ভারতে ১০০ কৃষকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

ভারতে ১০০ কৃষকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

এই মামলা ‘মিথ্যে ও ইচ্ছে করে তৈরি করা’ বলে দাবি কৃষক সংগঠন সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার। বিবৃতি জারি করে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা দাবি করেছে, কৃষক নেতা হরচরণ সিং ও প্রহ্লাদ সিংসহ ১০০ জনকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়েছে পুলিশ। তাঁদের দাবি, সিরসায় হরিয়ানার ডেপুটি স্পিকার রণবীর গাঙ্গোয়ারের সামনে আন্দোলন করছিলেন তারা।

ভারতের হরিয়ানার ডেপুটি স্পিকারের গাড়ি ভাঙার অভিযোগে ১০০ জন কৃষকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করেছে পুলিশ।

কৃষক নেতাদের বিরুদ্ধে হরিয়ানার ডেপুটি স্পিকার তথা বিজেপি নেতা রণবীর গাঙ্গোয়ারকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগও রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১১ জুলাই। সেদিনই রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করা হয়েছে। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে বৃহস্পতিবার।

যদিও এই মামলা ‘মিথ্যে ও ইচ্ছে করে তৈরি করা’ বলে দাবি কৃষক সংগঠন সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার। বিবৃতি জারি করে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা দাবি করেছে, কৃষক নেতা হরচরণ সিং ও প্রহ্লাদ সিংসহ ১০০ জনকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়েছে পুলিশ। তাঁদের দাবি, সিরসায় হরিয়ানার ডেপুটি স্পিকার রণবীর গাঙ্গোয়ারের সামনে আন্দোলন করছিলেন তারা।

সরকারের তিনটি কৃষি আইনের বিরোধিতা করে গত বছর থেকে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। মাঝে মাঝেই আন্দোলন থেকে বিক্ষিপ্ত সহিংসতার খবর আসে। হরিয়ানায় কৃষকরা সাফ জানিয়েছেন, তাদের দাবি পূরণ না হলে বিজেপি-জননায়ক জনতা পার্টির সরকারকে কোনও জনসমাবেশ করতে দেবেন না তারা।

কয়েকদিন আগে কৃষকদের উদ্দেশে কড়া বার্তা দিয়েছিলেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর। তিনি সাফ বলেছিলেন, ‘তারা আমাদের যতই উসকানি দিক, আমরা শান্ত থেকেছি। কারণ তারা আমাদের নিজেদের হরিয়ানার মানুষ। কিন্তু সীমা ছাড়ালে তা কারোর জন্যই ভাল হবে না।’ এরপরও লাগাতার আন্দোলন চলেছে। তারই মধ্যে প্রকাশ্যে এল ১০০ জনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার খবর।

বিস্ময়করভাবে একই দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবারই অন্য একটি মামলার শুনানি চলাকালে সুপ্রিম কোর্ট পর্যবেক্ষণে জানিয়েছে, ‘রাষ্ট্রদ্রোহ ঔপনিবেশিক আইন। স্বাধীনতার ৭৫ বছর পরেও কি আমাদের এই আইন চাই?’ পাশাপাশি দেশদ্রোহ আইনের অপব্যবহার নিয়েও গুরুত্বপূর্ণ মত প্রকাশ করেছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা। আর তারপরেই জানা গেল কৃষকদের বিরুদ্ধে মামলা করার খবর।

শেয়ার করুন

মন্তব্য