× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ পৌর নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট

আন্তর্জাতিক
NATO chief fears protracted war in Ukraine
hear-news
player
print-icon

ইউক্রেনে দীর্ঘ যুদ্ধের শঙ্কা ন্যাটোপ্রধানের

ইউক্রেনে-দীর্ঘ-যুদ্ধের-শঙ্কা-ন্যাটোপ্রধানের
ন্যাটো মহাসচিব জেন্স স্টলটেনবার্গ। ছবি: সংগৃহীত
ন্যাটো মহাসচিব জেন্স স্টলটেনবার্গ বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান আমাদের মূল উদ্দেশ্যকে পরিষ্কার করে, যুক্তরাজ্যকে রক্ষা করা, স্থলে লড়াই ও যুদ্ধ জয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়া এবং শক্তি বৃদ্ধি করা, বাহিনীকে হুমকি দিয়ে রুশ আক্রমণ ঠেকানোর প্রয়োজনীয়তা।

ইউক্রেনে চলছে রুশ সামরিক অভিযান। পাল্টা প্রতিরোধ করার চেষ্টা করছে ইউক্রেনীয় সেনারাও। পশ্চিমা দেশগুলো সেনা না পাঠালেও ইউক্রেনীয় সেনাদের সমরাস্ত্র সরবরাহ করছে। লড়াইয়ের প্রায় ৪ মাস হয়ে গেলেও যুদ্ধবিরতির কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

এমন পরিস্থিতিতে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ন্যাটো মহাসচিব জেন্স স্টলটেনবার্গ বলেছেন, এই যুদ্ধে বছরের পর বছর ইউক্রেনকে সমর্থন অব্যাহত রাখতে প্রস্তুত থাকতে হবে পশ্চিমাদের।

স্টলটেনবার্গ বলেন, ‘যুদ্ধের খরচ অনেক বেশি, কিন্তু মস্কোকে তার সামরিক লক্ষ্য অর্জন করতে দেয়ার মূল্য আরও বেশি।’

জার্মান সংবাদপত্র বিল্ডকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ন্যাটোপ্রধান বলেন, ‘আমাদের অবশ্যই প্রস্তুত থাকতে হবে যে এর জন্য (রাশিয়াকে পরাজিত করতে) কয়েক বছর সময় লাগতে পারে। আমাদের ইউক্রেনকে সমর্থন করা ছেড়ে দেয়া উচিত নয়।’

স্টলটেনবার্গের মতে, জ্বালানি ও খাদ্যের দাম বৃদ্ধির কারণে এবং সামরিক সহায়তার জন্য খরচ অনেক বেশি। তার পরও ইউক্রেনকে আরও আধুনিক অস্ত্র সরবরাহ করা পূর্ব দোনবাস অঞ্চল মুক্ত করার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেবে। যার বেশির ভাগই বর্তমানে রুশ সেনাদের নিয়ন্ত্রণে।

ইউক্রেনে দীর্ঘ যুদ্ধের শঙ্কা ন্যাটোপ্রধানের
কিয়েভে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সঙ্গে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

ন্যাটোপ্রধানের সুরেই দীর্ঘমেয়াদি সংঘাতের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও।

সানডে টাইমসের এক নিবন্ধে দীর্ঘ যুদ্ধের আশঙ্কা ব্যক্ত করে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনকে পিষে ফেলার চেষ্টা করছেন। কিয়েভকে অস্ত্র, সরঞ্জাম, গোলাবারুদ এবং প্রশিক্ষণ সরবরাহ করা দরকার।

যুদ্ধের খরচ অনেক বেশি, কিন্তু মস্কোকে তার সামরিক লক্ষ্য অর্জন করতে দেয়ার মূল্য আরও বেশি।

মূলত ন্যাটো মহাসচিব স্টলটেনবার্গ ও যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মনে করেন, ইউক্রেনে আরও অস্ত্র পাঠালে দেশটির জয়ের সম্ভাবনা বাড়বে।

ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর নবনিযুক্ত প্রধান স্যার প্যাট্রিক স্যান্ডার্সও বলেছেন, যুক্তরাজ্য ও মিত্রদের রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ জয়ে সক্ষম হওয়া দরকার।

বিবিসিকে দেয়া এক বার্তায় তিনি বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান আমাদের মূল উদ্দেশ্যকে পরিষ্কার করে, যুক্তরাজ্যকে রক্ষা করা, স্থলে লড়াই ও যুদ্ধ জয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়া এবং শক্তি বৃদ্ধি করা, বাহিনীকে হুমকি দিয়ে রুশ আক্রমণ ঠেকানোর প্রয়োজনীয়তা।

স্যার প্যাট্রিক স্যান্ডার্স গত সপ্তাহে সেনাপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

এদিকে পূর্ব ইউক্রেনে লড়তে সমরাস্ত্র ঘাটতিতে থাকা ইউক্রেনকে আরও ১ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

নতুন এই অস্ত্র সহায়তার প্যাকেজ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কি।

যদিও কিয়েভের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগের প্রতিশ্রুত পশ্চিমা অস্ত্রের ১০ শতাংশও এখনও হাতে পায়নি ইউক্রেনীয় সেনারা।

আমাদের অবশ্যই প্রস্তুত থাকতে হবে যে এর জন্য (রাশিয়াকে পরাজিত করতে) কয়েক বছর সময় লাগতে পারে। আমাদের ইউক্রেনকে সমর্থন করা ছেড়ে দেয়া উচিত নয়।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর থেকেই পশ্চিমাদের বাধা উপেক্ষা করে পূর্ব ইউরোপের দেশটিতে চলছে রুশ সেনাদের সামরিক অভিযান।

দোনবাসের বাসিন্দাদের রক্ষা করার জন্যই এমন সামরিক পদক্ষেপ বলে দাবি করে আসছে রাশিয়া। ইউক্রেনের পক্ষ থেকে বলা হয়, সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে রাশিয়া হামলা চালিয়েছে। দেশটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে আসছে।

যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্বজুড়ে জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় অনেক পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। এ যুদ্ধ বন্ধ না হলে বিশ্বজুড়ে বড় ধরনের খাদ্যসংকট তৈরি হবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।

আরও পড়ুন:
যুদ্ধের ১০০ দিনে জ্বালানি বেচে রাশিয়ার আয় ৯৮ বিলিয়ন ডলার
৩১ হাজার রুশ সেনা নিহত: জেলেনস্কি
রাশিয়াকে যৌন সহিংসতা বন্ধের তাগিদ
ইউক্রেনকে দূরপাল্লার রকেট দিচ্ছে যুক্তরাজ্য
জেলেনস্কির কন্যা কি পালিয়ে পোল্যান্ডে

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Crowds attack tailor killers in Udaipur court

উদয়পুরে আদালতে দর্জির ‘খুনিদের’ ওপর জনতার হামলা

উদয়পুরে আদালতে দর্জির ‘খুনিদের’ ওপর জনতার হামলা জয়পুর আদালতের বাইরে জনগণ ২ জুলাই হত্যাকারীদের আক্রমণ করে। ছবি: সংগৃহীত
গত মাসে মহারাষ্ট্রে একজন সন্ত্রাসবিরোধী রসায়নবিদকে গলাকেটে হত্যা করা হয়। যার তদন্ত চলছে। মহানবী হযরত মুহম্মদ (সা.) নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় বরখাস্ত বিজেপির মুখপাত্র নুপুর শর্মার মন্তব্যকে সমর্থন করায় এক সপ্তাহ আগে উদয়পুরে একই রকম একটি হত্যাকাণ্ড ঘটে।

ভারতের উদয়পুরে কানহাইয়া লাল নামের এক দর্জিকে হত্যার দুই আসামিকে শনিবার জয়পুর আদালতে নেয় পুলিশ। সেখানে তাদের ওপর হামলা করে বেশ কয়েকজন ব্যক্তি। আদালতে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যেও টানাহেঁচড়ায় আসামিদের কাপড় ছিঁড়ে ফেলে হামলাকারীরা।

পরে পুলিশের তৎপরতায় আসামিদের একটি ভ্যানে তুলে সেখান থেকে কারাগারে পাঠানো হলে বড় ধরনের সংঘর্ষ এড়ানো সম্ভব হয় বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়।

গত মঙ্গলবার উদয়পুরে কানহাইয়া লাল নামের ওই ৪৮ বছর বয়সী ব্যক্তিকে খুন করা হয়। সে হত্যাকাণ্ডের ভিডিও করেন দুজন প্রত্যক্ষদর্শী।

পরে দুই হত্যায় অংশ নেয়া রিয়াজ আখতারি এবং গোস মোহাম্মদ আরেকটি ভিডিও প্রকাশ করেন। সে ভিডিওতে দেখা যায়, কানহাইয়া লালকে হত্যার বিষয়টি নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে। সে সঙ্গে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে হুমকি দেন তারা।

হত্যার কয়েক ঘণ্টা পর আখতারি ও মোহাম্মদকে গ্রেপ্তার করা হয়। কানহাইয়ার দোকানের অবস্থান সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহকারী আরও দুজনকে পরে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশ দাবি করে, তারাও হত্যাকাণ্ডের কথিত ষড়যন্ত্রে জড়িত ছিলেন।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, অভিযুক্ত চার জনকে শনিবার জয়পুরের জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ) আদালতে পাঠানো হয়। সে সময় আদালত প্রাঙ্গণে কঠোর পুলিশি ব্যবস্থা ছিল। কয়েকজন আইনজীবী ‘পাকিস্তান মুর্দাবাদ’ এবং ‘কানহাইয়ার খুনিদের মৃত্যুদণ্ড দাও’ স্লোগান দেন।

মহানবী হযরত মুহম্মদ (সা.) কে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করা বিজেপির বরখাস্ত মুখপাত্র নূপুর শর্মার পক্ষে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ায় খুন হন উদরপুরের দর্জি কানহাইয়া লাল। তার শিরশ্ছেদ করেন গোস মোহাম্মদ ও রিয়াজ আখতারি নামে ওই দুই যুবক। কানহাইয়ার শরীরে ২৬টি ছুরিকাঘাতের চিহ্ন ছিল।

এনডিটিভির আরেক প্রতিবেদনে বলা হয়, কানহাইয়া লাল হত্যাকাণ্ডের আগে দেশটির মহারাষ্ট্র রাজ্যে এক সন্ত্রাসবিরোধী রসায়নবিদকে গলাকেটে হত্যা করা হয়। সে ঘটনাটিও এখন সামনে এসেছে। সরকার সে ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ পাওয়ার দাবি করেছে। যার তদন্ত চলছে।

মহানবীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করা বিজেপির মুখপাত্র নুপুর শর্মার মন্তব্যকে সমর্থন করায় ওই রসায়নবিদকে খুন করা হয় বলে দাবি করা হয় সে প্রতিবেদনে।

বিজেপি বলেছে ‘উমেশ কোলহে নামে অরেক ব্যক্তি কানহাইয়া লালের মতো নূপুর শর্মার সমর্থনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট শেয়ার করেছিলেন। মহানবী (সা.) সম্পর্কে এমন মন্তব্য ‘দেশব্যাপী প্রতিবাদ এবং বিশ্বব্যাপী নিন্দার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।’

শনিবার আদালত এনআইএ-র কাছে ১২ জুলাই পর্যন্ত খুনিদের হেফাজত মঞ্জুর করেছে।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The mayor married the crocodile

কুমিরকে বিয়ে মেয়রের

কুমিরকে বিয়ে মেয়রের কুমিরকে বিয়ে করেছেন মেক্সিকোর আদিবাসী নেতা ভিক্টর হুগো সোসা। ছবি: সংগৃহীত
সাত বছর বয়সী ছোট্ট কুমির কেম্যান, যাকে রাজকুমারী বলা হচ্ছে। মাতৃভূমির প্রতিনিধিত্বকারী হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। স্থানীয় নেতার সঙ্গে তার বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার ফলে প্রকৃতির সঙ্গে মানুষের মিলন হয় বলে বিশ্বাস করে এসব আদিবাসী সম্প্রদায়।

আমাদের জীবনে বিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক চুক্তি। দুজন মানুষ একসঙ্গে থাকার প্রতিশ্রুতিকেই আমরা যারা বিয়ের সংজ্ঞা হিসেবে মনে করি। তাদের জন্য নতুন করে ভাবনার খোড়াক জোগানোর মতোই অনেক খবর এখন নেট দুনিয়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে। কেউ নিজেই নিজে বিয়ে করছেন, কেউ বা বিয়ে করছেন পোষা কুকুরকে কিংবা মানবাকৃতির কোনো পুতুলকে।

এবার মেক্সিকোর এক ছোট্ট শহরের মেয়র এক জমকালো অনুষ্ঠানে বিয়ে করেছেন। কিন্তু তার কনে কোনো মানুষ নন, একটি কুমির।

বৃহস্পতিবার হওয়া বিয়ের অনুষ্ঠানে ঐতিহ্যবাহী সংগীত বাজানো হয় এবং শহরের বাসিন্দারা তাদের মেয়র ভিক্টর হুগো সোসাকে নতুন কনেকে চুম্বনের মাধ্যমে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার অনুরোধ করেন। সে সময় নতুন কনেও সাজানো হয় বিয়ের সাজে।

পরে মেয়র চুমু দিয়ে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। কিন্তু কনের পক্ষে সৌভাগ্য হয়নি বরকে চুমু দেয়ার, কারণ দুর্ঘটনা এড়াতে কনের মুখ বেঁধে রাখা হয়েছিল।

মেক্সিকোর ওক্সানা রাজ্যের চোন্টাল ও হুয়াভ আদিবাসী সম্প্রদায়ের মধ্যে প্রাক-হিস্পানিক যুগের আচার অনুষ্ঠান লক্ষ করা যায়, যা ক্যাথলিক আধ্যাত্মিকতার সঙ্গে মিশে এক নতুন রূপ ধারণ করেছে।

ভিক্টর হুগো সোসা শুধু একজন মেয়রই নন, তিনি একজন আদিবাসী নেতা।

সাত বছর বয়সী ছোট এই সরীসৃপ কেম্যান, যাকে রাজকুমারী বলা হচ্ছে। মাতৃভূমির প্রতিনিধিত্বকারী হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। স্থানীয় নেতার সঙ্গে তার বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার ফলে প্রকৃতির সঙ্গে মানুষের মিলন হয় বলে বিশ্বাস করে এসব আদিবাসী সম্প্রদায়।

এই বিয়ে পরিচালনাকারী পুরোহিত এলিয়া এডিথ আগুইলার, যিনি গডমাদার হিসেবে পরিচিত। এই বিয়ে পরিচালনা করতে পারায় নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছেন। তিনি বলেন, ‘এই বিয়ের ঘটনা আমাকে আমার শিকড় নিয়ে গর্বিত করে।’

আরও পড়ুন:
পাত্রকে কনের অন্তঃসত্ত্বার জাল সনদ পাঠিয়ে আটক ৩
বিয়ের দাবি নিয়ে সহপাঠীর বাড়িতে কলেজছাত্রী
সাবেক স্ত্রীর বিয়েতে বোমা হামলা, আটক ২
বউ ফেরাতে আদালতে
পরিবারহীন ৪০ নারী পেলেন বিবাহোত্তর সংবর্ধনা

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Another case in the name of Factchecker Zubair

ফ্যাক্টচেকার জুবায়েরের নামে আরেক মামলা

ফ্যাক্টচেকার জুবায়েরের নামে আরেক মামলা
২০১৮ সালে জুবায়ের টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করেন। ছবির সঙ্গে করা মন্তব্যে ‘ইচ্ছাকৃতভাবে একটি নির্দিষ্ট ধর্মের দেবতাকে অপমান’ করার অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার ভারতের ফ্যাক্ট চেকিং ওয়েবসাইট অল্ট নিউজের সহপ্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক মোহাম্মদ জুবায়েরের বিরুদ্ধে আরও একটি অভিযোগ এনেছে পুলিশ।

শনিবার নতুন করে তার নামে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র এবং প্রমাণ ধ্বংসের এ অভিযোগ আনা হয় বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি

এ দিনই জুবায়েরকে পাঞ্জাবের পাতিয়ালা আদালতে তুলে তাকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করে পুলিশ। তবে শুনানি শেষে আদালত এই সাংবাদিককে রিমান্ডে না নিয়ে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।

জুবায়ের অল্ট নিউজের সহপ্রতিষ্ঠাতা। এই সংবাদমাধ্যমটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনার জন্য বেশ পরিচিত।

২০১৮ সালে জুবায়ের টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করেন। ছবির সঙ্গে করা মন্তব্যে ‘ইচ্ছাকৃতভাবে একটি নির্দিষ্ট ধর্মের দেবতাকে অপমান’ করার অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে।

ওই ঘটনায় চলতি মাসে পুলিশের কাছে একটি অভিযোগ করা হয়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২৬ জুন তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি পুলিশের। পরে দুই দফায় পাঁচ দিন রিমান্ডে নেয়া হয় তাকে।

অল্ট নিউজের সহপ্রতিষ্ঠাতা প্রতীক সিন্হা জানান, ২০২০ সালে অন্য একটি মামলায় জুবায়েরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়। এ মামলায় আদালত ইতোমধ্যে তাকে যাতে গ্রেপ্তার করা না হয় তার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু তাকে আরেকটি মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশের দাবি, যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ হাতে নিয়েই জুবায়েরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অল্ট নিউজ একটি অলাভজনক ‘ফ্যাক্ট চেকিং’ সংবাদমাধ্যম। এই ওয়েবসাইটে মূলত খবরের সত্য-মিথ্যাকে বিশ্লেষণ এবং যাচাই করে প্রকাশ করা হয়।

আরও পড়ুন:
ভারতে ৩ মাসে ব্যান ৫৩ লাখ হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট
৫ হাজার ফুট উচ্চতায় স্পাইসজেটের বিমানে ধোঁয়া
৬ মাসে ভারতের ৬ অধিনায়ক

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The biography of Bill Gates 46 years ago has come to light

বিল গেটসের ৪৮ বছর আগের জীবনবৃত্তান্ত প্রকাশ্যে

বিল গেটসের ৪৮ বছর আগের জীবনবৃত্তান্ত প্রকাশ্যে
এই ধনকুবের লিখেছেন, আপনি সম্প্রতি স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন বা কলেজ থেকে ড্রপআউট হন, আমি নিশ্চিত ৪৮ বছর আগে নিজের যে জীবনবৃত্তান্ত বানিয়েছিলাম তার চেয়ে আপনার জীবনবৃত্তান্ত অনেক ভালো।

চাকরিপ্রত্যাশীদের কাছে জীবনবৃত্তান্ত বা রিজিউম এক অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কীভাবে লিখবেন, কী লিখবেন এতে তা নিয়ে দ্বিধার শেষ নেই। সবচেয়ে ভালো হয়, ভালো একটি চাকরি করেন- এমন কারো জীবনবৃত্তান্ত দেখা গেলে। এ দিয়েই হয়তো একটু ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বানিয়ে ফেলা যায় জুতসই কোনো রিজিউম!

সে সুযোগই এসে গেল কী এবার? হ্যাঁ, মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্বের অন্যতম ধনী বিল গেটস প্রথম জীবনে দীর্ঘ ৪৮ বছর আগে যে রিজিউম বানিয়েছিলেন, তাই চাকরিপ্রত্যাশীদের জন্য প্রকাশ্যে এনেছেন। অবশ্য তার মতে, এই জীবনবৃত্তান্তের চেয়ে এখনকার যেকোনো চাকরিপ্রত্যাশীর জীবনবৃত্তান্ত অনেকটাই ভালো।

শুক্রবার লিংকড ইনে ৬৬ বছর বয়সী বিল গেটস তার জীবনবৃত্তান্ত শেয়ার করেছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি

এই ধনকুবের লিখেছেন, আপনি সম্প্রতি স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন বা কলেজ থেকে ড্রপআউট হন, আমি নিশ্চিত ৪৮ বছর আগে নিজের যে জীবনবৃত্তান্ত বানিয়েছিলাম তার চেয়ে আপনার জীবনবৃত্তান্ত অনেক ভালো।

বিল গেটসের ৪৮ বছর আগের জীবনবৃত্তান্ত প্রকাশ্যে

হার্ভার্ড কলেজের প্রথম বর্ষের তথ্য দিয়ে জীবনবৃত্তান্ত শুরু করেছেন উইলিয়াম হেনরি গেটস; এখন যার নাম বিল গেটস। এতে তিনি অপারেটিং সিস্টেম, ডাটাবেস ম্যানেজমেন্ট ও কম্পিউটার গ্রাফিক্সে কোর্স করার তথ্য যুক্ত করেছিলেন।

বিল গেটসের ৪৮ বছর আগের জীবনবৃত্তান্ত দেখতে পেয়ে অনেকেই তাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ফোর্বস সাময়িকীর সম্পদশালীদের তালিকায় ২০২১ সালের অক্টোবরের হিসেবে বিল গেটসের নিট সম্পদের পরিমাণ ১৩ হাজার ৫৪০ কোটি ডলার। প্রতিদিন যদি তিনি এক কোটি ডলার করে খরচ করেন, তবে ১৩ হাজার ৫৪০ দিন, অর্থাৎ ৩৭ বছরের বেশি লাগবে সে অর্থ ফুরাতে।

আরও পড়ুন:
ঘর ভাঙছে বিশ্বের ষষ্ঠ ধনী ব্রিনের
এপস্টেইনের সঙ্গে মিটিং ছিল ‘বড় ভুল’: গেটস
অবশেষে বিচ্ছিন্ন বিল-মেলিন্ডা

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Smoke on a SpiceJet plane at an altitude of 5000 feet

৫ হাজার ফুট উচ্চতায় স্পাইসজেটের বিমানে ধোঁয়া

৫ হাজার ফুট উচ্চতায় স্পাইসজেটের বিমানে ধোঁয়া স্পাইসজেটের বিমান। ছবি: সংগৃহীত
১৫ দিনের মধ্যে স্পাইসজেট বিমানের এটি দ্বিতীয় বারের মতো জরুরি অবতরণ। এর আগে ১৯ জুন ১৮৫ জন যাত্রী নিয়ে দিল্লিগামী একটি বিমান টেক-অফের ঠিক পরই পাটনায় জরুরি অবতরণ করে। সে সময় বিমানের ইঞ্জিনে পাখির আঘাতে আগুন ধরে যায়।

উড়ন্ত স্পাইসজেটের ক্রুরা কেবিনে ধোঁয়া লক্ষ করার পর ভারতের জালালপুরের উদ্দেশে উড়ে যাওয়া বিমানকে দেশটির রাজধানী দিল্লিতে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

ভারতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, কেবিন ক্রুরুরা যখন ধোঁয়া দেখতে পান তখন ফ্লাইটটি ৫ হাজার ফুট উচ্চতায় ছিল।

স্পাইসজেটের মুখপাত্র জানিয়েছেন, কোনো ধরনের দুর্ঘটনা ছাড়াই যাত্রীদের নিরাপদে নামানো হয়েছে।

এএনআইয়ের টুইট করা ভিডিওতে ধোঁয়াভর্তি কেবিন দেখা গেছে।

১৫ দিনের মধ্যে স্পাইসজেট বিমানের এটি দ্বিতীয় বারের মতো জরুরি অবতরণ। এর আগে ১৯ জুন ১৮৫ জন যাত্রী নিয়ে দিল্লিগামী একটি বিমান টেক-অফের ঠিক পরই পাটনায় জরুরি অবতরণ করে। সে সময় বিমানের ইঞ্জিনে পাখির আঘাতে আগুন ধরে যায়।

স্পাইসজেট একটি বিমান পরিবহন সেবা প্রদানকারী ভারতীয় প্রতিষ্ঠান। ভারতে কম খরচে এয়ারলাইনস সেবা দেয়ার জন্য এর পরিচিতি রয়েছে।

আরও পড়ুন:
ভারতের টেস্ট অধিনায়ক হচ্ছেন বুমরাহ
জুবায়ের তিস্তাকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান জাতিসংঘের
উদয়পুরের ঘটনায় শান্তি বজায় রাখার আহ্বান মমতার
টি-টোয়েন্টি সিরিজে আয়ারল্যান্ডকে ক্লিনসুইপ ভারতের
জুবায়ের ও তিস্তাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ মমতার

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
৬ 3 magnitude earthquake shakes the emirate

৬.৩ মাত্রার ভূমিকম্পে কাঁপল আমিরাত

৬.৩ মাত্রার ভূমিকম্পে কাঁপল আমিরাত সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই শহর। ছবি: সংগৃহীত
আমিরাতে ভূকম্পন অনুভূত হলেও এর কোনো প্রভাব দেশটিতে পড়েনি। সেখানকার অনেক বাসিন্দাই কম্পনের ফলে নড়তে থাকা বস্তুর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন।

ইরানে রিখটার স্কেলে ৬.৩ মাত্রার ভূমিকম্পের পর শনিবার ভোরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিভিন্ন অংশে এই ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে।

খালিজ টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ন্যাশনাল সেন্টার ফর মেটিওরোলজি (এনসিএম) অনুসারে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল দক্ষিণ ইরানের ১০ কিলোমিটার গভীরে।

আমিরাতে ভূকম্পন অনুভূত হলেও এর কোনো প্রভাব দেশটিতে পড়েনি।

দেশটির অনেক বাসিন্দাই কম্পনের ফলে নড়তে থাকা বস্তুর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন।

এদিকে গত মাসে আফগানিস্তানে পাকতিকা প্রদেশে ৬.১ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে ৩ হাজারের বেশি মানুষ হতাহত হয়।

আরও পড়ুন:
আমিরাতের প্রেসিডেন্ট ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন: প্রধানমন্ত্রী
আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক
আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট আর নেই
৫ দিনের সফরে আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
নাহিয়ানের উপশহরে হবে আন্তর্জাতিক মানের হাসপাতাল

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Phosphorus bomb on Snake Island Russia Ukraine

স্নেক আইল্যান্ডে ফসফরাস বোমা রাশিয়ার: ইউক্রেন

স্নেক আইল্যান্ডে ফসফরাস বোমা রাশিয়ার: ইউক্রেন রুশ বিমান বাহিনীর এসইউ-৩০ যুদ্ধবিমান। ছবি: সংগৃহীত
ইউক্রেনীয় সেনারা টেলিগ্রামে এই বিবৃতির সঙ্গে একটি ভিডিও যুক্ত করে দিয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি বিমান দ্বীপে অন্তত দুইবার বোমা ফেলছে। আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী ফসফরাস বোমা ব্যবহারে কিছু সীমাবদ্ধতা থাকলেও যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহারে তা নিষিদ্ধ নয়।

ইউক্রেনে চলছে রুশ সামরিক অভিযান। অভিযানের ৪ মাস পর এসে রুশ সেনারা ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চল দোনবাসে সামরিক অভিযান পরিচালনা করছে এবং অন্য স্থানগুলো থেকে নিজেদের গুটিয়ে নিচ্ছে। ইউক্রেন বলছে, পিছু হটছে রুশ সেনারা। রাশিয়ার দাবি, পরিকল্পনা মাফিকই চলছে সামরিক অভিযান।

এদিকে আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনীয় সেনারা অভিযোগ করেছে, কৃষ্ণসাগরের দ্বীপ স্নেক আইল্যান্ড থেকে সেনা প্রত্যাহারের এক দিন পরই রাশিয়া সেখানে ফসফরাস বোমা হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে।

শুক্রবার টেলিগ্রামে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ ভ্যালেরি জালুঝনি বলেছেন, রাশিয়ার দুটি সু-৩০ বিমান ক্রিমীয় উপদ্বীপ থেকে উড়ে এসে স্নেক আইল্যান্ডে ফসফরাস বোমা নিক্ষেপ করে চলে গেছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় স্নেক আইল্যান্ডে এই বোমা হামলা চালানো হয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার দ্বীপ থেকে তাদের সরে যাওয়াকে ‘শুভেচ্ছার প্রকাশ’ হিসেবে বর্ণনা করেছে। অর্থাৎ ইউক্রেনের বন্দরগুলো থেকে শস্য রপ্তানি করার জন্য জাতিসংঘের প্রচেষ্টায় হস্তক্ষেপ করবে না ইউক্রেন।

তবে ফসফরাস বোমা হামলার অভিযোগ এনে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী বলছে, রাশিয়া তাদের নিজেদের ঘোষণাকেও সম্মান জানাতে অক্ষম।

ইউক্রেনীয় সেনারা টেলিগ্রামে এই বিবৃতির সঙ্গে একটি ভিডিও যুক্ত করে দিয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি বিমান দ্বীপে অন্তত দুইবার বোমা ফেলছে।

তবে আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী যুদ্ধক্ষেত্রে ফসফরাস বোমা ব্যবহারে কিছু সীমাবদ্ধতা থাকলেও তা নিষিদ্ধ নয়। বেসামরিক মানুষ ও স্থাপনায় এবং এমন কোনো সামরিক লক্ষ্যবস্তু যার আশপাশে বেসামরিক স্থাপনা রয়েছে, সেখানে ফসফরাস বোমা নিক্ষেপ নিষিদ্ধ।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর থেকেই পশ্চিমাদের বাধা উপেক্ষা করে পূর্ব ইউরোপের দেশটিতে চলছে রুশ সেনাদের সামরিক অভিযান।

দোনবাসের বাসিন্দাদের রক্ষা করার জন্যই এমন সামরিক পদক্ষেপ বলে দাবি করে আসছে রাশিয়া। ইউক্রেনের পক্ষ থেকে বলা হয়, সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে রাশিয়া হামলা চালিয়েছে। দেশটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে আসছে।

যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্বজুড়ে জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় অনেক পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। এ যুদ্ধ বন্ধ না হলে বিশ্বজুড়ে বড় ধরনের খাদ্যসংকট তৈরি হবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।

আরও পড়ুন:
ইউক্রেন ক্রিমিয়া আক্রমণ করলে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ: মেদভেদেভ
ন্যাটোর কাছে মাসে ৪৮ হাজার কোটি টাকা চান জেলেনস্কি
‘পুতিন নারী হলে ইউক্রেন আক্রমণ করতেন না’

মন্তব্য

p
উপরে