রাশিয়ার মানা সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক মহড়া শুরু

রাশিয়ার মানা সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক মহড়া শুরু

কৃষ্ণ সাগরে সামরিক মহড়া শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউক্রেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন কাইল গ্যান্ট জানান, বেশ কয়েকটি দেশের অংশগ্রহণে এ সামরিক মহড়া আন্তর্জাতিক জলপথে অবাধ চলাচল নিশ্চিতে ঐক্যবদ্ধ অঙ্গীকারের প্রতিফলন।

যুদ্ধজাহাজ ঘিরে রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের চলমান উত্তেজনার মধ্যে কৃষ্ণ সাগর ও ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলে সামরিক মহড়া শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউক্রেন।

রাশিয়ার আপত্তির তোয়াক্কা না করেই সোমবার ওই মহড়া শুরু হয় বলে আল-জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

সোমবার শুরু হয়ে ওই মহড়া চলবে দুই সপ্তাহ। যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্র ন্যাটোভুক্ত দেশ এবং ইউক্রেনের প্রায় ৩০টি যুদ্ধজাহাজ ও ৪০টির মতো বিমান মহড়ায় অংশ নিচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসকারী যুদ্ধজাহাজ ‘ইউএসএস রোজ’ এরই মধ্যে ইউক্রেনের ওডেসা বন্দরে পৌঁছেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন কাইল গ্যান্ট জানান, বেশ কয়েকটি দেশের অংশগ্রহণে এ সামরিক মহড়া আন্তর্জাতিক জলপথে অবাধ চলাচল নিশ্চিতে ঐক্যবদ্ধ অঙ্গীকারের প্রতিফলন।

কৃষ্ণ সাগরে সামরিক মহড়ার কারণে সামরিক জোট ন্যাটোভুক্ত দেশের সঙ্গে রাশিয়ার উত্তেজনা বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহে রাশিয়া দাবি করেছিল, ক্রিমিয়া উপকূলের কাছে যুক্তরাজ্যের যুদ্ধজাহাজ দেশটির সমুদ্রসীমায় চলে আসে। এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করায় ওই যুদ্ধজাহাজের পথে সতর্কতামূলক গুলি ও বোমা ছোড়া হয়।

রাশিয়া সরকারের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ নিজেদের সমুদ্রসীমায় যুক্তরাজ্যের যুদ্ধজাহাজ চলাচলকে ‘ইচ্ছাকৃত ও পরিকল্পিত উসকানি’ হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন।

অবশ্য যুক্তরাজ্যের দাবি ছিল, আন্তর্জাতিক আইন মেনেই ইউক্রেনের জলসীমা দিয়ে যাচ্ছিল তাদের যুদ্ধজাহাজ।

ইউরোপের পূর্বে কৃষ্ণ সাগরের উত্তরাঞ্চলীয় উপকূলে ক্রিমিয়া উপদ্বীপ অবস্থিত।

২০১৪ সালে পূর্ব ইউরোপের দেশ ইউক্রেনের কাছ থেকে ক্রিমিয়া দখল করে ওই অঞ্চলকে নিজের বলে দাবি করে আসছে রাশিয়া।

তবে ক্রিমিয়া রাশিয়ার নয় বরং ইউক্রেনের অংশ বলে এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত।

আরও পড়ুন:
মায়ামিতে ধসে পড়া ভবনের মূল নকশায় ত্রুটি
মায়ামিতে ভবনধস: এখনও নিখোঁজ ১৫৯
মায়ামিতে বহুতল ভবন ধসে নিহত বেড়ে ৪, নিখোঁজ ১০০
বন্দুক সহিংসতা নিয়ন্ত্রণে বাইডেনের পরিকল্পনা প্রকাশ
আগ্নেয়াস্ত্র হাতে ভয় দেখানো শ্বেতাঙ্গ দম্পতি দোষী সাব্যস্ত

শেয়ার করুন

মন্তব্য