20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
অক্সফোর্ডের টিকা পরীক্ষা: ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু

অক্সফোর্ডের টিকা পরীক্ষা: ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু

দেশটির ন্যাশনাল হেলথ সারভেইল্যান্স এজেন্সি এ তথ্য জানিয়েছে। সংস্থাটি টিকার পরীক্ষা চলবে বলেও জানিয়েছে।

ব্রাজিলে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত করোনাভাইরাসের টিকার ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার সময় একজন স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় সময় বুধবার দেশটির ন্যাশনাল হেলথ সারভেইল্যান্স এজেন্সি এ তথ্য জানিয়েছে। সংস্থাটি টিকার পরীক্ষা চলবে বলেও জানিয়েছে।

টিকা নেয়ায় নাকি ওষুধে ওই স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

টিকাগ্রহীতাদের মেডিক্যাল গোপনীয়তার বিষয় বিবেচনায় নিয়ে ব্রাজিল কর্তৃপক্ষ জানায়, পরীক্ষা চলাকালে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যুর বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো যাবে না।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এক বিবৃতিতে বলে, ‘ব্রাজিলের ঘটনাটি নিবিড় পর্যালোচনা করে দেখা যায়, টিকার ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা নিয়ে নিরাপত্তাজনিত উদ্বেগ নেই। ব্রাজিলের নিয়ন্ত্রকদের পাশাপাশি স্বাধীন পর্যালোচনা এটাই সুপারিশ করেছে যে, টিকা পরীক্ষা চলবে।’

ব্রাজিলে টিকার তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা সমন্বয়কারী দ্য ফেডারেল ইউনিভার্সিটি অফ সাও পাওলো জানায়, ওই স্বেচ্ছাসেবক ব্রাজিলের নাগরিক ছিলেন।

সিএনএন ব্রাজিল এক প্রতিবেদনে জানায়, রিও ডি জেনিরোর বাসিন্দা ২৮ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি করোনা জটিলতায় মারা গেছেন।

ব্রাজিল সরকার এরই মধ্যে টিকাটি কেনার পরিকল্পনা করেছে। রিও ডি জেনিরোর বায়োমেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টার ‘ফিওক্রুজে’ টিকাটি উৎপাদন করা হবে বলেও জানিয়েছে।

অন্যদিকে সাও পাওলোর রিসার্চ সেন্টার দ্য বুটানটান ইনস্টিটিউটে চীনের সিনোভ্যাকের টিকার পরীক্ষা চলছে।

ব্রাজিলে করোনায় এক লাখ ৫৫ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মৃতের সংখ্যার দিক থেকে বিশ্বে ব্রাজিলের অবস্থান দ্বিতীয়।

সূত্র: আল জাজিরা

শেয়ার করুন