বজ্রপাতে ভারতের তিন রাজ্যে ৬৮ মৃত্যু

বজ্রপাতে ভারতের তিন রাজ্যে ৬৮ মৃত্যু

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করে বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানের বিভিন্ন এলাকায় বজ্রপাতে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা এটি। মৃতদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।’

ভারী বৃষ্টির সঙ্গে ছিল ঘনঘন বজ্রপাত। বৈরী এমন আবহাওয়ায় রোববার ভারতের তিন রাজ্যে বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৬৮ জনের।

ভারতের উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ ও রাজস্থানে রোববার কয়েক দফায় বজ্রপাত হয়। এ সময় উত্তরপ্রদেশে ৪১ জন, রাজস্থানের জয়পুরে ২০ জন ও মধ্য প্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করে বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানের বিভিন্ন এলাকায় বজ্রপাতে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা এটি। মৃতদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।’

বিভিন্ন সূত্রের তথ্যমতে, উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজ জেলায় বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সেখানে ১৪ জন মারা যান। এছাড়া কানপুর ও ফতেহপুর জেলায় মারা গেছে পাঁচজন করে। কৈশম্বীতে চারজন বজ্রপাতে মারা গেছেন। ফিরোজাবাদ, উন্নাও ও রায়বরেলিতে মারা গেছে দুজন করে। হারদোই এবং ঝাঁসিতে মারা গেছে একজন করে। গ্রামাঞ্চলে বেশিরভাগ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। মৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই শিশু এবং মহিলা। নিহতদের পরিবারের জন্য ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

এদিকে উত্তর প্রদেশের মতোই রাজস্থানেও ব্যাপক বজ্রপাতসহ বৃষ্টি হয়। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের, আহত হয়েছে ১৭ জন। মৃতদের মধ্যে ১১ জন জয়পুরের বাসিন্দা ছিলেন। ৪০ মিনিটের মধ্যেই একই ওয়াচ টাওয়ারে দু’বার বজ্রপাত হলে মারা যান ১১ জন। এছাড়া ঢোলপুরের ৩ জন, কোটায় ৪ জন, ঝালাওয়ার ও বারানে একজনের মৃত্যু হয়েছে বজ্রপাতে। আহতদের চিকিৎসার জন্য সেওয়াই মান সিং হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এছাড়াও রোববার মধ্য প্রদেশেও ভারী বৃষ্টিপাত ও ঘনঘন বজ্রপাত হয়। সেখানে বজ্রপাতে মারা গেছে ৭ জন। তাদের মধ্যে ২ জন গ্বালিয়র জেলার ও ২ জন সেওপুর জেলার বাসিন্দা। শিবপুরী, অনুপ্পুর ও বেতুল থেকে একজন করে বাসিন্দার মৃত্যুর খবর মিলেছে।

আরও পড়ুন:
সেলফি তোলার সময় বজ্রপাতে ১১ মৃত্যু

শেয়ার করুন

মন্তব্য