ভারতে স্পুৎনিক ভি’র উৎপাদন শুরু

ভারতে স্পুৎনিক ভি’র উৎপাদন শুরু

স্পুৎনিক ভি ভারতে জরুরিভাবে ব্যবহারের অনুমোদন পায় চলতি বছরের ১২ এপ্রিল। মে মাসের শুরুতেই ভারতে এসে পৌঁছায় ওই টিকার দেড় লাখ ডোজ। ভারতে স্পুৎনিক ভি টিকার আরেক সহযোগী সংস্থা রেড্ডিস ল্যাবরেটরির  উদ্যোগে রাশিয়ান টিকা দেয়া শুরু হয় ১৪ মে হায়দ্রাবাদে।

ভারতে করোনাভাইরাসের রাশিয়ার টিকা স্পুৎনিক ভির উৎপাদন শুরু হয়েছে।

রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ) এবং ভারতীয় ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা পানাসিয়া বায়োটেক সোমবার এক যৌথ বিবৃতি দিয়ে এ কথা জানায়।

হিমাচল প্রদেশের বাড্ডিতে পানাসিয়া বায়োটেকের ফ্যাক্টরিতে উৎপাদিত কোভিড-১৯ টিকার প্রথম ব্যাচটি মান নিয়ন্ত্রণের জন্য রাশিয়ার গামালিয়া সেন্টারে পাঠানো হবে।

আরডিআইএফ ও প্যানাসিয়া বায়োটেকের একটি যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, এই গ্রীষ্মে টিকার সম্পূর্ণ মাত্রায় উৎপাদন শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

গত এপ্রিলে ঘোষণা করা হয়েছিল, প্রতি বছর আরডিআইএফ ও প্যানাসিয়া স্পুৎনিক ভির ১০ কোটি ডোজ উৎপাদন করবে।

আরডিআইএফের প্রধান কার্যনিবাহী ক্যারিল দিমিত্রোভ বলেছেন, স্পুৎনিক ভি’র উৎপাদন করোনাভাইরাস সংক্রমণের তীব্র পর্যায় থেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পিছিয়ে যাবার ভারত সরকারের প্রচেষ্টাকে সাহায্য করবে। এবং শুধু ভারতই নয়, বিশ্বের অন্য দেশগুলোতে ভাইরাসের বিস্তাররোধে সহায়তার জন্য পরবর্তী পর্যায়ে এই টিকা রপ্তানি করা হবে।

টিকা তৈরির বিষয়ে পানাসিয়া বায়োটেকের এমডি রাজেশ জৈনও একই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

স্পুৎনিক ভি ভারতে জরুরিভাবে ব্যবহারের অনুমোদন পায় চলতি বছরের ১২ এপ্রিল। মে মাসের শুরুতেই ভারতে এসে পৌঁছায় ওই টিকার দেড় লাখ ডোজ। ভারতে স্পুৎনিক ভি টিকার আরেক সহযোগী সংস্থা রেড্ডিস ল্যাবরেটরির উদ্যোগে রাশিয়ান টিকা দেয়া শুরু হয় ১৪ মে হায়দ্রাবাদে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য