‘তার মৃত্যুতে ক্ষতি হলো আমাদের সংস্কৃতি জগতের’

‘তার মৃত্যুতে ক্ষতি হলো আমাদের সংস্কৃতি জগতের’

‘মুঘল-ই-আজম’ চলচ্চিত্রের একটি দৃশ্যে দিলীপ কুমার। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টা ৫ মিনিটে করা টুইটে মোদি লেখেন, ‘চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি হিসেবে স্মরণ করা হবে দিলীপ কুমার জিকে। তার ছিল অতুলনীয় প্রতিভা, যাতে প্রজন্মের পর প্রজন্মে মুগ্ধ হয়েছে দর্শক। তার মৃত্যুতে ক্ষতি হলো আমাদের সংস্কৃতি জগতের।’

বলিউড কিংবদন্তি দিলীপ কুমারের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, অভিনেতার মৃত্যুতে ক্ষতি হয়েছে সংস্কৃতি জগতের।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বুধবার সকালে এক পোস্টে তিনি এ কথা বলেন।

মুম্বাইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে স্থানীয় সময় বুধবার সকালে মৃত্যু হয় দিলীপ কুমারের। তার বয়স হয়েছিল ৯৮ বছর।

হিন্দুজা হাসপাতালের চিকিৎসক জলিল পারকার দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানান, সকাল সাড়ে ৭টায় মৃত্যু হয় দিলীপের।

বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টা ৫ মিনিটে করা টুইটে মোদি লেখেন, ‘চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি হিসেবে স্মরণ করা হবে দিলীপ কুমার জিকে। তার ছিল অতুলনীয় প্রতিভা, যাতে প্রজন্মের পর প্রজন্মে মুগ্ধ হয়েছে দর্শক। তার মৃত্যুতে ক্ষতি হলো আমাদের সংস্কৃতি জগতের।

‘তার পরিবার, বন্ধুবান্ধব ও অগণিত ভক্তদের প্রতি শোক জানাই। শান্তিতে থাকুন।’

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়, শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ৩০ জুন হাসপাতালে ভর্তি হন দিলীপ। এক মাসের মধ্যে এটি ছিল তার দ্বিতীয়বার হাসপাতালে ভর্তি হওয়া।

এর আগে ৬ জুন দিলীপ হাসপাতালে ভর্তি হলে তাকে অক্সিজেন দেয়া হয়েছিল। সুস্থ হয়ে ১১ জুন বাড়িও ফিরেছিলেন তিনি।

কিডনির রোগ, নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে কয়েক বছর ধরে বারবার হাসপাতালে যেতে হয়েছিল দিলীপ কুমারকে। ৯৪তম জন্মদিনটি তিনি উদযাপন করেছিলেন হাসপাতালে বসেই।

আসছে ডিসেম্বরে তার বয়স ৯৯ বছর হতো।

দিলীপ কুমারের স্ত্রী বিখ্যাত অভিনেত্রী সায়রা বানু। ৫০ বছরের বেশি সময়ের বৈবাহিক সম্পর্ক তাদের।

১৯৬৬ সালে অভিনেত্রী সায়রাকে বিয়ে করেন দিলীপ। ‘গোপি’, ‘সাগিনা’ ও ‘বৈরাগ’ চলচ্চিত্রে দিলীপের সহ-অভিনেত্রী ছিলেন সায়রা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দিলীপ কুমারের অ্যাকাউন্ট থেকে তার মৃত্যুর বিষয়টি প্রথম নিশ্চিত করেন বন্ধু ফয়সাল ফারুকি।

আরও পড়ুন:
কিংবদন্তি দিলীপ কুমারের প্রয়াণ

শেয়ার করুন

মন্তব্য