ভারতে গুগল থেকে সরানো হয়েছে ৫৯ হাজার লিঙ্ক

ভারতে গুগল থেকে সরানো হয়েছে ৫৯ হাজার লিঙ্ক

মে মাস থেকে কার্যকর হওয়া নতুন তথ্য প্রযুক্তি আইনে সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলিকে কমপ্লায়েন্স রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছিল। ফেসবুকও এই রিপোর্ট জমা দেবে বলে জানা গিয়েছে। তবে টুইটার কবে রিপোর্ট জমা দেবে, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

ভারত সরকারের নতুন তথ্য প্রযুক্তি আইন মানতে শুরু করেছে গুগল।

মে মাস থেকে কার্যকর হওয়া নতুন তথ্য প্রযুক্তি আইনে সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলিকে কমপ্লায়েন্স রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছিল। সেই নিয়ম মেনেই গুগল মোট ৫৯ হাজার ৩৫০টি লিঙ্ক সরিয়ে দিয়েছে।

কেন্দ্রের কাছে জমা দেয়া গুগলের কমপ্লায়েন্স রিপোর্টে বলা হয়েছে, কেবল এপ্রিল মাসেই গুগলের কাছে ২৭ হাজার ৭১৬টি অভিযোগ জমা পড়েছিল। এরমধ্যে অধিকাংশই কপিরাইটের। সেগুলি যাচাই করেই লিঙ্কগুলি সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে গুগল জানিয়েছে, পরবর্তী রিপোর্ট জমা দিতে দুই মাস দেরি হবে। কারণ প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করতে সময় প্রয়োজন।

অন্যদিকে, দেশীয় সোশ্যাল মিডিয়া কু-ও এই প্রথম রিপোর্ট জমা দিল। কু-এর তরফে জানানো হয়েছে, তাদের কাছে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজারেরও বেশি লিঙ্ক নিয়ে রিপোর্ট জমা পড়েছিল। সেই রিপোর্ট যাচাই করে মোট ১২৫৩টি লিঙ্ক সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়াও ৪ হাজার ২৪৯টি কু পোস্টগুলিকে সতর্ক করা হয়েছে। নতুন আইন অনুযায়ী, ৫৪ হাজার ২৩৫টি কু মেসেজের বিরুদ্ধে অভিযোগের ভিত্তিতে ১ হাজার ৯৯৬টি মেসেজ সাইট থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার ফেসবুকও এই রিপোর্ট জমা দেবে বলে জানা গিয়েছে।

তবে টুইটার কবে রিপোর্ট জমা দেবে, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানানো হয়নি। আইনি সুরক্ষা হারানোর পর থেকেই টুইটারের বিরুদ্ধে একের পর এক এফআইআর করা হয়েছে।

গত ২৬ মে থেকে নতুন তথ্য প্রযুক্তি আইন অনুযায়ী, সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে যে অভিযোগ জমা পড়বে, তার ভিত্তিতে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে সংস্থাগুলিকে। এর জন্য প্রতিটি সংস্থায় একজন কমপ্লায়েন্স অফিসার, গ্রিভেন্স অফিসার ও নোডাল অফিসার নিয়োগ করতে হবে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য