসীমান্ত জ্বালানি পাইপলাইন উদ্বোধনের সময় নরেন্দ্র মোদি এমন মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশের ব্যাপক অর্থনৈতিক অগ্রগতির প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ গত কয়েক বছরে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছে। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তার দূরদৃষ্টির জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।’

তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক ভারতীয় এটি নিয়ে গর্বিত এবং আমরা আনন্দিত যে আমরা বাংলাদেশের উন্নয়ন যাত্রায় অবদান রাখতে পেরেছি।

‘ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইন ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে সূচনা করা হয়। এই পাইপলাইনের মাধ্যমে ডিজেল সরবরাহের খরচ কমবে এবং সরবরাহের কার্বন ফুটপ্রিন্টও কমবে।’

দুই বন্ধুত্বপূর্ণ প্রতিবেশীর মধ্যে সংযোগ বৃদ্ধির তথ্য তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, দুই দেশ একসঙ্গে এ ক্ষেত্রে অনেক অগ্রগতি অর্জন করেছে। দুইদেশের মধ্যে রেল যোগাযোগ রেল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বাংলাদেশে কোভিড ভ্যাকসিন ও অক্সিজেন প্রেরণে ভারত সহায়তা করেছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীর একদিন পর এ পাইপলাইনের উদ্বোধন হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি এই উদ্বোধনকে এক শুভ সমাপতন বলে উল্লেখ করেন।

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা রূপকল্পে সমগ্র অঞ্চলের সম্প্রীতি উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি অন্তর্ভুক্ত ছিল। এই যৌথ প্রকল্প সে দৃষ্টিভঙ্গির একটি নিখুঁত দৃষ্টান্ত।’

মোদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এই প্রকল্পের বিষয়ে তার সার্বক্ষণিক দিকনির্দেশনার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং দুই দেশের জনগণের স্বার্থে তার সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন:
মৈত্রী পাইপলাইন পারস্পরিক সহযোগিতার মাইলফলক: প্রধানমন্ত্রী
আন্তঃসীমান্ত পাইপলাইন উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
AK 47 recovered from Imrans house

ইমরানের বাড়ি থেকে একে-৪৭ উদ্ধার

ইমরানের বাড়ি থেকে একে-৪৭ উদ্ধার পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বাড়িতে পুলিশের অভিযান। ছবি: সংগৃহীত
পাঞ্জাব পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) উসমান আনোয়ার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, পুলিশ জামান পার্কে তল্লাশি ও পরিচ্ছন্নতা অভিযান শেষ করেছে । সেখান থেকে একে-৪৭ রাইফেল এবং প্রচুর সংখ্যক বুলেট পাওয়া গেছে।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বাড়ি থেকে একে-৪৭ ও গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার তোশাখানা মামলায় হাজিরা দিতে ইসলামাবাদের একটি দায়রা আদালতের উদ্দেশে বের হওয়ার পরই ইমরানের জামান পার্কের বাড়িতে অভিযান চালায় বাহিনীটি।

এসময় পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) ৬০ কর্মীকে আটক করা হয়।

পাঞ্জাব পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) উসমান আনোয়ার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, পুলিশ জামান পার্কে তল্লাশি ও পরিচ্ছন্নতা অভিযান শেষ করেছে । সেখান থেকে একে-৪৭ রাইফেল এবং প্রচুর সংখ্যক বুলেট পাওয়া গেছে।

পিটিআই পুলিশের অভিযানের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখা যায়, তার বাড়ির আঙ্গিনায় থাকা নেতা-কর্মীদের পেটাচ্ছেন আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

ইমরান খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৮ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে পাওয়া উপহারগুলো রাষ্ট্রীয় কোষাগার তোশাখানা থেকে নিয়ে সেগুলো বিক্রি করেছেন তিনি। তবে ইমরান এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

আরও পড়ুন:
সমর্থকদের রাস্তায় নামতে বললেন ইমরান
ইমরানকে গ্রেপ্তারে ফের অভিযান, তুমুল সংঘর্ষ
বাংলাদেশি ব্যাটারদের স্বার্থপর বলে খোঁচা সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটারের
লাহোরে অভিযানে ইমরানের দলের কয়েকজন কর্মী আটক
দেয়াল টপকে পালান ইমরান, দাবি পাকিস্তানি মন্ত্রীর

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Mamata Akhileshs unity excluding Congress

কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে মমতা, অখিলেশের ঐক্য

কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে মমতা, অখিলেশের ঐক্য কলকাতায় মমতার সঙ্গে সাক্ষাতের একটি মুহূর্তে এসপির প্রধান অখিলেশ যাদব। ছবি: টুইটার
তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এনডিটিভিকে বলেন, ‘রাহুল গান্ধী বিদেশে মন্তব্য করেছেন এবং এর জেরে তার ক্ষমা চাওয়ার আগ পর্যন্ত বিজেপি পার্লামেন্টের কার্যক্রম চলতে দেবে না। এর অর্থ হলো তারা কংগ্রেসকে ব্যবহার করে পার্লামেন্টকে অকার্যকর করে রাখতে চায়। বিজেপি চায় রাহুল গান্ধীকে বিরোধীদের মুখ হিসেবে দেখাতে, যাতে তারা সুবিধা করতে পারে। (২০২৪ সালের নির্বাচনের জন্য) প্রধানমন্ত্রী পদে কাউকে ঠিক করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার কোনো দরকার নেই।’

আগামী বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে অনুষ্ঠেয় লোকসভা নির্বাচনের আগে ভারতের প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক শক্তি হিসেবে বিবেচিত কংগ্রেসকে ছাড়াই ঐক্যবদ্ধভাবে কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তিনটি রাজনৈতিক দল।

কলকাতায় শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে উত্তর প্রদেশভিত্তিক সমাজবাদী পার্টির (এসপি) প্রধান অখিলেশ যাদবের বৈঠকের পর এ সিদ্ধান্ত হয়।

উত্তর প্রদেশের রাজনীতির অন্যতম প্রাণপুরুষ প্রয়াত মুলায়ম সিং যাদবের ছেলে অখিলেশের সঙ্গে বৈঠক করা মমতা আগামী সপ্তাহে ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী ও বিজু জনতা দলের প্রধান নবিন পট্টানায়েকের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়, কংগ্রেসের আইনপ্রণেতা রাহুল গান্ধীকে বিরোধীদের প্রধান মুখ হিসেবে দেখাতে বিজেপি যে চেষ্টা চালাচ্ছে, তাকে প্রতিহত করতে চাইছেন মমতা ও তার মিত্ররা।

সম্প্রতি লন্ডনে দেয়া এক বক্তব্যে রাহুল গান্ধী অভিযোগ করেন, ভারতের পার্লামেন্টে কথা বলার সময় বিরোধী দলগুলোর নেতাদের মাইক্রোফোন মিউট করে দেয়া হয়। ওই বক্তব্যের জন্য রাহুল গান্ধীকে ক্ষমা চাইতে বলছে বিজেপি। এমন বাস্তবতায় কংগ্রেসের বাইরে অনেক বিরোধী দল মনে করছে, রাহুল গান্ধীর ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে তাদের লক্ষ্যবস্তু বানাচ্ছে ক্ষমতাসীন দলটি।

এ নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এনডিটিভিকে বলেন, ‘রাহুল গান্ধী বিদেশে মন্তব্য করেছেন এবং এর জেরে তার ক্ষমা চাওয়ার আগ পর্যন্ত বিজেপি পার্লামেন্টের কার্যক্রম চলতে দেবে না। এর অর্থ হলো তারা কংগ্রেসকে ব্যবহার করে পার্লামেন্টকে অকার্যকর করে রাখতে চায়। বিজেপি চায় রাহুল গান্ধীকে বিরোধীদের মুখ হিসেবে দেখাতে, যাতে তারা সুবিধা করতে পারে। (২০২৪ সালের নির্বাচনের জন্য) প্রধানমন্ত্রী পদে কাউকে ঠিক করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার কোনো দরকার নেই।’

তিনি বলেন, কংগ্রেসকে বিরোধীদের ‘বিগ বস’ মনে করাটা হবে ভুল।

নবীন আরও বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২৩ মার্চ নবিন পট্টনায়েকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আমরা বিষয়টি (বিজেপি ও কংগ্রেসের সঙ্গে সমদূরত্ব বজায় রাখা) নিয়ে অন্য বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে কথা বলব।

‘আমরা এটাকে তৃতীয় শক্তি বলছি না, তবে বিজেপিকে দেখে নেয়ার ক্ষমতা আছে আঞ্চলিক দলগুলোর।’

সুদীপের স্বরে কথা বলেছেন অখিলেশ যাদবও। তার ভাষ্য, কংগ্রেস ও বিজেপির সঙ্গে একই দূরত্ব বজায় রাখতে চান তারা।

আরও পড়ুন:
কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব শুরু ১৫ ডিসেম্বর
মোদি-শাহ মোকাবিলায় কতটা শক্তিধর খারগে?
অবশেষে গান্ধী পরিবারের বাইরে কংগ্রেস নেতৃত্ব
রাজ্য কংগ্রেস প্রধানদের বিরুদ্ধে অন্যায্য আচরণের অভিযোগ শশী থারুরের
ক্রান্তিকালে কান্ডারির খোঁজে কংগ্রেস

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Groom walks all night to brides house during transport strike

পরিবহন ধর্মঘটে সারা রাত হেঁটে কনের বাড়িতে বর

পরিবহন ধর্মঘটে সারা রাত হেঁটে কনের বাড়িতে বর ভারতের ওড়িশায় পরিবহন ধর্মঘটের কারণে সারারাত হেঁটে কনের বাড়িতে পৌঁছান বর ও তার পরিবারের সদস্যরা। ছবি: সংগৃহীত
বরের পরিবারের এক সদস্য বলেন, পরিবহন ধর্মঘট থাকায় কোনো উপায় ছিল না আমাদের। আমরা সারারাত হেঁটে কনের বাড়িতে পৌঁছাই।

পরিবহন ধর্মঘটের মধ্যে বিয়ের আয়োজন করে বিপাকে এক যুবক। কনের বাড়িতে পৌঁছাতে সারা রাত হেঁটেছেন তিনি। সেই সঙ্গে হাঁটতে হয়েছে তার পরিবারের সদস্যদেরও।

এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের ওড়িশা রাজ্যের রায়গড়া জেলায়।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, বরের বাড়ি রায়গড়ার সুনাখান্দি গ্রামে। সেখান থেকে কনের বাড়ির দূরত্ব ২৮ কিলোমিটার দূরের দিবলাপদুতে। পরিবহন ধর্মঘটের মধ্যে গাড়ির ব্যবস্থা না করতে পারায় বৃহস্পতিবার রাত থেকে বর ও তার পরিবারের সদস্যরা হাঁটা শুরু করেন। তারা কনের বাড়িতে পৌঁছান শুক্রবার সকালে। সেদিন সকালেই বিয়ে সম্পন্ন হয়।

এ ঘটনার একটি ভিডিও এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

বরের পরিবারের এক সদস্য বলেন, পরিবহন ধর্মঘট থাকায় কোনো উপায় ছিল না আমাদের। আমরা সারারাত হেঁটে কনের বাড়িতে পৌঁছাই।

বরের পরিবারের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, একরাত হেঁটে বিয়ে বাড়িতে পৌঁছালেও ধর্মঘট শেষ না হওয়া পর্যন্ত তারা আর বাড়ি ফিরবেন না।

ইন্স্যুরেন্স, পেনশন ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধার দাবিতে বুধবার থেকে ওড়িশায় পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে দ্য ড্রাইভার একতা মহাসংঘ নামের চালকদের একটি সংগঠন। এরইমধ্যে রাজ্য সরকারের প্রতিরশ্রুতিতে এই ধর্মঘট ৯০ দিনের জন্য স্থগিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
স্ত্রীর প্রেমিকের বউকে বিয়ে করে প্রতিশোধ
ঘুষসহ ধরা ছেলে, বিজেপির বিধায়কের বাড়িতে কোটি কোটি রুপি
নির্বাচন কমিশন গঠনে ভারতে ঐতিহাসিক রায়
ত্রিপুরা ও নাগাল্যান্ড বিজেপির,ঝুলছে মেঘালয়
ভোলার হোটেল থেকে উদ্ধার ভারতীয় নাগরিকের মরদেহ হস্তান্তর

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Imrans bail in 9 cases in Lahore High Court

লাহোর হাইকোর্টে ৯ মামলায় জামিন ইমরানের

লাহোর হাইকোর্টে ৯ মামলায় জামিন ইমরানের পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ছবি: সংগৃহীত
পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিও টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ইমরানের নয়টি মামলার মধ্যে আটটি সন্ত্রাসবাদ আইনে দায়ের করা হয়েছিল। এর মধ্যে ইসলামাবাদের পাঁচ মামলায় ২৪ মার্চ পর্যন্ত ও লাহোরের ৩ মামলায় ২৭ মার্চ পর্যন্ত আগাম জামিন পান ৭০ বছর বয়সী ইমরান।

লাহোর ও ইসলামাবাদে করা নয় মামলায় আগাম জামিন পেলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

শুক্রবার ইসলামাবাদ হাইকোর্ট তোশাখানা মামলায় ইমরানের জামিন স্থগিত করার পরই তিনি লাহোরের সর্বোচ্চ আদালতে হাজির হন।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিও টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ইমরানের নয়টি মামলার মধ্যে আটটি সন্ত্রাসবাদ আইনে দায়ের করা হয়েছিল। এর মধ্যে ইসলামাবাদের পাঁচ মামলায় ২৪ মার্চ পর্যন্ত ও লাহোরের ৩ মামলায় ২৭ মার্চ পর্যন্ত আগাম জামিন পান ৭০ বছর বয়সী ইমরান।

শুক্রবার বিকেলে বুলেটপ্রুফ গাড়িতে চড়ে লাহোর হাইকোর্টে যান পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান। সেখানে বিচারপতি তারিক সেলিম শেখ ও বিচারপতি ফারুক হায়দারের বেঞ্চ সন্ত্রাসবাদ আইনে করা মামলায় তার জামিন মঞ্জুর করেন। এছাড়া বিচারপতি সেলিমের বেঞ্চ ফৌজদারি মামলায় ইমরানকে জামিন দেন।

তোশাখানা মামলায় ইমরানকে গ্রেপ্তারের জন্য লাহোরে দুবার অভিযান চালিয়ে ব্যর্থ হয় ইসলামাবাদ পুলিশ। শেষবার ইমরানকে গ্রেপ্তার করতে গেলে তার দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়।

তীব্র অর্থনৈতিক সংকটের পাশাপাশি পাকিস্তানে রাজনৈতিক সংকট আরও ঘনীভূত হচ্ছে । অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় দেশটি আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণ পেতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে। এদিকে আগাম নির্বাচনের দাবিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফকে চাপ দিয়ে যাচ্ছেন ইমরান। সেইসঙ্গে দেশটিতে পুলিশকে লক্ষ্য করে একের পর এক হামলা চালাচ্ছে পাকিস্তানি তালেবান।

গত বছর অনস্থাভোটে হেরে ক্ষমতাচ্যুত হন ইমরান খান। ওই বছরের নভেম্বরে একটি র‍্যালিতে অংশ নিয়ে গুলিবিদ্ধ হন তিনি। এ জন্য পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীকে দায়ী করেন ইমরান।

আরও পড়ুন:
ইমরানের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা স্থগিত
পুলিশ সরে যাওয়ায় গ্যাস মাস্ক পরে বাসার বাইরে ইমরান
ইমরানকে ঘিরে সমর্থকরা, দুই দিন ধরে গ্রেপ্তারের চেষ্টায় পুলিশ
ইমরানের ডাকে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ছে পাকিস্তানে
সমর্থকদের রাস্তায় নামতে বললেন ইমরান

মন্তব্য

p
উপরে