× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
ভারত সফর বাতিল করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী
google_news print-icon

ভারত সফর বাতিল করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ভারত-সফর-বাতিল-করলেন-ব্রিটিশ-প্রধানমন্ত্রী
বরিস জনসন বলেছেন, এই মুহূর্তে কোথাও সফরে যাওয়ার চেয়ে দেশের করোনা পরিস্থিতিতে নজর দেয়াটা বেশি জরুরি।

চলতি মাসের শেষ দিকে ভারত সফরে আসার পরিকল্পনা বাতিল করেছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে নিজ দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি তদারকি করা দরকার তার।

মঙ্গলবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিটের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কথা বলেছেন। দুঃখ প্রকাশ করে জানিয়েছেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী চলতি মাসের শেষ দিকে ভারত সফরে যেতে পারছেন না তিনি।’

করোনাভাইরাস সংক্রমণ যুক্তরাজ্যে ফের ছড়িয়ে পড়েছে। দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে করোনার নতুন একটি ধরণ, যা ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রামক।

হাসপাতালগুলোতে উপচে পড়ছে করোনারোগী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সোমবার আবার লকডাউন দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।

বিবৃতিতে বরিস জনসন বলেছেন, এই মুহূর্তে কোথাও সফরে যাওয়ার চেয়ে দেশের করোনা পরিস্থিতিতে নজর দেয়াটা বেশি জরুরি।

নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া ব্রেক্সিট কার্যকর হয়েছে। বিশ্ব বাণিজ্যে দেশগুলোর সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করতে হচ্ছে যুক্তরাজ্যকে।

ভারতের সঙ্গে একাধিক বাণিজ্য চুক্তি করতেই ২৬ জানুয়ারি দেশটির রিপাবলিকান প্যারেড ডেতে নয়াদিল্লি সফরে আসার কথা ছিল জনসনের।

তবে আপাতত না পারলেও চলতি বছরের প্রথমার্ধেই ভারত সফরে আসার ব্যাপারে আশাবাদী জনসন। জানিয়েছেন, যুক্তরাজ্যে অনুষ্ঠেয় জি ৭ সম্মেলনে মোদি যোগ দেয়ার আগেই ভারতে আসবেন তিনি।

আরও পড়ুন:
কঠোর লকডাউনে যুক্তরাজ্য
যুক্তরাজ্যফেরত যাত্রীদের কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক
বড়দিনে একা রানি এলিজাবেথ

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
Son sentenced to death for killing his parents

মা-বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড

মা-বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড প্রতীকী ছবি
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের ২৭ মার্চ সকালে গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকা দক্ষিণ ইউনিয়নের সুনামপুর গ্রামে বাড়ির সামনের গাছ কাটা নিয়ে আতিক হোসেন খানের সঙ্গে ঝগড়া হয় তার বাবা করিম খান ও মা মিনারা বেগমের সঙ্গে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আতিক উত্তেজিত হয়ে হাতে থাকা কোদাল ও দা দিয়ে বাবা ও মায়ের ওপর হামলা করে।

সিলেটে মা-বাবাকে হত্যার দায়ে আতিক হোসেন খান নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সিলেটের সিনিয়র দায়রা জজ মশিউর রহমান চৌধুরী বৃহস্পতিবার সকালে এ রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কুশলী অ্যাডভোকেট নিজাম উদ্দিন আহমদ জানান, সকল সাক্ষ্য প্রমাণে আতিকুর রহমান দোষী সাব্যস্ত হওয়ার আদালত মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন।

তবে, রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন বলে জানান আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের ২৭ মার্চ সকালে গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকা দক্ষিণ ইউনিয়নের সুনামপুর গ্রামে বাড়ির সামনের গাছ কাটা নিয়ে আতিক হোসেন খানের সঙ্গে ঝগড়া হয় তার বাবা করিম খান ও মা মিনারা বেগমের সঙ্গে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আতিক উত্তেজিত হয়ে হাতে থাকা কোদাল ও দা দিয়ে বাবা ও মায়ের ওপর হামলা করে।

স্থানীয়রা তাদের চিৎকার শুনে এগিয়ে আসলে ছেলে আতিক পালিয়ে যান। এ সময় ঘটনাস্থলেই করিম খান মৃত্যুবরণ করেন। তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা মিনারা বেগমকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর পরে তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় আতিকের ভাই দেলোয়ার হোসেন গোলাপগঞ্জ থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

আরও পড়ুন:
৩ শিশুকে পুড়িয়ে হত্যার মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড
সন্তান হত্যায় মায়ের যাবজ্জীবন, প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড
ফরিদপুরে স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
শিশু হত্যার ১২ বছর পর দুইজনের মৃত্যুদণ্ড
স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ১০ বছর পর মৃত্যুদণ্ড

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The dead body of the easybike driver was recovered

ইজিবাইকচালকের গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার

ইজিবাইকচালকের গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার হালুয়াঘাট থানা, ময়মনসিংহ। ছবি: সংগৃহীত
হালুয়াঘাট থানার ওসি মো. শাহীনুজ্জামান খান জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ইজিবাইক ছিনতাই করতে চালককে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে এক ইজিবাইক চালকের গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উপজেলার কৈচাপুর ইউনিয়নের আতকাপাড়া সেতুর পাশ থেকে বৃহস্পতিবার সকালে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

প্রাণ হারানো ২৮ বছর বয়সী বাদশা মিয়া একই ইউনিয়নের পশ্চিম বালিচান্দা গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহীনুজ্জামান খান জানান, গত ২৯ মার্চ ইফতারি শেষে ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন বাদশা মিয়া। কিন্তু রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। বৃহস্পতিবার সকালে আতকাপাড়া সেতুর পাশে গলা কাটা মরদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহের পকেটে থাকা গাড়ির ব্যাটারির রশিদ দেখে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়।

তিনি আরও জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ইজিবাইক ছিনতাই করতে চালককে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

আরও পড়ুন:
সন্তানের মৃত্যুর শোকে মায়ের ‘আত্মহত্যা’
যুবকের মাটি চাপা মরদেহ উদ্ধার, পরিচয় নিয়ে পুলিশের সংশয়
আয়নীর বস্তাবন্দি মরদেহ প্রতিদিন দেখে আসত রুবেল
নিকলীতে আবাসিক হোটেলে তরুণীর ‘মৃত্যু’, যুবক আটক
উখিয়ায় মাটি চাপা পড়ে তিন রোহিঙ্গা নিহত

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Mothers suicide due to childs death

সন্তানের মৃত্যুর শোকে মায়ের ‘আত্মহত্যা’

সন্তানের মৃত্যুর শোকে মায়ের ‘আত্মহত্যা’
মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল আরও জানান, মরদেহটি একটি আম গাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা প্রাথমিক ধারণা করছি ছেলের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে হয়তো বছিরন খাতুন গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মেহেরপুরে ছেলের মৃত্যুর ১০ দিনের মাথায় আম গাছ থেকে মায়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারণা ছেলের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে মা বছিরন খাতুন আত্মহত্যা করেছেন।

জেলার মুজিবনগর উপজেলার ভবরপাড়া গ্রামের একটি আম গাছের ডাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে ঝুলন্ত মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

৩ সন্তানের জননী ৫০ বছর বয়সী বছিরন খাতুন ওই একই এলাকার মাছ ব্যবসায়ী রমজান আলীর স্ত্রী।

মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল নিউজবাংলাকে এসব তথ‍্য নিশ্চিত করেছেন।

স্বজনরা জানান, নিহত বছিরনের ছোট ছেলে রাসেল ১০দিন আগে বাড়ির কাজ-কর্ম নিয়ে মায়ের সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে অভিমানে নিজ বাড়িতে থাকা আগাছানাশক কীটনাশক পান করেন।

পরে পরিবারের লোকজন ও প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে প্রথমে মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়।

এ সময় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে সেখানে থাকা চিকিৎসক তাকে মেহেরপুর ও পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বুধবার তার মৃত্যু হয় এবং বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

ছেলের দাফনের পর মা বছিরন খাতুন বাড়ির বাহিরে গিয়ে চলে আসে, এরপরে রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পরিবারের লোকজন তাকে আর খুঁজে পায়নি।

পরে স্থানীয়রা ভোরে একটি আম গাছে বছিরনের ঝুলন্ত মরদেহ দেখে পরিবারের লোকজনকে খবর দেয়।

মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল আরও জানান, মরদেহটি একটি আম গাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা প্রাথমিক ধারণা করছি ছেলের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে হয়তো বছিরন খাতুন গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

আরও পড়ুন:
যুবকের মাটি চাপা মরদেহ উদ্ধার, পরিচয় নিয়ে পুলিশের সংশয়
আয়নীর বস্তাবন্দি মরদেহ প্রতিদিন দেখে আসত রুবেল
নিকলীতে আবাসিক হোটেলে তরুণীর ‘মৃত্যু’, যুবক আটক
উখিয়ায় মাটি চাপা পড়ে তিন রোহিঙ্গা নিহত
চট্টগ্রামে বর্ষা, আয়াতের পর এবার আয়নীর মরদেহ উদ্ধার

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The death of a university student who jumped from the 10th floor

১০ তলা থেকে লাফিয়ে পড়া বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর মৃত্যু

১০ তলা থেকে লাফিয়ে পড়া বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর মৃত্যু ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ। ছবি: নিউজবাংলা
ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি শেরেবাংলা থানাকে জানানো হয়েছে।

রাজধানীর শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হলের ১০ তলা ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত ছাত্রীর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

প্রাণ হারানো ২৬ বছর বয়সী মারিয়া আক্তার শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

মারিয়া আক্তারের ভগ্নিপতি আশরাফ আলী বলেন, ‘মারিয়া শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা আবাসিক হলের সপ্তম তলায় থাকত। গত ২৩ মার্চ সকাল ৯টার দিকে ওই আবাসিক হলের দশম তলার ছাদের ওপর থেকে নিচে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে মারিয়া। ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেলেও সে গুরুতর আহত হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরে তাকে উদ্ধার করে সহপাঠী ও হল কর্তৃপক্ষ প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল নিয়ে যায়। পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। ওইদিনই চিকিৎসক তাকে আইসিইউতে রেফার করে। বৃহস্পতিবার সকালের দিকে আইসিইউর দায়িত্বরত চিকিৎসক মারিয়াকে মৃত বলে জানায়।’

মারিয়া আক্তারের মায়ের বরাত দিয়ে আশরাফ আলী আরও বলেন, ‘পরীক্ষা দিতে না পারায় মারিয়া মানসিকভাবে হতাশাগ্রস্থ ছিল। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে সুপারিশ করার পর ব্যর্থ হওয়ায় সে এই আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।’

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি শেরেবাংলা থানাকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:
ফ্লাইওভারের ঢালে বাসচাপায় গেল শিক্ষানবিশ আইনজীবীর প্রাণ
পটুয়াখালীতে ছুরিকাঘাতে দুই শিক্ষার্থীকে হত্যা
সায়েন্স ল্যাব এলাকায় বিস্ফোরণে আহত ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু
সিলেটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই শ্রমিকের মৃত্যু
বহুতল ভবনের সাত তলা থেকে পড়ে শ্রমিক নিহত

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The main accused in the case of Jasmins detention has been arrested

জেসমিনকে আটকের সেই মামলার প্রধান আসমি গ্রেপ্তার

জেসমিনকে আটকের সেই মামলার প্রধান আসমি গ্রেপ্তার আল-আমিন। ছবি: সংগৃহীত
গত ২২ মার্চ নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড় এলাকা থেকে র‌্যাবের হাতে আটক হন জেসমিন। ২৪ মার্চ সকাল ৯টার দিকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নওগাঁয় র‌্যাব হেফাজতে থাকা অবস্থায় মারা যাওয়া সুলতানা জেসমিনকে যে অভিযোগের মামলায় আটক করা হয়েছিল, ওই মামলার প্রধান আসামি আল-আমিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রাজধানীর শাহজাহানপুর থেকে মঙ্গলবার বিকেলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৩-এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ফারজানা হক।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আল-আমিন প্রতারক চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। চক্রটি রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে কর্মরত যুগ্ম সচিব মো. এনামুল হকের নাম পরিচয় ও ব্যবহার করে ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে চাকরিপ্রত্যাশী বেকার যুবকদের কাছ থেকে সরকারি চাকরি পাইয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘সেই কর্মকর্তা বিষয়টি জানতে পারলে ২৩ মার্চ আল-আমিন ও তার সহযোগী সুলতানা জেসমিনসহ অজ্ঞাতনামা আরও দুই থেকে তিনজনকে আসামি করে রাজশাহীর রাজপাড়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। পরবর্তী সময়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।’

র‌্যাব জানায়, আল-আমিন বিকাশ, নগদ ও মোবাইলে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসায়ী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে তার এই মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসার সুযোগ নিয়ে প্রতারণামূলকভাবে সরকারি উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের নাম, পদবি ব্যবহার করে চাকরিপ্রত্যাশীদের কাছ থেকে অর্থ আত্মসাৎ সিন্ডিকেটের সঙ্গে কাজ করে আসছেন।

৪৫ বছর বয়সী সুলতানা জেসমিন নওগাঁ শহরের কালিতলা মহল্লার নওগাঁ পৌরসভা ও চন্ডিপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে অফিস সহকারী পদে চাকরি করতেন। শহরের জনকল্যাণ মহল্লার একটি ভাড়া বাসায় থেকে নিয়মিত অফিসে যাতায়াত করতেন তিনি।

গত ২২ মার্চ নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড় এলাকা থেকে র‌্যাবের হাতে আটক হন জেসমিন। ২৪ মার্চ সকাল ৯টার দিকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

জেসমিনের মামা ও নওগাঁ পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর নাজমুল হক মন্টু বলেন, ‘আমার ভাগ্নিকে র‌্যাব আটকের পর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজখবর নিতে থাকি। পরে জানতে পারি যে, সে নওগাঁ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেখানে গিয়ে দেখি র‌্যাবের লোকজন তার চারপাশে। এর কিছুক্ষণ পর তাকে রাজশাহী হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে সে মারা যায়।’

জেসমিনের মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন উঠলে হাইকোর্ট তার ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনসহ যাবতীয় তথ্য তলব করে। একই সঙ্গে র‌্যাবের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, বাহিনীর কেউ দায়ী থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
র‍্যাব হেফাজতে নারীর মৃত্যু: ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন চায় হাইকোর্ট

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The police doubt about the identity of the young mans body recovered from under the ground

যুবকের মাটি চাপা মরদেহ উদ্ধার, পরিচয় নিয়ে পুলিশের সংশয়

যুবকের মাটি চাপা মরদেহ উদ্ধার, পরিচয় নিয়ে পুলিশের সংশয়
কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ দাউদ জানান, পরিবারের লোকজন একেক সময় একেক কথা বলছে। এ অবস্থায় মরদেহটি আলিফের কি না, এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছেনা।

কিশোরগঞ্জে মাটির নিচ থেকে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করছে পুলিশ। যুবকের পরিবারের সদস্যরা মরদেহটি শনাক্ত করলেও তার পরিচয় নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে পুলিশ।

সদর উপজেলার রশিদাবাদ ইউনিয়নের উলুহাটি এলাকায় বিলের পাড় থেকে বুধবার বিকেল ৫টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

মৃত ২৩ বছর বয়সী সোহান আহমেদ আলিফ পেশায় দর্জি। তিনি রশিদাবাদ ইউনিয়নের বেরুয়াইল (কলাপাড়া) গ্রামের বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম বাচ্চুর ছেলে।

রশিদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জাহেদুল ইসলাম জানান, যুবকের মা হাওয়া বেগম মরদেহটি দেখে তার ছেলে আলিফের বলে শনাক্ত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাতে কিশোরগঞ্জ মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও রশিদাবাদ ইউনিয়নের বিট কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ২০ মার্চ বিকেলে তার নিজ বাড়ি বেরুয়াইল থেকে বের হন আলিফ। পরে আর বাড়ি ফিরে আসেননি। তার স্বজনরা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও কোনো সন্ধান পাননি।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে আলিফের মা হাওয়া বেগম কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। বৃহস্পতিবার সকালে মুষলধারে বৃষ্টি হলে বিলপাড় থেকে মাটি সরে যায়। ওই স্থানে কাক ও শিয়ালের বিচরণ দেখে স্থানীয়রা সেখানে ছুটে যায়। লোকজন সেখানে মাটিচাপা দেয়া মরদেহের অংশ বিশেষ দেখতে পায়। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ উদ্ধার হওয়া মরদেহটি আলিফের কি না, সে ব্যাপারে সংশয় প্রকাশ করেছেন।

তিনি জানান, পরিবারের লোকজন একেক সময় একেক কথা বলছে। এ অবস্থায় মরদেহটি আলিফের কি না, এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছেনা।

তিনি আরও জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
থানায় জিডি করতে গিয়ে বাবার মরদেহ দেখল ছেলে
রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের গাড়িচালকের বস্তাবন্দি মরদেহ
স্ত্রী-সন্তানের মরদেহ ঘরে, গাছে ঝুলছিল স্বামীর
ফ্লাইওভারের ঢালে বাসচাপায় গেল শিক্ষানবিশ আইনজীবীর প্রাণ
বরিশালে হোটেল কর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Bloombergs praise of Sheikh Hasina is an indication of A League coming to power again

শেখ হাসিনার প্রশংসায় ব্লুমবার্গ, ফের আ.লীগের ক্ষমতায় আসার ইঙ্গিত

শেখ হাসিনার প্রশংসায় ব্লুমবার্গ, ফের আ.লীগের ক্ষমতায় আসার ইঙ্গিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি
যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়ক ভিত্তিক অর্থ বিষয়ক সংবাদ সংস্থাটি নিবন্ধে বাংলাদেশে আগামী সাধারণ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার চতুর্থ মেয়াদে নির্বাচিত হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে।

বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক সঙ্কটের মধ্যেও ‘সময়োচিত সংস্কার পদক্ষেপ’ গ্রহণের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করে নিবন্ধ ছেপেছে বিশ্বখ্যাত সংবাদ সংস্থা ব্লুমবার্গ।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়ক ভিত্তিক অর্থ বিষয়ক সংবাদ সংস্থাটি নিবন্ধে বাংলাদেশে আগামী সাধারণ নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ চতুর্থ মেয়াদে সরকারে আসবে হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে। খবর বাসসের

ব্লুমবার্গ লিখেছে, ‘তিনি (শেখ হাসিনা) টানা চতুর্থ মেয়াদে জয়ী হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।’ একই সঙ্গে শেখ হাসিনাকে পুরো তহবিল পেতে আরও সংস্কার করতে হবে বলেও পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এতে বলা হয়, শেখ হাসিনা ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠেয় জাতীয় নির্বাচনে টানা চতুর্থ মেয়াদে সম্ভাব্য জয়ী হওয়ার কারণ এটা নয় যে, তার অনেক প্রতিপক্ষ কারাগারে আছেন বা আইনি ফাঁদে পড়েছেন।

নিবন্ধে বলা হয়েছে, শেখ হাসিনার বিজয়ের কারণ ‘কেবলমাত্র তার অনেক প্রতিপক্ষ কারাগারে আছে বা আইনি ফাঁদে পড়েছেন-এটা নয় বরং অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে তার সাফল্যের কারণেই এটা ব্যাপকভাবে প্রত্যাশিত।’

আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগে অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির সময়োপযোগী সংস্কারের জন্য আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণ প্রাপ্তির পটভূমিতে ব্লুমবার্গ দুটি উপ-শিরোনামসহ ‘বাংলাদেশ লিডার বেটস আইএমএফ-ম্যান্ডেটেড রিগর উইল পে অফ ইন পোলস’ শিরোনামের এই নিবন্ধটি প্রকাশ করে।

এতে বলা হয়, পুরো তহবিল পেতে শেখ হাসিনাকে আরও সংস্কার করতে হবে।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা টানা চতুর্থবারের মতো জয়ী হবেন বলে আশা করা হচ্ছে। ব্যালট বাক্সে পরাজিত হওয়ার ভয়ে বিশ্বজুড়ে সরকারি দলের নেতারা প্রায়শই আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সঙ্গে সম্মত সংস্কার বাস্তবায়নে পিছিয়ে পড়ছেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের মতো নন।

ব্লুমবার্গ বলছে, তার (শেখ হাসিনা) দ্রুত আইএমএফ ম্যান্ডেটের বাস্তবায়ন দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটি ঘুরে দাঁড়িয়েছে, যেখানে পাকিস্তান এখনও জ্বালানি ভর্তুকি নিয়ে দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে। শ্রীলঙ্কা স্থানীয় পৌরসভা নির্বাচন বিলম্বিত করেছে, কারণ, তারা গত সপ্তাহে আইএমএফ তহবিল পেতে কর এবং সুদের হার বাড়িয়েছে।

গত জুলাই মাসে আইএমএফের সহায়তা চাওয়া দক্ষিণ এশিয়ার তিনটি দেশের মধ্যে সর্বশেষ ছিল বাংলাদেশ। দেশটি দ্রুত জ্বালানি মূল্য বৃদ্ধির পর প্রথম ঋণ অনুমোদন পেয়েছে। শেখ হাসিনা এই পদক্ষেপ নিতে কোনো কুন্ঠা বোধ করেননি।

মন্তব্য

p
উপরে