‘করোনা দেবীর’ কাছে প্রার্থনা গ্রামবাসীর

‘করোনা দেবীর’ কাছে প্রার্থনা গ্রামবাসীর

করোনার সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে ‘করোনা দেবীর’ সামনে প্রার্থনা করেন উত্তর প্রদেশের গ্রামবাসী। ছবি: এএনআই

সঙ্গীতা নামের এক গ্রামবাসী শুক্রবার রয়টার্সকে বলেন, ‘মায়ের আশীর্বাদে আমাদের গ্রাম, গ্রামবাসী থেকে শুরু করে সবাই করোনা থেকে মুক্তি পাবে।’

করোনাভাইরাসের ভয়াবহ সংক্রমণের হাত থেকে মুক্তি পেতে বেদি নির্মাণ করা হয়েছে। তাতে বসানো হয়েছে ‘করোনা দেবীর’ মূর্তি। ঐশ্বরিক হস্তক্ষেপে করোনা দূর হবে, এই আশায় প্রতিদিনই দেবীর সামনে প্রার্থনা হয়।

ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের প্রতাপগড় শহরের শুখলাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

চলতি সপ্তাহে উজ্জ্বল হলুদ রঙের বেদিতে ‘করোনা মাতাকে’ বসানো হয়। দেবীর সামনে পবিত্র পানি ও ফুল রেখে প্রার্থনা করেন শুখলাপুর গ্রামের উপাসকরা।

সঙ্গীতা নামের এক গ্রামবাসী শুক্রবার রয়টার্সকে বলেন, ‘মায়ের আশীর্বাদে আমাদের গ্রাম, গ্রামবাসী থেকে শুরু করে সবাই করোনা থেকে মুক্তি পাবেন।’

চলতি বছরের এপ্রিল ও মে মাসে করোনার দ্বিতীয় ধাক্কায় ব্যাপক সংক্রমণ দেখা দেয় ভারতে। প্রতিদিন লাখের ওপর মানুষের দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়া যায়। এর কারণে মৃত্যু হয় লাখ লাখ ভারতীয়র।

‘করোনা দেবীর’ কাছে প্রার্থনা গ্রামবাসীর

শুক্রবার দুই মাসের বেশি সময় পর ৯০ হাজারের কম মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ দেখা যায়। ওই দিন ৮৪ হাজার ৩৩২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

তবে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের শঙ্কা, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে করোনার তৃতীয় ধাক্কায় পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতে পারে।

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৯৩ লাখ ৫৯ হাজার ১৫৫। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৬৭ হাজার ৮১ জনের।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে চলে আসার পথে থাকলেও জনসাধারণকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের ব্রিফিংয়ে যুগ্ম সচিব লাভ আগারওয়াল বলেন, ‘কোভিড থেকে সুরক্ষায় আমাদের দৈনন্দিন চলাফেরায় যথাযথ আচরণ অব্যাহত রাখতে হবে।’

আরও পড়ুন:
নারী পরিচালকের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা বিজেপির
শিশুদের রেমডেসিভির দেয়া যাবে না: ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়
মোদিকে দাড়ি কাটতে ১০০ টাকা পাঠালেন চা বিক্রেতা
ভারতে করোনা আক্রান্ত শিশুদের রেমডিসিভির প্রয়োগে মানা
তালিকা সংশোধন, ভারতে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৬ হাজার

শেয়ার করুন

মন্তব্য