ফিলিপাইনে ৯২ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত সামরিক বিমান

ফিলিপাইনে ৯২ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত সামরিক বিমান

ফিলিপাইনের সুলু প্রদেশে বিধ্বস্ত বিমান থেকে ধোঁয়া উড়তে দেখা যাচ্ছে। ছবি: টুইটার

বিমানবন্দরে অবতরণের আগে রানওয়ের পথ থেকে বিচ্যুত হয়ে আছড়ে পড়ে বিমানটি। এরপরই আগুন ধরে যায় তাতে। দুর্ঘটনার কারণ এখনও জানা যায়নি।

ফিলিপাইনে ৯২ জন আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হয়েছে একটি সামরিক বিমান। নিহত হয়েছে কমপক্ষে ৪৫ জন।

ফিলিপাইনের সেনাপ্রধান জেনারেল সিরিলিটো সোবেজানা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বিমানের জ্বলন্ত ধ্বংসস্তুপ থেকে কমপক্ষে ৪০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। জীবিতদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

হতাহতদের উদ্ধার করে হেলিকপ্টারে করে নিকটবর্তী হাসপাতালে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, দক্ষিণের সুলু প্রদেশের জোলো দ্বীপে স্থানীয় সময় রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিধ্বস্ত হয় সি-১৩০ বিমানটি।

বিমানবন্দরে অবতরণের আগে রানওয়ের পথ থেকে বিচ্যুত হয়ে আছড়ে পড়ে বিমানটি। এরপরই আগুন ধরে যায় তাতে।

দুর্ঘটনার কারণ এখনও জানা যায়নি।

রাজধানী ম্যানিলা থেকে এক হাজার কিলোমিটার দূরে অবস্থিত জোলো দ্বীপ।

ঘটনাস্থলে কাজ করছে উদ্ধারকর্মীরা। এখনও অনেককে জীবিত উদ্ধারের বিষয়ে আশাবাদী প্রশাসন।

সেনাপ্রধান বলেন, ‘খুবই দুর্ভাগ্যজনকভাবে রানওয়েতে নামতে গিয়ে ব্যর্থ হয় বিমানটি। ইঞ্জিন নতুন করে সচলের চেষ্টা করা হলেও লাভ হয়নি। এরপরই ভূমিতে আছড়ে পড়ে সেটি।’

ফিলিপাইনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ডেলফিন লোরেঞ্জানা জানিয়েছে, আরোহীদের মধ্যে তিনজন বৈমানিক ও পাঁচজন ক্রু ছিলেন।

ফিলিপাইনের বিমানবাহিনীতে যুক্ত হওয়া একদম নতুন বিমান ছিল ধ্বংস হওয়া সি-১৩০। গত ফেব্রুয়ারিতে কেনা হয় এটি।

যেখানে বিমানটি ধ্বংস হয়েছে, সেটি ফিলিপাইনের অন্যতম প্রধান ও বড় সামরিক ঘাঁটি। বিমানটির মাধ্যমে প্রায় নিয়মিক সেনা সদস্য ও সামরিক সরঞ্জাম স্থানান্তর ও পণ্য সরবরাহের কাজ করা হতো।

বিভিন্ন সময় দুর্যোগ পরবর্তী ত্রাণ ও মানবিক সহায়তাও পৌঁছে দিতে ব্যবহার করা হয় সি-১৩০ মডেলের বিমান।

এর আগে গত মাসে ম্যানিলার উত্তরে ক্রো ভ্যালি ট্রেনিং রেঞ্জে রাত্রিকালীন প্রশিক্ষণের সময় বিধ্বস্ত হয় একটি ব্ল্যাক হক হেলিকপ্টার। নিহত হন ছয় আরোহীর সবাই।

আরও পড়ুন:
নেপাল দুর্ঘটনার পর কতটা সুরক্ষিত আকাশভ্রমণ
নেপালে সেই বিমান দুর্ঘটনা এখনও দুঃসহ স্মৃতি

শেয়ার করুন

মন্তব্য