× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
Delta came into existence on Mars with perseverance
hear-news
player
print-icon

মঙ্গলে ডেল্টার অস্তিত্ব পেল অধ্যবসায়

মঙ্গলে-ডেল্টার-অস্তিত্ব-পেল-অধ্যবসায়
নাসার অ্যাস্ট্রোবায়োলজিস্ট উইলিয়ামস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, ‘অধ্যবসায়ের পাঠানো ছবি থেকে আমরা বুঝতে পেরেছি, পানিই মঙ্গল গ্রহের ডেল্টা সৃষ্টি করেছিল। এসব ছবি আমাদের কাছে বইয়ের প্রচ্ছদ দেখার চেয়ে বইটি পড়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ।’

বিলিয়ন বিলিয়ন বছর আগে মঙ্গল গ্রহের প্রকৃতি সৃষ্টিতে পানির কী অবদান ছিল, তা নাসার রোভার থেকে পাওয়া ছবিতে প্রকাশিত হয়েছে। এ থেকে লাল গ্রহটিতে প্রাণ থাকার প্রমাণ পাওয়া যেতে পারে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার নতুন এক গবেষণায় এসব তথ্য উঠে আসে বলে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে নাসার রোভার অধ্যবসায় মঙ্গল গ্রহের জেজেরো ক্রেটারে অবতরণ করে। বিজ্ঞানীদের ধারণা, জেজেরো ক্রেটারে কোনো একসময় বিলুপ্ত এক নদী মহাকাশ থেকে দৃশ্যমান ফ্যান আকৃতির ডেল্টা বা বদ্বীপে পলি জমা করে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বিজ্ঞান সাময়িকী সায়েন্সে প্রকাশিত নতুন গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, নাসার রোভার অধ্যবসায়ের তোলা হাই রেজল্যুশনের ছবি বিশ্লেষণ করেন বিজ্ঞানীরা। ছবিতে জেজেরো ক্রেটারে থাকা খাঁড়া পাথরের পাহাড়ের ছবি রয়েছে, যেগুলো একসময় ডেল্টার পাড় ছিল বলে ধারণা তাদের।

কীভাবে ডেল্টার গঠন হয়েছে, তা খাঁড়া পাহাড়ের গায়ে থাকা স্তরগুলো থেকে বোঝা যায়।

নাসার অ্যাস্ট্রোবায়োলজিস্ট অ্যামি উইলিয়ামস ও তার দল জেজেরো ক্রেটারের পাহাড়ের ছবি ও পৃথিবীর রিভার ডেল্টার মধ্যে মিল খুঁজে পান।

গবেষণায় বলা হয়, পাহাড়গুলোর নিচের তিনটি স্তরের আকৃতি একসময় যে সেখানে অনবরত পানি প্রবাহ হয়, তার ইঙ্গিত দেয়। প্রায় ৩.৭ বিলিয়ন বছর আগে হাইড্রোলজিক সাইকেল সহায়তায় পর্যাপ্ত উষ্ণ ও আর্দ্র ছিল মঙ্গল গ্রহ।

পাহাড়গুলোর শীর্ষ স্তরের এক মিটারের বেশি ব্যাসের পাথরের ছবি দেখে বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, ভয়াবহ বন্যা সম্ভবত সেগুলো সেখানে নিয়ে গেছে।

গবেষণা থেকে উঠে আসা তথ্য গবেষকদের মঙ্গল গ্রহে মাটি ও পাথরের সন্ধানে রোভার অধ্যবসায় কোন কোন জায়গায় পাঠানো যেতে পারে, তা বুঝতে সহায়তা করবে। ওই সব মাটি ও পাথর মঙ্গল গ্রহের প্রাণ সম্পর্কে মূল্যবান ধারণা দিতে পারে।

নাসার অ্যাস্ট্রোবায়োলজিস্ট উইলিয়ামস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, ‘অধ্যবসায়ের পাঠানো ছবি থেকে আমরা বুঝতে পেরেছি, পানিই মঙ্গল গ্রহের ডেল্টা সৃষ্টি করেছিল।

‘এসব ছবি আমাদের কাছে বইয়ের প্রচ্ছদ দেখার চেয়ে বইটি পড়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ।’

মঙ্গল গ্রহে প্রাণ ছিল কি না, তা বের করাই অধ্যবসায়ের মূল মিশন। লাল গ্রহে এ রোভার পাঠাতে কয়েক দশক সময় লাগে নাসার। খরচ হয় বিলিয়ন বিলিয়র ডলার অর্থ।

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Kiselects new calling smartwatch in the country

দেশে কিসিলেক্টের নতুন কলিং স্মার্টওয়াচ

দেশে কিসিলেক্টের নতুন কলিং স্মার্টওয়াচ দেশের বাজারে কিসিলেক্টের নতুন স্মার্টওয়াচ। ছবি: সংগৃহীত
দেশব্যাপী মোশন ভিউয়ের সকল আউটলেট, অনুমোদিত রিটেইল পয়েন্টে ও অনলাইনে স্মার্টওয়াচটি পাওয়া যাচ্ছে। স্মার্টওয়াচটির দাম ৬ হাজার ৭৮০ টাকা। এ ছাড়া ৪ হাজার ৬০০ টাকায় পাওয়া যাবে এটির রেগুলার মডেল কিসিলেক্ট কেআর।

দেশের বাজারে কলিং ফিচার সমৃদ্ধ স্মার্টওয়াচ নিয়ে এসেছে গ্যাজেট বিপনণকারী প্রতিষ্ঠান মোশন ভিউ লিমিটেড।

কিসিলেক্ট ব্রান্ডের কেআর প্রো কলিং স্মার্টওয়াচটি কেনায় ১ বছরের বিক্রোত্তর সেবা বা ওয়ারেন্টি সুবিধা মিলবে। ১ বছরের মধ্যে ফিজিক্যাল ড্যামেজ ছাড়া অন্য যেকোনো সমস্যা হলে তা বিনামূল্যে সারিয়ে কিংবা পরিবর্তন করে দেবে প্রতিষ্ঠানটি।

গোলাকার আকৃতির স্মার্টওয়াচটিতে রয়েছে ১.৪৩ ইঞ্চি আকারের অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যাতে রয়েছে অলওয়েজ-অন-ডিসপ্লে (এওডি) ফিচার। এতে থাকা ২৮০ এমএএইচ ব্যাটারি ফুল চার্জ হতে ২ ঘণ্টার মত সময় নেয়। আর একবার ফুল চার্জে সাধারণ ব্যবহারে তিন দিন, ভারী ব্যবহারে দুই দিনের ব্যাকআপ মিলবে। যারা ফিটনেস সচেতন, তাদের কথা মাথায় রেখে এতে প্রায় ৭০টি ভিন্ন ওয়ার্কআউট ফিচার যুক্ত করা হয়েছে।

ঘড়িটির বিশেষত্ব হলো, স্মার্টফোনে ব্লুটুথের মাধ্যমে যুক্ত থাকা অবস্থায় এটি থেকে সরাসরি কল করা যাবে, কিংবা ফোনে আসা কল রিসিভ করেও কথা বলা যাবে। এজন্য ঘড়িটিতে যুক্ত আছে বিল্ট-ইন স্পিকার ও মাইক্রোফোন। এ ছাড়া এটিতে রয়েছে বিল্ট-ইন মিউজিক প্লেয়ার ফিচার।

স্মার্ট ওয়াচটিতে আইপি-৬৮ গ্রেডের ওয়াটার রেসিস্ট্যান্স থাকার এটি হাতে থাকা অবস্থায় সাঁতার কাটা যাবে।

দেশব্যাপী মোশন ভিউয়ের সকল আউটলেট, অনুমোদিত রিটেইল পয়েন্টে ও অনলাইনে স্মার্টওয়াচটি পাওয়া যাচ্ছে। স্মার্টওয়াচটির দাম ৬ হাজার ৭৮০ টাকা। এ ছাড়া ৪ হাজার ৬০০ টাকায় পাওয়া যাবে এটির রেগুলার মডেল কিসিলেক্ট কেআর।

দেশব্যাপী মোশন ভিউ দেশের সেরা দামে স্মার্ট গ্যাজেট, স্মার্টফোন নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও গ্রাহকের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করতে সেরা বিক্রয়োত্তর সেবা দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি।

দেশব্যাপী ৬৪ জেলায় মোশন ভিউয়ের বিপণন চালু আছে। নিজস্ব ২২ টি ব্র্যান্ড আউটলেট, ২ হাজারের অধিক রিটেইল ও অনলাইনে তাদের পণ্য পাওয়া যায়। বিভিন্ন ধরনের ব্র্যান্ডের অরিজিনাল স্মার্ট গ্যাজেট, যেমন- স্মার্ট ওয়াচ, ইয়ারফোন, স্মার্ট টিভি, পাওয়ার ব্যাংক, , স্মার্ট হোম অ্যাপ্লায়েন্স ইত্যাদি গ্রাহকের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে এবং সেগুলোর ক্ষেত্রে পূর্ণ বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিতে কাজ করে যাচ্ছে।

আরও পড়ুন:
সারা দেশে প্রযুক্তিপণ্য পৌঁছে দিতে মোশন ভিউয়ের পার্টনার মিট
ধানমন্ডিতে মোশন ভিউয়ের নতুন আউটলেট চালু
মোশন ভিউয়ে পাওয়া যাবে ইনফিনিক্স মোবাইল

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Huawei is bringing 15 new types of cloud services

নতুন ১৫ ধরনের ক্লাউড সেবা আনছে হুয়াওয়ে

নতুন ১৫ ধরনের ক্লাউড সেবা আনছে হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ের রোটেটিং চেয়ারম্যান কেন হু বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানগুলোর উচিত নিজেদের উন্নয়ন ত্বরাণ্বিত করতে ক্লাউডের ব্যবহার বৃদ্ধি করা, কারণ ডিজিটাল স্মার্ট প্রযুক্তিই হবে আগামীর ভবিষ্যৎ। ক্লাউডে ইতোমধ্যে ২৪০টিরও বেশি সেবা অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।’

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে শুরু হয়েছে ‘হুয়াওয়ে কানেক্ট ২০২২’ আয়োজন।

সোমবার শুরু হওয়া আয়োজনে হুয়াওয়ের রোটেটিং চেয়ারম্যান কেন হু ‘আনলিশ ডিজিটাল’ নিয়ে মূল বক্তব্য দিয়েছেন।

হুয়াওয়ে ক্লাউডের সিইও ঝাং পিং আন ইন্দোনেশিয়া ও আয়ারল্যান্ডে নতুন ক্লাউড অঞ্চল উন্মোচনের পরিকল্পনা ঘোষণা করেন; পাশাপাশি তিনি ‘গো ক্লাউড, গো গ্লোবাল ইকোসিস্টেম প্ল্যান’ উন্মোচন করেন এবং ‘এভ্রিথিং অ্যাজ এ সার্ভিস’ প্রতিপাদ্যে অনুপ্রাণিত হয়ে সেবার প্রতিশ্রুতির কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

হুয়াওয়ে ক্লাউডের গ্লোবাল মার্কেটিং ও সেলস সার্ভিসের প্রেসিডেন্ট জ্যাকুলিন শি জানান, হুয়াওয়ে ক্লাউড বিশ্বব্যাপী ১৫টিরও বেশি উদ্ভাবন উন্মোচন করবে; যার মধ্যে রয়েছে- ক্লাউড নেটিভ, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) ডেভেলপমেন্ট, ডেটা গভর্ন্যান্স, ডিজিটাল কন্টেন্ট, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট এবং ম্যাক্রোভার্স এপিএএএস (অ্যাপ্লিকেশন প্ল্যাটফর্ম অ্যাজ আ সার্ভিস)।

হুয়াওয়ের রোটেটিং চেয়ারম্যান কেন হু বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানগুলোর উচিত নিজেদের উন্নয়ন ত্বরাণ্বিত করতে ক্লাউডের ব্যবহার বৃদ্ধি করা, কারণ ডিজিটাল স্মার্ট প্রযুক্তিই হবে আগামীর ভবিষ্যৎ। ক্লাউডে ইতোমধ্যে ২৪০টিরও বেশি সেবা অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।’

এ ছাড়া হুয়াওয়ে ক্লাউডে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই), অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, বিগ ডেটা টেকনোলোজিস এবং বিভিন্ন রকম ডেভেলপমেন্ট টুলসের সর্বাধুনিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে ৫০ হাজারেরও বেশি অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস (এপিআই) ব্যবহার করা হয়েছে।

ইভেন্টে ‘গো ক্লাউড, গো গ্লোবাল’পরিকল্পনাটি উন্মোচন করেন হুয়াওয়ে ক্লাউডের সিইও ঝাং পিং আন।

একটি গ্লোবাল ডিজিটাল ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে ‘বাই লোকাল, ফর লোকাল’ কৌশল গ্রহণ করেছে হুয়াওয়ে ক্লাউড। আগামী তিন বছরে বিশ্ব জুড়ে ১০ হাজারেরও বেশি সম্ভবনাময় স্টার্টআপকে ব্যয়-সাশ্রয়ী কৌশল অবলম্বন, প্রযুক্তিগত সহায়তা, উদ্যোগবিষয়ক প্রশিক্ষণ এবং ব্যবসায়িকভাবে অন্যান্য সহায়তা দেবে হুয়াওয়ে ক্লাউড।

ইতোমধ্যে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ১২০টির বেশি এন্টারপ্রাইজ হুয়াওয়ে ক্লাউড স্টার্টআপ প্রোগ্রামে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন:
সিডস ফর দ্য ফিউচারের এশিয়া-প্যাসিফিক রাউন্ডে দেশের ৪ শিক্ষার্থী
ক্লাউড খাতের বিকাশে একসঙ্গে কাজ করবে হুয়াওয়ে-রেডডট ডিজিটাল
ডিজিটাল রূপান্তরে কাজ করছে কোলোসিটি ক্লাউড
উন্নত ক্লাউড ও ডিজিটাল পাওয়ার সেবা দিতে হুয়াওয়ের দল
শিক্ষার্থীদের জন্য খুলনা প্রকৌশলে হুয়াওয়ের আইসিটি অ্যাকাডেমি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Scientists created particles from nothing

শূন্য থেকে বস্তুকণা বানালেন বিজ্ঞানীরা

শূন্য থেকে বস্তুকণা বানালেন বিজ্ঞানীরা
চলতি বছরের গোড়ার দিকে গ্রাফিনের অনন্য বৈশিষ্ট্যকে কাজে লাগিয়ে সাধারণ একটি পরীক্ষাগারে যথেষ্ট শক্তিশালী বৈদ্যুতিক ক্ষেত্র তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। আর সেখানে শূন্য থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে কণা-প্রতিকণা তৈরি হয়েছে।

আমাদের সাধারণ অভিজ্ঞতা হলো, আপনাআপনি কোনো কিছু তৈরি হয় না। তবে কোয়ান্টামের জগতে শূন্য থেকে সত্যিই কিছুর উদ্ভব সম্ভব। এতদিন বিষয়টি তত্ত্বের সীমানায় আটকে থাকলেও চলতি বছরের গোড়ার দিকে পরীক্ষাগারে প্রমাণ করেছেন একদল বিজ্ঞানী।

কোয়ান্টাম পদার্থবিদ্যায় বলা হয়, বস্তুহীন একটি পরিপূর্ণ শূন্য জায়গাকে সব সময়েই যথাযথ পদ্ধতিতে পরিবর্তন ঘটিয়ে অনিবার্যভাবে কিছু তৈরির উপযোগী অবস্থা সৃষ্টি করা যায়।

ফাঁকা জায়গার অতল গহ্বরে বিভিন্ন কণার সংঘর্ষ হয় এবং কখনও কখনও বাড়তি কণা-প্রতিকণার জোড়া আবির্ভূত হয়। শূন্য স্থানে একটি মেসন কণা নিয়ে কোয়ার্কটিকে অ্যান্টিকোয়ার্ক থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হলে মধ্যবর্তী ফাঁকা জায়গায় কণা-প্রতিকণা জোড়ার একটি নতুন সেটের উদ্ভব ঘটবে। তাত্ত্বিকভাবে, যথেষ্ট শক্তিশালী ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক ফিল্ড কোনো প্রাথমিক কণা বা প্রতিকণা ছাড়াই শূন্য থেকে নিজেই কণা ও প্রতিকণা তৈরি করতে পারে।

আগে মনে করা হতো এই প্রভাবগুলো তৈরিতে যে সর্বোচ্চ শক্তির প্রয়োজন তা শুধু উচ্চ-শক্তি কণাবিদ্যা পরীক্ষায় বা চরম জ্যোতির্পদার্থবিদ্যার পরিবেশে পাওয়া যায়। তবে চলতি বছরের গোড়ার দিকে গ্রাফিনের অনন্য বৈশিষ্ট্যকে কাজে লাগিয়ে সাধারণ একটি পরীক্ষাগারে যথেষ্ট শক্তিশালী বৈদ্যুতিক ক্ষেত্র তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। আর সেখানে শূন্য থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে কণা-প্রতিকণা তৈরি হয়েছে।

কোয়ান্টাম তত্ত্বের অন্যতম জনক জুলিয়ান শুইঙ্গার এখন থেকে ৭০ বছর আগেই এভাবে কণা সৃষ্টির সম্ভাবনা উল্লেখ করেছিলেন। শুইঙ্গার এফেক্ট অবশেষে পরীক্ষাগারে প্রমাণিত হয়েছে। এর মাধ্যমে জানা গেল, মহাবিশ্ব সত্যিই শূন্য থেকে কিছু তৈরি করতে সক্ষম।

মহাবিশ্ব এনার্জি, চার্জ, ভরবেগের মতো সংরক্ষণ নীতি দ্বারা পরিচালিত। এই নীতিগুলোকে বুঝতে বিজ্ঞানীরা দশকের পর দশক শূন্য থেকে কণা সৃষ্টির চেষ্টা করেছেন।

বিজ্ঞানীরা এর আগে বস্তুকে (ম্যাটার) অদৃশ্য করতে সক্ষম হয়েছেন, তবে শূন্য থেকে কিছু তৈরি করা সম্পূর্ণ আলাদা বিষয়।

বিগ থিংকের প্রতিবেদন অনুসারে, ২০২২ সালের শুরুর দিকে একদল গবেষক গ্রাফিনের মতো স্বতন্ত্র পদার্থের উপাদান দিয়ে পদার্থ সৃষ্টি করার মতো যথেষ্ট পরিমাণ ম্যাগনেটিক ফিল্ড তৈরি করতে সক্ষম হন। আর সেই ফিল্ডকে কাজে লাগিয়েই গবেষকরা শূন্য থেকে তৈরি করেছেন কণা ও প্রতিকণা।

আরও পড়ুন:
গবেষণা বাড়াতে ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্টে আসছে নতুন আইন
যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি সহায়তার গবেষণাপত্র পড়তে পারবে সবাই
পুরুষের যত বেশি আত্মপ্রেম, তত দ্রুত স্খলন
অন্যকে নিয়ে গালগল্পে দিনে আমাদের ব্যয় ৫২ মিনিট
কেন হাসছেন, জেনে হাসছেন তো?

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Oppo A16 smartphone price reduced

অপো এ১৬ স্মার্টফোনের দাম কমল

অপো এ১৬ স্মার্টফোনের দাম কমল
ফোনটিতে আছে এআই ট্রিপল ক্যামেরা, এইচডি ও আই কেয়ার ডিসপ্লে  এবং ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। দাম কমানোর পর এখন ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে ১৩ হাজার ৯৯০ টাকায়।

গ্রাহকদের স্মার্টফোন কেনার সুযোগ করে দিতে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপো তাদের মিড-রেঞ্জ স্মার্টডিভাইস এ১৬ মডেলের দাম কমিয়েছে এক হাজার টাকা।

প্রতিষ্ঠানটির এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, দাম কমানোর পর এখন ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে ১৩ হাজার ৯৯০ টাকায়।

অপো বলছে, ফোনটিতে আছে এআই ট্রিপল ক্যামেরা, এইচডি ও আই কেয়ার ডিসপ্লে এবং ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

ডিভাইসটিতে এআই ট্রিপল ক্যামেরা সেট-আপ রয়েছে। যার ১৩ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট মোড। যারা ফটোগ্রাফি এবং এআই বিউটিফিকেশন পছন্দ করেন তাদের জন্য ফোনটিতে ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা রয়েছে, যা ছবি তোলার সময় ব্যবহারকারীর ন্যাচারাল বিউটিকে তুলে ধরে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অপো এ-১৬ ফোনটিতে রয়েছে এইচডি ও আই-কেয়ার ডিসপ্লে। সুপার পাওয়ার সেভিং মোড ব্যবহার করে ব্যবহারকারী নির্বিঘ্নে ১.৮৪ ঘণ্টা কল টাইম উপভোগ করতে পারবেন।

ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে শক্তিশালী মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ অক্টা-কোর প্রসেসর। ফোনটি বাজারে দু’টি রঙে পাওয়া যাচ্ছে। এগুলো হলো ক্রিস্টাল ব্ল্যাক ও পার্ল ব্লু।

অপো বাংলাদেশ অথোরাইজড এক্সক্লুসিভ ডিস্ট্রিবিউটরের ব্র্যান্ড ম্যানেজার লিউ ফেং বলেন, ‘অপো সবসময় ক্রেতাদের প্রাধান্য দেয়। বিশ্বজুড়ে মানুষ যখন অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখোমুখি হয়ে দিন পরিচালনা করছে, তখনই মানুষকে সাশ্রয়ী দামে ফোন কেনার সুযোগ করে দিতে ও তাদের চাহিদা পূরণে অপো এ১৬ মডেলের স্মার্টফোনের দাম কমিয়েছে।’

আরও পড়ুন:
থ্রিডি গ্রাফিক্সের মানোন্নয়নে যৌথভাবে কাজ করবে অপো
১৭৯৯০ টাকায় অপোর নতুন স্মার্টফোন
এ সিরিজের নতুন ডিভাইস আনছে অপো
চীনের বাজারে শীর্ষে ভিভো
কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলের অফিশিয়াল পার্টনার ভিভো

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Important information of Uber users in the hands of hackers

‘হ্যাকারদের হাতে’ উবার ব্যবহারকারীদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

‘হ্যাকারদের হাতে’ উবার ব্যবহারকারীদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য
হ্যাকারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা দুজন গবেষক জানিয়েছেন, এক হ্যাকারের বয়স ১৮ বছর। তার আর পরিচয় পাওয়া যায়নি। প্রচারণাই তাদের মূল লক্ষ্য। ব্যবহারকারীদের তথ্যের কোনো ক্ষতির প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি।

রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান উবারের গ্রাহক ও সেবাদানকারীদের তথ্য চুরি হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অবশ্য কর্তৃপক্ষ বলছে, এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি।

হ্যাকারদের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার উবারের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে তা নিয়ন্ত্রণে নেয়ার দাবি করা হয় বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে রয়টার্স

হ্যাকিংয়ে অংশ নেয়া একজনের শেয়ার করা স্ক্রিনশটে দেখা যায়, ব্যবহারকারীদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জমা রাখার স্থানে ঢুকে পড়েছেন হ্যাকাররা।

তবে কী পরিমাণ তথ্য চুরি হয়েছে বা হ্যাকাররা কতক্ষণ ওয়েবসাইটের নিয়ন্ত্রণ রাখতে পেরেছিলেন তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

হ্যাকারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা দুজন গবেষক জানিয়েছেন, এক হ্যাকারের বয়স ১৮ বছর। তার আর পরিচয় পাওয়া যায়নি। প্রচারণাই তাদের মূল লক্ষ্য। ব্যবহারকারীদের তথ্যের কোনো ক্ষতির প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি।

টুইটারে শেয়ার হওয়া তথ্য ও গবেষকদের মতে, উবারের অভ্যন্তরীণ সার্ভারের নিয়ন্ত্রণ ছিল হ্যাকারদের। হ্যাকারের সঙ্গে অনলাইনে চ্যাট করা গবেষক করবিন লিও বলেন, ওয়েবসাইটে হ্যাকার ঢোকার ব্যাপারটি খারাপ। এটা খুব ভয়ংকর।

ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য, আর্থিক তথ্য ও ড্রাইভিং লাইসেন্সসহ নানা তথ্য রাখার স্থান হ্যাকারদের নিয়ন্ত্রণে ছিল বলে জানান তিনি।

নিরাপত্তা সংস্থা জেলিকের গবেষক এবং ব্যবসা উন্নয়ন বিভাগের প্রধান লিও বলেন, কারো হাতে কোথাও ঢোকার চাবি থাকার অর্থ হলো তিনি সে প্রতিষ্ঠানের সেবা বন্ধ করে দিতে পারেন। কর্মীদের নাম কেটে দিতে পারেন। কোনো ব্যবহারকারীর তথ্য সংগ্রহ কিংবা পাসওয়ার্ডও বদলে দিতে পারেন।

এসব অভিযোগ নিয়ে শুক্রবার অনলাইনে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান উবারের পোস্ট করা এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সতর্কতার অংশ হিসেবে আমরা যে অভ্যন্তরীণ সফটওয়্যার সরঞ্জামগুলো সরিয়ে নিয়েছিলাম, সেগুলো আবার অনলাইনে ফিরে আসছে।

উবারের সব ধরনের সেবা এখন চালু আছে বলে জানানো হয় বিবৃতিতে।

বার্তা সংস্থা এএফপির পক্ষ থেকে ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি হওয়ার অভিযোগ নিয়ে যোগাযোগ করা হলে তা নিয়ে মন্তব্য করেনি উবার। প্রতিষ্ঠানটি শুধু জানিয়েছে, সংবেদনশীল ব্যবহারকারীর তথ্যে কোনো হ্যাকারের প্রবেশের প্রমাণ নেই।

আরও পড়ুন:
উবারের দাবি, তাদের সেবায় নারী ‘নিরাপদ’
দেশের ২০ শহরে উবার মোটো

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Samsung has launched the new Neo QLED line series of TVs

নতুন নিও কিউএলইডি লাইন সিরিজের টিভি আনল স্যামসাং

নতুন নিও কিউএলইডি লাইন সিরিজের টিভি আনল স্যামসাং দেশে নিও কিউএলইডি টিভি সিরিজ উন্মোচন অনুষ্ঠানে স্যামসাং বাংলাদেশের কর্মকর্তারা। ছবি: সংগৃহীত
টিভিগুলোর ফিচারের মধ্যে রয়েছে- মোশন অ্যাকসেলেরেটর, ডায়নামিক ক্রিস্টাল কালার, বিল্ট-ইন আইওটি হাব এবং মাল্টিপল ভয়েস অ্যাসিসট্যান্ট।

নতুন সিরিজের নিও কিউএলইডি টিভি সিরিজের ঘোষণা দিয়েছে স্যামসাং বাংলাদেশ। স্যামসাংয়ের ২০২২ মডেলের টিভিগুলোতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, স্মার্ট ফিচার ও উদ্ভাবনী ডিজাইন রয়েছে।

রাজধানীর গুলশান-১-এ বিটিআইয়ের স্মার্ট প্লাজায় বৃহস্পতিবার টিভিগুলোর উদ্বোধন করা হয়।

স্যামসাং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস বাংলাদেশ আরও এক ধাপ এগিয়ে স্যামসাং এবার দেশের বাজারে নিয়ে এসেছে- নেক্সট জেনারেশন বি সিরিজ টিভি রেঞ্জের অত্যাধুনিক নিও কিউএলইডি এবং কিউএলইডি টেলিভিশন মডেল।

বিভিন্ন সেগমেন্টের অধীনে নতুন সিরিজের টিভিগুলোর বেশ কিছু মডেল রয়েছে। এগুলো হলো নিও কিউএলইডি ৮কে মডেলের কিউএন৯০০বি (৮৫ ইঞ্চি) এবং কিউএন৮০০বি (৭৫ ইঞ্চি); কিউএলইডি ৪কে টিভি মডেলের কিউ৭০বি (৭৫ ইঞ্চি, ৬৫ ইঞ্চি ও ৫৫ ইঞ্চি) এবং কিউ৬০বি (৭৫ ইঞ্চি, ৬৫ ইঞ্চি ও ৫৫ ইঞ্চি); লাইফস্টাইল টিভি মডেল ফ্রেম (৫৫ ইঞ্চি) এবং সেরিফ (৫০ ইঞ্চি), ডায়নামিক ক্রিস্টাল ইউএইচডি ৪কে মডেলের বিইউ৮০০০ (৮৫ ইঞ্চি, ৭৫ ইঞ্চি, ৬৫ ইঞ্চি, ৫৫ ইঞ্চি, ৫০ ইঞ্চি ও ৪৩ ইঞ্চি)।

টিভিগুলোর ফিচারের মধ্যে রয়েছে- মোশন অ্যাকসেলেরেটর, ডায়নামিক ক্রিস্টাল কালার, বিল্ট-ইন আইওটি হাব এবং মাল্টিপল ভয়েস অ্যাসিসট্যান্ট।

এ ছাড়া ব্যবহার করা হয়েছে- কোয়ান্টাম ম্যাট্রিক্স টেকনোলজি প্রো (কোয়ান্টাম মিনি এলইডি), শেইপ অ্যাডাপ্টিভ লাইট কন্ট্রোল, নিউরাল কোয়ান্টাম প্রসেসর ৮কে উইথ রিয়েল ডেপথ এনহ্যান্সার, আইকমফোর্ট মোড, কোয়ান্টাম এইচডিআর ৬৪এক্স, ডলবি অ্যাটমোস, ওটিএস প্রো উইথ ৩ লেয়ার, কিউ সিম্ফোনি, স্পেইসফিট সাউন্ড, স্মার্ট হাব, বিক্সবি ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট, ইনফিনিটি স্ক্রিন, সোলারসেল রিমোট এবং মডেল-নির্দিষ্ট আরও অনেক ফিচার।

এ ফিচারগুলোর অভূতপূর্ব উন্নয়নের সঙ্গে প্রযুক্তির অনন্য সমন্বয়ের মাধ্যমে স্যামসাং নিয়ে এসেছে নতুন বি সিরিজের টিভি লাইন-আপ, যা ক্রেতাদের লাইফস্টাইলের মানোন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

স্যামসাং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকসের ডিরেক্টর ও হেড অফ বিজনেস শাহরিয়ার বিন লুৎফর বলেন, ‘বিগত বছরগুলোতে সবার জন্য টেলিভিশন ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে সমৃদ্ধ করতে যুগান্তকারী প্রযুক্তি ও অনন্য সব চিন্তার প্রতিফলন ঘটাচ্ছে স্যামসাং। বিস্তৃত পরিসরে ক্রেতাদের চাহিদা পূরণ করাই স্যামসাংয়ের মূল লক্ষ্য। নতুন বি সিরিজের টেলিভিশনগুলোয় আমাদের উদ্ভাবনী ফিচারগুলোর সমন্বয় ঘটেছে, যা ক্রেতাদের ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতাকে আরও সমৃদ্ধ করতে সহায়ক হবে।’

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
First Robotics School in Comilla

দেশের প্রথম রোবটিক্স স্কুল কুমিল্লায়

দেশের প্রথম রোবটিক্স স্কুল কুমিল্লায় এই স্কুলে পড়তে শিক্ষার্থীদের বয়সের কোনো নির্দিষ্ট সীমা নেই। যে কেউ পড়তে পারেন রোবটিক্স। ছবি: নিউজবাংলা
শিক্ষার্থীদের বয়সের কোনো নির্দিষ্ট সীমা নেই। যে কেউ পড়তে পারেন রোবটিক্স। কম্পিউটারবিদ্যার শিক্ষকরা দেখাচ্ছেন কীভাবে প্রোগ্রামিং করতে হয়। পাশাপাশি শ্রেণিকক্ষে ব্যবহারিকভাবেও দেখানো হচ্ছে কীভাবে রোবট তৈরি করতে হয়।

রোবট বিদ্যার স্কুলের যাত্রা শুরু হয়েছে কুমিল্লায়। নগরীর রাজবাড়ি কম্পাউন্ডে মাস দুয়েক আগে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে স্কুল অব রোবটিক্স। দেশের প্রথম রোবটিক্স এই স্কুলে ভর্তি ও ক্লাস করতে অভূতপূর্ব সাড়া পড়েছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে।

শিক্ষার্থীদের বয়সের কোনো নির্দিষ্ট সীমা নেই। যে কেউ পড়তে পারেন রোবটিক্স।

কম্পিউটারবিদ্যার শিক্ষকরা দেখাচ্ছেন কীভাবে প্রোগ্রামিং করতে হয়। মনোযোগ দিয়ে শিক্ষার্থীরা সেই পাঠদান শুনছেন। পাশাপাশি শ্রেণিকক্ষে ব্যবহারিকভাবেও দেখানো হচ্ছে কীভাবে রোবট তৈরি করতে হয়, রোবট দিয়ে কীভাবে প্রতিযোগিতাময় বিশ্বে নিজেদের অবস্থান জানান দিতে হবে। বিকেল থেকে রাত অবধি ব্যস্ত সময় কেটে যায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের।

বর্তমানে স্কুলটিতে বিভিন্ন বয়সী দুই শতাধিক শিক্ষার্থী নিয়মিত ক্লাস করেন। সপ্তাহে শুক্র, শনি ও মঙ্গলবার এই তিন দিন বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত পাঠদান হয়।

কুমিল্লা কালেক্টেরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের ক্যাম্পাসে চলছে স্কুল অব রোবটিক্স। অধ্যক্ষ নার্গিস আক্তার তার প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি এটির ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করছেন।

নার্গিস আক্তার জানান, গত ৩১ জুলাই ভার্চুয়ালি স্কুল অব রোবটিক্সের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। সেদিন কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক মো. কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে জেলার বিভিন্ন সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।

দেশের প্রথম রোবটিক্স স্কুল কুমিল্লায়

অধ্যক্ষ নার্গিস আক্তার নিউজবাংলাকে বলেন, ‘শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সাউথ ইস্ট, ডেফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষ করা শিক্ষার্থীরা এখানে শিক্ষক হিসেবে নিয়োজিত। তৃতীয় শ্রেণি থেকে ৫০ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা এখানে ক্লাস করেন।’

কুমিল্লা স্কুল অব রোবটিক্সে এক ডজন শিক্ষক নিয়মিত পাঠদান করেন। তাদের একজন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সপ্তম ব্যাচের আইসিটি বিভাগের শিক্ষার্থী মাসুদ পারভেজ সবুজ। তিনি বলেন, ‘সপ্তাহে তিন দিন ক্লাস। মাস তিনেকের পথচালায় দারুণ সাড়া পাচ্ছি। এখানে রোবটিক্সের ক্লাসের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের ফ্রিল্যান্সিংও শেখানো হয়।’

স্কুল অব রোবটিক্সের আরেক শিক্ষক জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতকোত্তর করা নুরুল আমিন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘এই প্রতিষ্ঠানে চারটি বিষয়ে ক্লাস নেয়া হয়। বেসিক কম্পিউটার, প্রোগ্রামিং, ফ্রিল্যান্সিং ও রোবটিক্স। এই চার ধরনের ক্লাসে যারাই অংশগ্রহণ করছেন, তারা ভালো করছেন। এ ছাড়া যারা ফ্রিল্যান্সিং করছেন, তাদেরকে আইডি খুলে দেই। সেই আইডি ব্যবহার করে তারা এখনই উপার্জন করতে শুরু করেছেন।’

মাস তিনেকের পথ চালায় বেশ কিছু সাফল্য রয়েছে স্কুল অব রোবটিক্সের। কয়েকজন শিক্ষার্থী বেশ কয়েকটি ড্রোন তৈরি করেছেন। এ ছাড়া ডিজিটাল ডাস্টবিন তৈরি করা হয়েছে, যেখানে ডাস্টবিনের কাছে ময়লা নিয়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঢাকনা খুলে যাবে। স্কুল-কলেজে এই ডিজিটাল ময়লার ঝুড়ি ব্যবহার করা যাবে।

দেশের প্রথম রোবটিক্স স্কুল কুমিল্লায়

এ ছাড়া শিক্ষার্থীরা নেভিগেশন ওয়াচ তৈরি করেছেন। শিক্ষার্থীরা এই ঘড়ি পরে থাকবেন। যদি স্কুল কলেজে আসা-যাওয়ার সময় কেউ তাদের বিরক্ত করে কিংবা কিডন্যাপ করার চেষ্টা করে, সে ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা হাতে থাকা নেভিগেশন ওয়াচে চাপ দিলেই পরিবারের কাছে যন্ত্রটি জানিয়ে দেবে তাদের সন্তানরা বিপদে পড়েছেন। যন্ত্রটিই লোকেশন বলে দেবে।

শিক্ষকরা আশা করছেন তারা আগামী মাস তিনেকের মধ্যে একটি পূর্ণাঙ্গ রোবট তৈরি করতে পারবেন। অনেকগুলো প্রজেক্ট প্রায় শেষের পথে।

চতুর্থ শিল্পবিল্পবকে মাথায় রেখে শিক্ষার্থীরা যাতে সে অনুযায়ী নিজেদের যেন গড়ে তুলতে পারে, এমন ভাবনা প্রতিনিয়ত আন্দোলিত করে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. কামরুল হাসানকে। সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতেই তিনি প্রতিষ্ঠা করেন স্কুল অব রোবটিক্স।

কামরুল হাসান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি আগামীর দিনগুলো হবে প্রযুক্তিময়। যারা প্রযুক্তি থেকে দূরে থাকবেন, তারা পিছিয়ে যাবেন। শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতেই স্কুল অব রোবটিক্স তৈরি করা হয়েছে। সাধারণ পড়ালেখার পাশাপাশি এই স্কুলে যে কেউ পড়াশোনা করতে পারবেন।

‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ভবিষ্যতে নেতৃত্ব দানের জন্য সবাইকে বিজ্ঞান ও গবেষণালব্ধ জ্ঞানে উদ্বুদ্ধ হতে হবে। তাই কুমিল্লা থেকেই এই শিক্ষা বিপ্লব শুরু করেছি। সে জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা ব্যবস্থা চালুর জন্য কুমিল্লা ১৭ উপজেলায় ১৬৭টি প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ ছাড়া দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ১৮৫টি ল্যাব স্থাপন কার্যক্রম চালু রয়েছে। পাশাপাশি এই ১৭ উপজেলায় অর্ধশত রোবটিক্স ক্লাব গঠন করা হয়েছে। আমি বিশ্বাস করি ভবিষ্যতে এই কার্যক্রমের সুফল পাবে দেশ।’

আরও পড়ুন:
কমিটির জন্য জীবনবৃত্তান্ত নিল ঢাবির বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগ
কৃষি গুচ্ছে উপস্থিতি ৮২ শতাংশ, ফল ১৫ সেপ্টেম্বর
গুচ্ছের ফল পুনর্নিরীক্ষণ: আবেদন ১১৬৩, নেই পরিবর্তন
কৃষি গুচ্ছে জবি কেন্দ্রে উপস্থিত ৮১ শতাংশ পরীক্ষার্থী
ঢাবি হলে ছাত্র তোলা নিয়ে ছাত্রলীগে হাতাহাতি

মন্তব্য

p
উপরে