এবার ফাউচিকে ‘বোকা’ বললেন ট্রাম্প

এবার ফাউচিকে ‘বোকা’ বললেন ট্রাম্প

ট্রাম্প দাবি করেন, ফাউচির পরামর্শ যদি তিনি শুনতেন তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের আট লক্ষাধিক মানুষ এই মহামারিতে মারা যেত। তিনি বলেন, ‘ফাউচি আসলে আমাদের জন্য একটা বিপর্যয়।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প এবার দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউচিকে ‘বোকা’ বলে অভিহিত করলেন।

সোমবার ওয়াশিংটনে তার নির্বাচনি প্রচারকর্মীদের এক সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, ব্যাপক সম্মানিত ও জনপ্রিয় চিকিৎসক ফাউচি আসলে একজন বোকা মানুষ।

৭৯ বছর বয়সী অ্যান্থনি ফাউচি হোয়াইট হাউজের করোনাভাইরাস টাস্কফোর্সের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। করোনা মহামারি মোকাবিলায় তার পরামর্শ যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের কাছে বিশ্বাসযোগ্য হলেও ট্রাম্প তার এসব পরামর্শের তীব্র সমালোচনা করে আসছেন। করোনা মোকাবিলায় মাস্ক পরা, সভা সমাবেশ না করা, স্কুল না খোলা এসব নিয়ে ফাউচির সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্কের চরম অবনতি ঘটে।

প্রচারকর্মীদের সম্মেলনে ট্রাম্প আরও বলেন, ‘মানুষ করোনাভাইরাস নিয়ে ক্লান্ত। ফাউচি আর এইসব অপদার্থদের কথা শুনতে শুনতেও মানুষ ক্লান্ত।’

কোনও প্রমাণ উল্লেখ ছাড়াই ট্রাম্প দাবি করেন, ফাউচির পরামর্শ যদি তিনি শুনতেন তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের পাঁচ লাখ মানুষ এই মহামারিতে মারা যেত। তিনি বলেন, ‘ফাউচি আসলে আমাদের জন্য একটা বিপর্যয়।’

করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ২ লাখ ২০ হাজার মানুষ মারা গেছে।

বিরোধীদের অভিযোগ, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভাইরাসটির ভয়াবহতাকে খাটো করে দেখানোর চেষ্টা করার কারণেই দেশটির বহু মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। তবে তা অস্বীকার করে আসছেন ট্রাম্প।

অ্যান্থনি ফাউচিকে নিয়ে ট্রাম্পের আক্রমণাত্মক মন্তব্য করার আগের দিন এই বিশেষজ্ঞের একটি সাক্ষাৎকার সংবাদমাধ্যমগুলোতে সম্প্রচারিত হয়।

ওই সাক্ষাৎকারে ফাউচি বলেন, ট্রাম্প করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি একেবারেই বিস্মিত হননি। কারণ তিনি সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে গেছেন আর নিজের লক্ষণ দেখা দেওয়ার কয়েক দিন আগ পর্যন্তও মাস্ক ব্যবহারে অবহেলা করেছেন।

ট্রাম্প ফাউচিকে বোকা বলার পর রিপাবলিকান সিনেটর লামার আলেকজান্ডার এক টুইটবার্তায় বলেছেন ‘ডা. ফাউচি আমাদের দেশের অন্যতম বিশিষ্ট সরকারী কর্মকর্তা। তিনি রোনাল্ড রিগ্যান থেকে শুরু করে ছয় জন প্রেসিডেন্টের আমলে দায়িত্ব পালন করেছেন।’

তিনি বলেন,‘যদি আমেরিকানরা তার পরামর্শের প্রতি আরও মনোযোগ দেয়, তবে আমাদের কোভিড -১৯ সংক্রমণের ঘটনা কম ঘটবে’

সূত্র: এনডিটিভি

শেয়ার করুন

মন্তব্য