× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
আমরা মারা পড়বো
google_news print-icon

‘আমরা মারা পড়ব’

আমরা-মারা-পড়ব
প্রায় এক হাজার অভিবাসী ক্যাম্পের অমানবিক পরিবেশে আটকা পড়ে আছে। দাতা সংস্থাগুলোর সরবরাহ করা অল্প কিছু খাবার ছাড়া তাদের জন্য নেই আর কোনো সুযোগ-সুবিধা।

বসনিয়া ও হারজেগোভিনায় চলছে ভারী তুষারপাত। হঠাৎ তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় দেশজুড়ে বেড়েছে শীতের তীব্রতা।

এমন পরিস্থিতিতে সেখানকার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় বিহাক শহরের অভিবাসী ক্যাম্পের বাসিন্দাদের দুর্ভোগ বেড়েছে কয়েক গুণ।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বুধবার আগুন লেগে পুড়ে যায় লিপা ক্যাম্পের বেশির ভাগ তাঁবু। অভিবাসীরা অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে তুষারপাত ও তীব্র শীত থেকে বাঁচতে আশ্রয় নিয়েছে স্লিপিং ব্যাগে।

রেড ক্রিসেন্ট শনিবার সেখানে খাবার-পানি সরবরাহে গেলে নিজেদের অসহায়ত্বের কথা জানান অভিবাসীরা।

‘এখানে আমাদের অবস্থা জানোয়ারের মতো। এমনকি জানোয়ারও আমাদের চেয়ে ভালোভাবে থাকে। এভাবে আমরা এখানে মারা পড়ব। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন’, বলছিলেন কাসিম নামের এক পাকিস্তানি অভিবাসী।

‘আমরা মারা পড়ব’

এমনিতেই ক্যাম্পটি অভিবাসী ও শরণার্থীদের বসবাসের অনুপযোগী। এ নিয়ে বসনিয়া সরকার আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাগুলোর তোপের মুখে পড়েছে বিভিন্ন সময়। আগুন লাগার এক সপ্তাহ পরও সে দেশের সরকার ক্যাম্পের বাসিন্দাদের স্থানান্তরের ব্যবস্থা করতে পারেনি।

প্রায় এক হাজার অভিবাসী সেখানে অমানবিক পরিবেশে আটকা পড়ে আছে। দাতা সংস্থাগুলোর সরবরাহ করা অল্প কিছু খাবার ছাড়া তাদের জন্য নেই আর কোনো সুযোগ-সুবিধা।

পুড়ে যাওয়া ক্যাম্পের একটি বড় তাঁবুর মধ্যে ছোট ছোট খুপড়ি বানিয়ে থাকছেন পশ্চিম ইউরোপগামী এই অভিবাসীরা।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) দেশটির সরকারকে এই অভিবাসীদের শীতকালীন দুর্ভোগের বিষয়ে সতর্ক করেছিল। নিজেদের মতবিরোধ আপাতত ভুলে গিয়ে তাদের রক্ষায় পদক্ষেপ নিতে রাজনীতিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন সংস্থার কর্মকর্তারা।

ইন্টারন্যশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশনের (আইওএম) বসনিয়ার চিফ অফ মিশন পিটার ভ্যান ডের অয়েরায়ের্ট এক টুইটবার্তায় বলেন, ‘ক্যাম্পের মানবিক বিপর্যয় শেষ হচ্ছে না। তুষারপাত ও শূন্যের নিচের তাপমাত্রায় সেখানে তাদের জন্য নেই উষ্ণতার কোনো ব্যবস্থা। এভাবে কারো দিন কাটানোর কথা নয়। তাদের জন্য এখনই সাহসী পদক্ষেপ নেয়া দরকার।’

‘আমরা মারা পড়ব’

প্রশাসন এই অভিবাসীদের সাময়িকভাবে বিহাকের আরেকটি এলাকায় নিয়ে রাখার পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু সেখানকার বাসিন্দারা তাতে প্রতিবাদ জানালে সে পরিকল্পনা ভেস্তে যায়।

ড্যানিশ রিফিউজি কাউন্সিল, ইউনাইটেড রিফিউজি এজেন্সি ও ইউএন মাইগ্রেশন শনিবার এক বার্তায় এসব অভিবাসীর জন্য দ্রুত পদক্ষেপ নিতে কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

বার্তায় বলা হয়, ‘ক্যাম্পের একমাত্র তাঁবুটি যেকোনো সময় তুষারপাতে পড়ে যেতে পারে। উষ্ণতার ব্যবস্থা না থাকায় সেখানকার বাসিন্দারা ফ্রস্টবাইট, হাইপোথার্মিয়াসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।’

জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ না নেয়া হলে তারা ঝুঁকিতে পড়বেন বলে ওই বার্তায় সতর্ক করা হয়।

আরও পড়ুন:
রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
There is no traffic jam but there will be pressure on the road Kader

যানজট নেই, তবে সড়কে চাপ আছে: কাদের

যানজট নেই, তবে সড়কে চাপ আছে: কাদের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি
সেতুমন্ত্রী বলেন, এবার চাপ আছে, যানজট নেই। সড়কে চাপ হবে। তবে রাস্তার জন্য যানজট হয়নি। গত কয়েকটি বছর ঈদ যাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে। ফিরতি যাত্রা কয়েকটি দুর্ঘটনা হয়েছে। এবার আমরা আরও সতর্ক হয়েছি। রাস্তার জন্য যানজট হয়নি। কোরবানি ঈদের সময় পশুর হাট চাপ সৃষ্টি করে। পশুবাহী গাড়ি, পশুর হাট যত্রতত্র বসিয়ে জনদুর্ভোগ করবেন না।

ঈদযাত্রায় এবার সড়কে যানজট নেই তবে চাপ আছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুক্রবার এক বিফ্রিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, এবার চাপ আছে, যানজট নেই। সড়কে চাপ হবে। তবে রাস্তার জন্য যানজট হয়নি। গত কয়েকটি বছর ঈদ যাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে। ফিরতি যাত্রা কয়েকটি দুর্ঘটনা হয়েছে। এবার আমরা আরও সতর্ক হয়েছি। রাস্তার জন্য যানজট হয়নি। কোরবানি ঈদের সময় পশুর হাট চাপ সৃষ্টি করে। পশুবাহী গাড়ি, পশুর হাট যত্রতত্র বসিয়ে জনদুর্ভোগ করবেন না।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বৃষ্টি হলে দুর্ভোগ এড়ানো খুব কঠিন। গতবারও বৃষ্টি ছিল। বৃহস্পতিবারও হঠাৎ বৃষ্টি হয়েছে। যে ফ্লাইটে সিঙ্গাপুর থেকে এসেছি ৩২ মিনিট নামতে পারেনি।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে বাজেট সেশন চলছে। এই বাজেট নিয়ে আলোচনা আছে, সমালোচনা আছে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও বাজেট আছে। এই বছর ৬৪ দেশে নির্বাচন হওয়ার কথা। আমাদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও নির্বাচন শেষ হয়েছে। বাজেট বাস্তবতা ভারসাম্যমূলক বাজেট।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, আফজাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, উপ প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল শামীম, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
One in jail in UP Chairman beating case

ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধর মামলায় একজন কারাগারে

ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধর মামলায় একজন কারাগারে আদালতের মাধ্যমে শুক্রবার দুপুরে সিরাজুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানো হয়। ছবি: নিউজবাংলা
বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজীব জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় কিছু ব্যক্তি মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে গিয়ে গরীব দুস্থদের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিএফ চালের ৫০ ভাগ দাবি করে। চেয়ারম্যান তা দিতে অস্বীকার করলে দুর্বৃত্তরা তাকে মারপিট ও তার কার্যালয় ভাঙচুর করে।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আজাদ দুলালকে মারপিট ও কার্যালয় ভাঙচুরের মামলায় একজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আদালতের মাধ্যমে শুক্রবার দুপুরে সিরাজুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানো হয়।

বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজীব জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় কিছু ব্যক্তি মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে গিয়ে গরীব দুস্থদের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিএফ চালের ৫০ ভাগ দাবি করে। চেয়ারম্যান তা দিতে অস্বীকার করলে দুর্বৃত্তরা তাকে মারপিট ও তার কার্যালয় ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

তিনি জানান, এ ঘটনায় বিকেলেই চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আজাদ দুলাল বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ রাতে বনপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার চার নম্বর আসামি সিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে। পরে শুক্রবার দুপুরে সিরাজুলকে আদালতে পাঠানো হলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আজাদ দুলাল জানান, নাটোর ৪ আসনের সংসদ সদস্য সিদ্দিকুর রহমানের লোকজন এসে চালের কার্ডের ৫০ পার্সেন্ট দাবি করে। পরবর্তীতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:
অর্থ আত্মসাৎ মামলায় ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু
তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা, প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ
তদন্তাধীন মামলায় গণমাধ্যমে বক্তব্য বন্ধ চেয়ে আইনি নোটিশ
সাভারে সাংবাদিকের ওপর হামলা মামলায় গ্রেপ্তার ২
দস্যুতার মামলায় দুই ঢাবি শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার, পরে জামিন

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Import export closed for 7 days during Banglabandha 

বাংলাবান্ধায় ৭ দিন বন্ধ আমদানি-রপ্তানি 

বাংলাবান্ধায় ৭ দিন বন্ধ আমদানি-রপ্তানি  পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর। ছবি: নিউজবাংলা
বাংলাবান্ধা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অমৃত অধিকারী জানান, ‘ঈদ উপলক্ষে সাতদিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক থাকবে ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার।’

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ও সাপ্তাহিক ছুটিসহ দেশের একমাত্র চতুর্দেশীয় পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে চার দেশের সঙ্গে পাথরসহ সকল প্রকার পণ্য আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সাতদিন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ সময় বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে পাসপোর্টধারী যাত্রী পারাপার স্বাভাবিক থাকবে।

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক কুদরত-ই খুদা মিলন শুক্রবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার চারদেশীয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধের বিষয়ে নোটিশ জারি করে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপ।

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর সূত্রে জানা যায়, ঈদুল আজহা উপলক্ষে ভারতের ফুলবাড়ী এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন, সিএন্ডএফ এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন ও ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক উল্লিখিত সাপ্তাহিক ছুটিসহ সাতদিন ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধের একটি চিঠি দেয়া হয়। সেখানে আগামী ১৫ জুন (শনিবার) থেকে ২০ জুন (বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত টানা ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ২১ জুন শুক্রবার ছুটি থাকায় আগামী শনিবার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে যথারীতি কার্যক্রম স্বাভাবিক হবে।

বাংলাবান্ধা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অমৃত অধিকারী জানান, ‘ঈদ উপলক্ষে সাতদিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক থাকবে ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার।’

আরও পড়ুন:
বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ
বাংলাবান্ধায় আবারও তিন দিন বন্ধ পণ্য ও যাত্রী পারাপার
বাংলাবান্ধা দিয়ে পণ্য ও যাত্রী পারাপার তিন দিন বন্ধ
চারদেশীয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু
বিরল স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি শিগগিরই

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Dead dolphin washed up on Kuakata beach

কুয়াকাটা সৈক‌তে ভে‌সে এলো মৃত ডলফিন

কুয়াকাটা সৈক‌তে ভে‌সে এলো মৃত ডলফিন ভেসে এলো মৃত ডলফিন। ছবি: নিউজবাংলা
শুক্রবার সকালে জোয়ারে পানিতে কুয়াকাটা সৈকতের জিরো পয়েন্টের পূর্ব পাশে ডলফিনটি দেখতে পান স্থানীয়রা।

পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সৈকতে আবারও ভে‌সে এলো প্রায় ১০ ফুট লম্বা এক‌টি বোটলনোজ প্রজাতির মৃত্যু ডলফিন।

শুক্রবার সকালে জোয়ারে পানিতে কুয়াকাটা সৈকতের জিরো পয়েন্টের পূর্ব পাশে ডলফিনটি দেখতে পান স্থানীয়রা।

ডলফিন রক্ষা কমিটির সদস্য আবুল হোসেন রাজু বলেন, বঙ্গোপসাগর কিছুটা উত্তাল থাকায় ঢেউয়ের সাথে সৈক‌তের বালু‌তে এ‌সে আট‌কে প‌ড়ে ডলফিনটি। ধারণা করা হ‌চ্ছে, দুই থেকে তিন দিন আগে এ‌টি মারা যেতে পারে। এর শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখা গে‌ছে।

কুয়াকাটা ডলফিন রক্ষা কমিটির টিম লিডার রুমান ইমতিয়াজ তুষার বলেন, খবর পাওয়ার সাথে সাথে বনবিভাগ ও ব্লু-গার্ডের সহায়তায় আমাদের সদস্যরা নিরাপদ স্থানে ডলফিনটিকে মাটি চাপা দেয়ার ব্যবস্থা করেছে।

বনবিভাগের মহিপুর রেঞ্জ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমাদের সদস্যদের পাঠিয়ে দ্রুত মৃত ডল‌ফিন‌টি‌কে মাটিচাপা দেয়ার ব্যবস্থা করা হ‌য়ে‌ছে, যাতে দুর্গন্ধ না ছড়ায়। যে‌হেতু আজ শুক্রবার দে‌শের বি‌ভিন্ন স্থান থে‌কে পর্যটকরা এখা‌নে আস‌বে তাই পর্যটক‌দের যা‌তে কোনো সমস‌্যা না হয় তাই দ্রুত ডল‌ফিন‌টি‌কে মা‌টি চাপা দেয়া হ‌য়ে‌ছে।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Bhattarai building blast One more burnt to death

ভাটারায় ভবনে বিস্ফোরণ: দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু

ভাটারায় ভবনে বিস্ফোরণ: দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট। ফাইল ছবি
দগ্ধ রকসির দেবর আহমেদ মোস্তফা বলেন, ‘আমার ভাবীর ব্রেইন টিউমার হয়েছে। এ জন্য এ মাসের ১ তারিখে আমরা সপরিবারে গ্রাম থেকে ঢাকায় এসে এভারকেয়ার হাসপাতালের পাশে ওই ভবনের নিচ তলায় একটি বাসায় ভাড়া উঠি। সেখান থেকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল তাকে।’

রাজধানীর ভাটারা থানায় একটি বাসায় বিস্ফোরণের ঘটনায় একই পরিবারের চারজন দগ্ধের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে মারা যান ১৮ বছর বয়সী নারী ফুতু আক্তার।

বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. তরিকুল ইসলাম বলেন, ‘ভাটারা থেকে নারী-শিশুসহ চারজন আমার এখানে এসেছিল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটের (আইসিইউতে) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এক নারী। তার শরীরের ৫৫ শতাংশ দগ্ধ ছিল।’

এর আগে বুধবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় আয়ান নামে তিন বছরের এক শিশু। শিশুটির মা রকসি আক্তার ও তার নানা আব্দুল মান্নান দগ্ধ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন, তবে তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানান চিকিৎসক।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এভারকেয়ার হাসপাতালের পাশের একটি ভবনের নিচ তলায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ রকসির দেবর আহমেদ মোস্তফা বলেন, ‘আমার ভাবীর ব্রেইন টিউমার হয়েছে। এ জন্য এ মাসের ১ তারিখে আমরা সপরিবারে গ্রাম থেকে ঢাকায় এসে এভারকেয়ার হাসপাতালের পাশে ওই ভবনের নিচ তলায় একটি বাসায় ভাড়া উঠি। সেখান থেকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল তাকে।’

তিনি বলেন, ‘সন্ধ্যার দিকে রান্নাঘরে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে আমাদের পরিবারের চারজন দগ্ধ হন, পরে তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসা হয়।’

আরও পড়ুন:
ফুলপুরে পানিতে ডুবে এক পরিবারের তিন শিশুর মৃত্যু
দুর্গন্ধের উৎস খুঁজতে গিয়ে পুকুরে মিলল মাদ্রাসাছাত্রের মরদেহ
ঢামেকে অসুস্থ হাজতির মৃত্যু
ভাটারায় ভবনে বিস্ফোরণ: দগ্ধ শিশুর মৃত্যু
চট্টগ্রামে খালে নিখোঁজ দুই শিশুর মধ্যে একজনের মরদেহ উদ্ধার

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Rain with gusty winds is possible

দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে

দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে প্রতীকী ছবি
সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের আটটি বিভাগে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

রাষ্ট্রীয় সংস্থাটি শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এমন তথ্য জানিয়েছে।

পূর্বাভাসে আজকের বৃষ্টিপাত নিয়ে বলা আছে, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায়; ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দুই এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সেই সঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝরি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এদিকে সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে।

তাপপ্রবাহ নিয়ে পূর্বাভাসে বলা আছে, খুলনা বিভাগসহ রাজশাহী এবং পাবনা জেলাসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু কিছু জায়গা থেকে প্রশমিত হতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ২০২ মিলিলিটার রেকর্ড করা হয় সিলেটে।

আরও পড়ুন:
বৃষ্টি হতে পারে সব বিভাগে
দেশজুড়ে বাড়তে পারে দিন-রাতের তাপমাত্রা
৯ জেলায় মৃদু তাপপ্রবাহ
সিলেটে ওসমানী হাসপাতালে পানি ঢুকে চরম দুর্ভোগ
ঢাকাসহ ১৬ জেলায় মৃদু তাপপ্রবাহ

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Rescue of the drone that fell on the roof of the metro rail station

মেট্রোরেল স্টেশনের ছাদে পড়া ড্রোন উদ্ধার

মেট্রোরেল স্টেশনের ছাদে পড়া ড্রোন উদ্ধার ড্রোন উদ্ধার করছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। ছবি: নিউজবাংলা
ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মিডিয়া সেলের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাজাহান শিকদার নিউজবাংলাকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

রাজধানীর মতিঝিলের মেট্রোরেল স্টেশনের তিন তলার ছাদে পড়ে থাকা একটি ড্রোন উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। তবে ড্রোনটি কার বা কীভাবে ছাদে আসলো সে ব্যাপারে জানা যায়নি।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার কিছুক্ষণ পর ড্রোনটি উদ্ধার করেন সিদ্দিক বাজার ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মিডিয়া সেলের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাজাহান শিকদার নিউজবাংলাকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, ১০ জুন মতিঝিলের মেট্রোরেল স্টেশনের তিন তলার ছাদে একটি ড্রোন পড়েছিল। মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের অনুরোধে এবং তাদের মতামতের ভিত্তিতে মেট্রোরেলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে শুক্রবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে সিদ্দিক বাজার ফায়ার স্টেশনের টিটিএল দিয়ে ড্রোনটি উদ্ধার করা হয়। এ সময় মেট্রো রেলের চলাচল বন্ধ ছিল।

তবে ঠিক কত সময় মেট্রোরেল বন্ধ ছিল তা জানাতে পারেননি ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) কোনো কর্মকর্তা।

মন্তব্য

p
উপরে